¦
টাইগারদের লংকা জয়ের প্রত্যয়

ইশতিয়াক সজীব | প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

শুরুতেই আফগান-জুজু জয়ের পর বৃষ্টির বদৌলতে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে শেষ আটের পথে অনেকটাই এগিয়ে গেছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিতে বাকি চার ম্যাচের দুটিতে জিতলেই চলবে। এর মধ্যে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে জয়টা প্রত্যাশিত। বাকি থাকল শ্রীলংকা, ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। এ তিন বড় দলের একটিকে অবশ্যই শিকার বানাতে হবে। দৈত্যবধের প্রথম সুযোগটাই লুফে নিতে চায় বাংলাদেশ। টাইগারদের কণ্ঠে তাই লংকা জয়ের প্রত্যয়। ক্রিকেটের অন্যতম বিখ্যাত মাঠ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) আজ বিশ্বকাপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে শ্রীলংকার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।
এমসিজি বাংলাদেশের জন্য অচেনা ভেন্যু হলেও প্রতিপক্ষ অতিচেনা। অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা তাই জয়ের বিকল্প কিছুই ভাবছেন না। ধারে-ভারে বাংলাদেশের চেয়ে অনেক এগিয়ে শ্রীলংকা। গত দুই আসরের রানার্সআপ তারা। বিশ্বকাপে শ্রীলংকার বিপক্ষে বাংলাদেশের রেকর্ড একেবারে যাচ্ছেতাই। তবে ২০০৩ বিশ্বকাপে ১০ উইকেটে আর ২০০৭ বিশ্বকাপে ১৯৮ রানের বিশাল হারের সেই দুঃস্মৃতি মেলবোর্নে ফিরে আসার কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না মাশরাফি। এবার বরং পাশার দান উল্টে দেয়ার ব্যাপারে প্রবল আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ অধিনায়ক, শ্রীলংকার কাছে আমরা অতীতে হেরেছি, এর মানে আমরা তখন ভালো খেলতে পারিনি। বিষয়টি এমনই। এবার আমরা যদি ভালো করতে পারি, নিজেদের খেলাটা খেলতে পারি, তাহলে শ্রীলংকাকে না হারানোর কোনো কারণ দেখছি না আমি। বুধবার মেলবোর্নে অনুশীলন শেষে সংবাদ সম্মেলনে নিজের দাবির পক্ষে যুক্তিও দেখালেন মাশরাফি, গত বছর এশিয়া কাপে আমরা আফগানিস্তানের কাছে হেরেছিলাম। অনেকে ভেবেছিল এবারও তারা জিতবে, কিন্তু কী ঘটেছে সেটা তো দেখেছেন। আমরা সহজেই জিতেছি। শ্রীলংকার বিপক্ষেও একই ঘটনা ঘটতে পারে। শক্তি-অভিজ্ঞতায় যোজন যোজন এগিয়ে থাকলেও সময়টা ভালো যাচ্ছে না শ্রীলংকার। প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের সামনে তারা দাঁড়াতেই পারেনি। পরের ম্যাচে আফগানিস্তানকে হারাতে রীতিমতো ঘাম ছুটে গেছে। মাহেলা জয়াবর্ধনের অমূল্য এক সেঞ্চুরিই আফগান-লজ্জা থেকে বাঁচিয়ে দিয়েছিল লংকানদের। সেই তুলনায় বাংলাদেশ অনেক শক্ত প্রতিপক্ষ। শ্রীলংকার বিপক্ষে ৩৭ ওয়ানডেতে চারটি জয় আছে বাংলাদেশের। সাম্প্রতিককালে শ্রীলংকার বিপক্ষে ভালো খেলার বিষয়টিও মনে করিয়ে দিলেন মাশরাফি, দু-এক বছরের মধ্যে আমরা তাদের হারিয়েছি। নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারলে এবারও আমরা জিততে পারি।
শ্রীলংকার দুই ব্যাটিং স্তম্ভ কুমার সাঙ্গাকারা ও জয়াবর্ধনে বাংলাদেশের জন্য সব সময়ই বিপজ্জনক। জয়াবর্ধনে আগের ম্যাচেই রানে ফিরেছেন। আজ নিজের ৪০০তম ওয়ানডেটি স্মরণীয় করে রাখতে সাঙ্গাকারাও হয়তো ঝড় তুলতে চাইবেন। তবে এনিয়ে বিশেষ উদ্বিগ্ন নন মাশরাফি, তাদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের সঙ্গে আমরা ভালোভাবেই পরিচিত। তারা কি করতে পারে, আমরা জানি। কিন্তু একজন বাটসম্যানকে আউট করতে একটি ভালো বলই যথেষ্ট। পরিকল্পনামাফিক খেলাটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।
শৃংখলা ভঙ্গের অভিযোগে বোলার আল-আমিন হোসেনের আচমকা দেশে ফিরে আসা নিয়ে দলে কিছুটা অস্বস্তি থাকলেও মাশরাফি জানিয়েছেন, আজকের ম্যাচে এই ঘটনার কোনো প্রভাব পড়বে না, বিষয়টি এখন অতীত। বিশ্বকাপের অন্যতম সুশৃংখল দল আমরা। সুতরাং কেউ নিয়ম ভাঙলে, শাস্তি তাকে পেতেই হবে।
আগের দিন অনুশীলনের সময় আঙুলে হালকা চোট পেলেও আজ মুশফিকুর রহিমের খেলা নিয়ে কোনো অনিশ্চয়তা নেই। তবে মাশরাফি ইঙ্গিত দিয়েছেন, মুশফিকের বদলে উইকেটকিপারের দায়িত্ব পালন করতে পারেন এনামুল হক। মুশফিকের চোট গুরুতর না হলেও হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে শুধু আজকের ম্যাচ নয়, বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে গেছেন লংকান অলরাউন্ডার জীবন মেন্ডিস। সব মিলিয়ে প্রবল চাপে আছেন শ্রীংলকা অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। বাংলাদেশকে নিয়ে উদ্বেগটা গোপন করেননি তিনি, আমাদের সবার জন্য এটা চাপের ম্যাচ। নিঃসন্দেহে ম্যাচটি কঠিন হবে। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স বেশ ভালো। দারুণ কিছু খেলোয়াড় আছে তাদের। বাংলাদেশের সব ব্যাটসম্যান ও বোলারকে নিয়েই আমরা সতর্ক। যারা সেরাটা খেলবে তারাই জিতবে। আশা করি, মেলবোর্নে নিজেদের সেরাটা খেলতে পারব আমরা।
প্রথম পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close