¦

এইমাত্র পাওয়া

  • হালনাগাদ ভোটার তালিকার খসড়া প্রকাশ; নতুন ভোটার ৪৩ লাখ ৬৮ হাজার ৪৭ জন
নতুন বই হাতে ফেরা হল না ছোট্ট সোহানার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি | প্রকাশ : ০২ জানুয়ারি ২০১৬

বছরের প্রথমদিন শুক্রবার। দেশজুড়ে শুরু হয়েছে বই উৎসব। নতুন বই পাওয়ার আনন্দ যেন আর বাঁধ মানে না শিশুদের। ছুটির দিনে নতুন বই আনতে ছুটে চলে ছোট্ট সোহানা ও তার সহপাঠীরা। কিন্তু বই হাতে আর ফেরা হল না সোহানার। পথে শরীয়তপুর-গোসাইরহাট সড়কের ছাতিয়ানি ব্রিজের সামনে ঘাতক অটোবাইকের চাপায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে নতুন প্রজন্ম শিশু সোহানা। অসহনীয়, হৃদয়বিদারক এ ঘটনার বিচার দাবি করেন মা কাকলী বেগম। তিনি বলেন, আমার মেয়ে নতুন বই আনতে স্কুলে যাচ্ছিল। ঘাতক অটোবাইক চাপা দিয়ে আমার মেয়েকে হত্যা করেছে। আমি এ হত্যার বিচার চাই। শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলার ছতিয়ানি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণীর ছাত্রী সোহানা আকতার (৭)। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাড়ি থেকে ছাতয়ানি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে আনন্দবাজারে পেছন থেকে একটি অটোবাইক চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। বই উৎসবের শুরুর দিনে নতুন বই নিয়ে খুশি মনে বাড়ি ফেরার কথা ছিল প্রথম শ্রেণী থেকে দ্বিতীয় শ্রেণীতে ওঠা সোহানা আক্তারের। বই হাতে আর ফেরা হল না সোহানার। বিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে শরীয়তপুর-গোসাইরহাট সড়কের ছাতিয়ানি ব্রিজের সামনে ঘাতক অটোর চাপায় ঘটনাস্থলেই মারা যায়। স্থানীয় লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। কনেশ্বর ইউনিয়নের ছাতিয়ানি গ্রামের শাহিন সরদারের মেয়ে সোহানা।
পুলিশ অটোবাইক আটক করলেও চালক পালিয়ে যায়। নিহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী প্রায় দেড় ঘণ্টা শরীয়তপুর-গোসাইরহাট সড়ক অবরোধ করে রাখে। শিক্ষার্থী নিহত হওয়ায় বই বিতরণ বন্ধ রেখেছে ২৭নং ছাতিয়ানি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।
খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে দোষী চালককে আটক করার আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় এলকাবাসী। অটো চালককে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। মৃত্যুর খবর শোনার সঙ্গে সঙ্গে পাগলপ্রায় সোহানার স্বজনরা। সোহানার গ্রামের বাড়িতে এখন চলছে শোকের মাতম।
ডামুড্যা থানার ওসি আশরাফুল আমিন বলেন, অটোবাইক আটক করা হয়েছে। চালক পলাতক রয়েছে। এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি।
 

প্রথম পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close