jugantor
আইএস জঙ্গিদের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে ইসরাইল

  প্রিণ্ট সংস্করণ  

১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৮:২১:১৪  | 

২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইসরাইলি বাহিনী পরিচালিত হাসপাতালে চিকিৎসারত সিরিয়ায় ডেথ স্কোয়াড জঙ্গির সঙ্গে করমর্দন করছেন প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু

সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আহত জঙ্গিদের চিকিৎসাসেবা দিচ্ছে ইসরাইল। সিরিয়া সীমান্তবর্তী গোলান হাইটে ইসরাইল পরিচালিত হাসপাতালে তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। শুধু তাই নয়, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে আহত যোদ্ধাদের তুলে নিয়ে আসছে ইসরাইলি সৈন্যরা।
সম্প্রতি এমন একটি ভিডিও ফুটেজ হস্তগত হয়েছে ব্রিটিশ প্রভাবশালী দৈনিক ডেইলি মেইলের। তবে ইসরাইল দাবি করেছে, তারা সিরিয়ার বিদ্রোহীদের এ সেবা দিচ্ছে।
বুধবার ডেইলি মেইল জানায়, রাতের আঁধারে ইসরাইলি সেনারা নিয়মিত গোপন অভিযান চালায় সিরিয়ায়। সেখান থেকে আহত যোদ্ধাদের নিয়ে ফেরত আসে গোলান হাইটের হাসপাতালে। তবে এই যোদ্ধা ইসরাইলি সৈন্য নয়, এরা ইসলামী জঙ্গি। এ ব্যাপারে ইসরাইলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় ইরানের মিত্র সরকার বাশার আল আসাদের বিরুদ্ধে লড়াইরত সুন্নি বিদ্রোহীদের চিকিৎসাসেবা দিচ্ছে তারা। কিন্তু সমালোচকদের মতে, আইএস জঙ্গিদের সেবা দিচ্ছে ইসরাইল। ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ আইএসকে সৃষ্টি করেছে বলে শক্তিশালী প্রমাণ রয়েছে। মোসাদ আইএস জঙ্গিদের প্রশিক্ষণও দিয়ে থাকে।
ইসরাইলের বক্তব্য সত্য ধরে নিলেও বিশেষজ্ঞদের প্রশ্ন হচ্ছে, সুন্নি বিদ্রোহীরা আসাদবিরোধী হলেও ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইলের প্রতি সরাসরি শত্রুতা পোষণ করে। ডেইলি মেইলকে এ কথা জানিয়েছে, খোদ ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা। তাহলে, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ইসরাইল সৈন্যরা কেন যুদ্ধক্ষেত্রে যোদ্ধাদের উদ্ধারে গোপন অভিযান চালাবে? প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত দুই হাজার ইসলামী যোদ্ধার প্রাণ বাঁচিয়েছে ইসরাইলি সৈন্যরা। এতে ব্যয় হয়েছে কমপক্ষে ৫ কোটি শেকেল (১ কোটি ৪০ লাখ ডলার)। এছাড়া ২০১৪ সালের ফেব্র“য়ারিতে ওই হাসপাতাল সফর করে আÍঘাতী স্কোয়াডের এক জঙ্গি নেতার সঙ্গে করমর্দন করেছিলেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। এ নিয়ে ইসরাইলের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার সন্দেহ দৃঢ় হয়।

আরও পড়ুন
সাবমিট

আইএস জঙ্গিদের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে ইসরাইল

 প্রিণ্ট সংস্করণ  
১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৮:২১ এএম  | 
২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইসরাইলি বাহিনী পরিচালিত হাসপাতালে চিকিৎসারত সিরিয়ায় ডেথ স্কোয়াড জঙ্গির সঙ্গে করমর্দন করছেন প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু
২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে ইসরাইলি বাহিনী পরিচালিত হাসপাতালে চিকিৎসারত সিরিয়ায় ডেথ স্কোয়াড জঙ্গির সঙ্গে করমর্দন করছেন প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু

সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটের (আইএস) আহত জঙ্গিদের চিকিৎসাসেবা দিচ্ছে ইসরাইল। সিরিয়া সীমান্তবর্তী গোলান হাইটে ইসরাইল পরিচালিত হাসপাতালে তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। শুধু তাই নয়, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে আহত যোদ্ধাদের তুলে নিয়ে আসছে ইসরাইলি সৈন্যরা।
সম্প্রতি এমন একটি ভিডিও ফুটেজ হস্তগত হয়েছে ব্রিটিশ প্রভাবশালী দৈনিক ডেইলি মেইলের। তবে ইসরাইল দাবি করেছে, তারা সিরিয়ার বিদ্রোহীদের এ সেবা দিচ্ছে।
বুধবার ডেইলি মেইল জানায়, রাতের আঁধারে ইসরাইলি সেনারা নিয়মিত গোপন অভিযান চালায় সিরিয়ায়। সেখান থেকে আহত যোদ্ধাদের নিয়ে ফেরত আসে গোলান হাইটের হাসপাতালে। তবে এই যোদ্ধা ইসরাইলি সৈন্য নয়, এরা ইসলামী জঙ্গি। এ ব্যাপারে ইসরাইলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সিরিয়ায় ইরানের মিত্র সরকার বাশার আল আসাদের বিরুদ্ধে লড়াইরত সুন্নি বিদ্রোহীদের চিকিৎসাসেবা দিচ্ছে তারা। কিন্তু সমালোচকদের মতে, আইএস জঙ্গিদের সেবা দিচ্ছে ইসরাইল। ইসরাইলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ আইএসকে সৃষ্টি করেছে বলে শক্তিশালী প্রমাণ রয়েছে। মোসাদ আইএস জঙ্গিদের প্রশিক্ষণও দিয়ে থাকে।
ইসরাইলের বক্তব্য সত্য ধরে নিলেও বিশেষজ্ঞদের প্রশ্ন হচ্ছে, সুন্নি বিদ্রোহীরা আসাদবিরোধী হলেও ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইলের প্রতি সরাসরি শত্রুতা পোষণ করে। ডেইলি মেইলকে এ কথা জানিয়েছে, খোদ ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা। তাহলে, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ইসরাইল সৈন্যরা কেন যুদ্ধক্ষেত্রে যোদ্ধাদের উদ্ধারে গোপন অভিযান চালাবে? প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৩ সাল থেকে এ পর্যন্ত দুই হাজার ইসলামী যোদ্ধার প্রাণ বাঁচিয়েছে ইসরাইলি সৈন্যরা। এতে ব্যয় হয়েছে কমপক্ষে ৫ কোটি শেকেল (১ কোটি ৪০ লাখ ডলার)। এছাড়া ২০১৪ সালের ফেব্র“য়ারিতে ওই হাসপাতাল সফর করে আÍঘাতী স্কোয়াডের এক জঙ্গি নেতার সঙ্গে করমর্দন করেছিলেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। এ নিয়ে ইসরাইলের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতার সন্দেহ দৃঢ় হয়।

আরও পড়ুন

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র