¦
ভারত গোপন পরমাণু স্থাপনা নির্মাণ করছে

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশ : ১৯ ডিসেম্বর ২০১৫

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্নাটকে চাল্লাকেরে এলাকায় পরমাণু অস্ত্র নির্মাণে সক্ষম একটি গোপন পরমাণু স্থাপনা নির্মাণ করছে দেশটির সেনাবাহিনী। ২০১২ সালে এর নির্মাণ কাজ শুরু হয়, শেষ হবে ২০১৭ সালে। পুরোপুরি চালু হওয়ার পর এটিই হবে উপমহাদেশের সবচেয়ে বড় সেনাবাহিনী পরিচালিত পরমাণু সেন্ট্রিফিউজ স্থাপনা।
ভারত সরকারের পরমাণু গবেষণা বৃদ্ধি, বিদ্যমান স্থাপনাগুলোর জন্য জ্বালানি তৈরি এবং নতুন সাবমেরিনগুলোর জন্য বিদ্যুৎ সরবরাহ করা ওই গোপন স্থাপনার উদ্দেশ্য।
যুক্তরাষ্ট্রের ফরেন পলিসি ম্যাগাজিনের এক অনুসন্ধানি প্রতিবেদনে এমন দাবি করা হয়েছে।
পরমাণু অস্ত্র নিয়ে কাজ করা স্কটহোম আন্তর্জাতিক শান্তি গবেষণা ইন্সটিটিউটের (এসআইপিআরআই) হিসেব অনুসারে বর্তমানে ভারতের কাছে ৯০ থেকে ১১০টি পরমাণু অস্ত্র রয়েছে। অন্যদিকে তাদের চিরবৈরি দুই প্রতিবেশী পাকিস্তানের কাছে ১২০টি, এবং চীনের কাছে ২৬০টির মতো পারমাণবিক অস্ত্র রয়েছে।
ভারতে বর্তমানে মজুদকৃত সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের পরিমাণ বাড়ানোও গোপন ওই পরমাণু স্থাপনার অন্যতম উদ্দেশ্য। সমৃদ্ধ ইউরেনিয়ামের মাধ্যমে তাপপারমাণবিক অস্ত্র হিসেবে পরিচিত হাইড্রোজেন বোমার মতো অস্ত্র তৈরি সম্ভব।
ফরেন পলিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চাল্লাকেরে এলাকায় গোপন ওই পরমাণু শহরের নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হলে চীন ও পাকিস্তানের তুলনায় ভারতের পাররমাণবিক অস্ত্র সক্ষমতা বাড়বে এবং এটি উপমহাদেশে নতুন করে অস্থিরতা উস্কে  দেবে। প্রতিবেদনটিতে ভারত কিংবা যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি কর্তৃপক্ষের কোনো ভাষ্য না থাকলেও নাম উল্লেখ না করে ভারতের একাধিক অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তার বরাত দেয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close