¦
আত্ম পরিচয়

| প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৫

বর্তমান পৃথিবীর দিশাহারা মানবগোষ্ঠীর জন্য বলছি, মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। মানব সৃষ্টির বৈশিষ্ট্য হল শিশু ভূমিষ্ঠ হয়ে হুয়া হুয়া করে চিৎকার করতে করতে অস্থির হয়। অন্যান্য প্রাণীর বাচ্চাগুলো সব চুপচাপ পড়ে থাকে।
মানব শিশু ভূমিষ্ঠ হয়ে কেন চিৎকার করতে করতে অস্থির হয়ে পড়ে? সবার অবগতির জন্য বলছি, স্রষ্টা আদম সন্তানদের জন্য শিক্ষা অপরিহার্য করে রেখেছেন। শিশু ভূমিষ্ঠ হয়ে কেন অস্থির হয়ে পড়ে? স্রষ্টার প্রেরিত গ্রন্থ লেখাপড়া ব্যতিরেকে বিকল্প কোনো পথ নেই। সুতরাং স্রষ্টার প্রেরিত গ্রন্থ লেখাপড়া করে আত্ম পরিচয় লাভ করতে পারলেই মানুষ শান্ত হয়। মানুষ ও পশুর মধ্যে সৃষ্টিগত পার্থক্য হচ্ছে পশুরা পেটসর্বস্ব বিবেকহীন, অসামাজিক, অতীত ভবিষ্যৎ অনুভব করার অনুভূতি তাদের নেই। তারা বর্তমানবাদী, ভবিষ্যতে বিশ্বাসী নয়। মানুষ হচ্ছে বিবেকবান সামাজিক, অতীত, বর্তমান, ভবিষ্যৎ অনুভব করার অনুভূতি সম্পন্ন এবং ভবিষ্যৎ বিশ্বাসী। পশুদের জীবন খুব সহজ ও সুখের শুধু দানা-পানি যোগাড় করতে উদর পূর্ণ ও রিপুর চাহিদা চরিতার্থ করলেই হয়। পশুরা খাদ্য উৎপাদন বেচাকেনা রান্নাবান্না ও জমা রাখার প্রয়োজন বোধ করে না। সারা দিন আল্লাহর জমিনে ঘোরাঘুরি করে খালি পেটে কেউ সন্ধ্যায় বাসায় ফেরে না। মানুষের বাচ্চাটা ভূমিষ্ঠ হয়ে কান্নাকাটি করে অস্থিরত হয়ে যাওয়ার কারণ বলছি। সৌরজগৎ হচ্ছে সৃষ্টির অবহেলিত নিকষ্ট ক্ষুদ্রতম একটি অংশের নাম। আসল সৃষ্টি হচ্ছে সৌরজগতের বাইরে সূর্যের তাপ নক্ষত্রের ঠাণ্ডা সেখানে স্পর্শ করতে পারে না। অর্থাৎ এয়ারকন্ডিশন। (আল কোরআন)। সন্তানটি মায়ের গর্ভে থাকাকালীন সৌরজগৎটি অপরিচিত ছিল। ভূমিষ্ঠের পর অস্থিরতার কারণ হচ্ছে সৌরজগতের আবহাওয়া তার স্বাস্থ্যের অনুকূলে নয়। কখন ঠাণ্ডা, কখন গরম, খাদ্য খোরাক নিুমানের যার কারণে পেটে গণ্ডগোল পায়খানা ও পস্রাবখানায় তো অবশ্যই দৌড়াদৌড়ি করতে হয়। সমাজ ব্যবস্থায় ভঙ্গুর নীতির নামে চলছে লুটপাট চরম নোংরামি। এহেন রুগ্ন অসুস্থ সমাজে বসবাস করে ভবিষ্যৎ পথের পাথেয় সঞ্চয় সম্বল যোগাড় করা অতি দ–রূহ ও কঠিন ব্যাপার। মানব শিশু জন্মেছিলাম। মানুষ হতে পারলাম না। খাও দাও ফুর্তি কর দুনিয়াটা মস্ত বড় পরিণামের কোনো চিন্তা-ভাবনা নেই, এটা পশুর জীবন।
লেখক : মাওলানা আবদুর রহমান ফারুকী আহ্বায়ক, শিক্ষা শুদ্ধি অভিযান, চান্দিনা, কুমিল্লা
ইসলাম ও জীবন পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close