¦
আঁধারে ঢাকা ফুটবল

মোজাম্মেল হক চঞ্চল | প্রকাশ : ০১ জানুয়ারি ২০১৬

বছরের শুরুতে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ফাইনালে হেরে মামুনুলদের কান্না। বছরটা শেষ হয়েছে ভারতের কেরালায় কান্না দিয়েই

দেশের ফুটবল গেল বছর ছিল অন্ধকারে। ঢাকা জাতীয় দলের কোথাও কোনো সাফল্য ছিল না। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে হারের মধ্য দিয়ে বছর শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের। শেষও হয় সাফ ফুটবলে চরম ভরাডুবির মধ্যদিয়ে। বছরের শেষভাগে সিলেটে অনূর্ধ্ব-১৬ সাফ ফুটবল দলের শিরোপার সঙ্গে নেপালে মেয়েদের এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপে সেরা হওয়াটা ম্লান হয়ে যায় সাফের ব্যর্থতায়।
বছরের সবচেয়ে আলোচ্য বিষয় ছিল ঘন ঘন একাধিক কোচের বিদায়। ডাচ কোচ ক্রুইফ ও রেনে কোস্টারের পর আনা হয়েছিল ইতালীয় কোচ ফাবিও লোপেজ ও তার তিন সহকারীকে। সাফের আগে তাদেরও ছেঁটে ফেলে দায়িত্ব দেয়া হয় স্থানীয় কোচ মারুফুল হককে। ডাচ গোলকিপার কোচ কাল্কের সঙ্গে জার্মান গোলকিপার কোচ শোয়েচলারও বিদায় হয়েছেন। কোচদের বেতন-ভাতা নিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) করেছে টালবাহানা।
ঘরোয়া ফুটবলের বর্ষপঞ্জি থেকে ছেঁটে ফেলা হয়েছে সুপার কাপ ও স্বাধীনতা কাপ। মাঠে গড়ায়নি পেশাদার ফুটবলের দলগুলো নিয়ে অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল। শেরেবাংলা কাপ জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ দূরের কথা, সোহরাওয়ার্দী কাপ, ক্লাব চ্যাম্পিয়নশিপ আলোরমুখ দেখেনি। জাতীয় দলের লজ্জাজনক পারফরম্যান্স দেশবাসীকে ক্ষুব্ধ করেছে। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে মালয়েশিয়া অনূর্ধ্ব-২০ দলের কাছে গ্র“পপর্ব এবং ফাইনালে দু’বারই হেরেছে বাংলাদেশ দল। ১৫ কোটি টাকার ওই টুর্নামেন্টে জাতীয় দল ব্যর্থ হলেও কর্মকর্তাদের পকেট ভারি হয়েছে। মডুলাস কমিউনিকেশন্স নামে একটি ভূইফোঁড় প্রতিষ্ঠানকে কোটি টাকার কাজ দেয়া হয় বিনা টেন্ডারে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে সাত ম্যাচের মধ্যে ছয়টিতেই হেরেছেন মামুনলরা। একমাত্র ড্র হোম ম্যাচে তাজিকিস্তানের সঙ্গে ১-১ গোলে। পার্থে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ০-৫ এবং ঢাকায় ০-৪ গোলে হারার পর তাজিকিস্তানের কাছে অ্যাওয়ে ম্যাচে হার ০-৫ গোলে। সাফ ফুটবলে ব্যর্থতা ছিল অমার্জনীয়। আফগানিস্তানের কাছে ০-৪ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার পর মালদ্বীপের কাছে ১-৩ গোলে হার।
২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে ম্যারাডোনার নেতৃত্বে ফ্র্যাঞ্চাইজি লীগ মাঠে গড়ানোর ঘোষণা দেয়া হয়েছিল। ম্যারাডোনা দূরে থাক, লীগের প্রস্তুতিও খুঁজে পাওয়া যায়নি। বছরের শেষে এসে লন্ডনভিত্তিক একটি সংস্থার সঙ্গে ফ্রাঞ্চাইজি লীগ আয়োজনের ঘোষণা দেয় বাফুফে। তাদের সঙ্গে যোগ দেয় ভারতীয় সেলিব্রেটি ম্যানেজমেন্ট। দুটি কোম্পানিরই হদিস নেই এখন। সাইফ পাওয়ারটেক নামে একটি কোম্পানির সঙ্গে নতুন করে লোক দেখানো চুক্তি করতে যাচ্ছে বাফুফে। ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ব্যাব) থেকে আট কোটি টাকা পাওয়ার পরও ফুটবল এগোয়নি এক ইঞ্চিও। স্কুল ও কলেজ ফুটবল আয়োজনের নাম করে ইসলামী ব্যাংক থেকে কয়েক কোটি টাকা নিয়ে তা কাজে লাগায়নি বাফুফে। তিন বছরের অডিট রিপোর্ট বাফুফের সভায় তিন মিনিটে পাস করে ফিফায় পাঠানো হয়েছে।
চট্টগ্রামে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ফুটবলে কলকাতা ইস্ট বেঙ্গলকে হারিয়ে শিরোপা জেতে চট্টগ্রাম আবাহনী। এএফসি কাপের চূড়ান্তপর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে শেখ জামাল। বছরের শেষ দিকে দলবদল নিয়ে শুরু হয় নতুন টালবাহানা। সালাউদ্দিনসহ বাফুফের কর্মকর্তাদের দুর্নীতি নিয়ে মুখ খোলায় শোকজ নোটিশ দেয়া হয় শেখ জামাল সভাপতি মনজুর কাদের ও মোহামেডানের লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে। বাফুফে পরে পিছু হটে। চ্যাম্পিয়নশিপ লীগে পুলিশের সঙ্গে ম্যাচে রেফারির বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে আরামবাগ ক্লাবের উচ্ছৃংখল সমর্থকরা বাফুফে ভবন ভাংচুর করে। জাতীয় দলের ছয় ফুটবলার নৌবাহিনীতে যোগ দিয়ে আলোড়ন তোলেন। শেখ জামালের ঘর ভেঙে দেয় শেখ রাসেল, ঢাকা ও চট্টগ্রাম আবাহনী। জাতীয় দলের ক্যাম্প থেকে খেলোয়াড়দের তুলে নিয়ে যান শেখ জামাল সভাপতি মনজুর কাদের।
 

কালনিরবধি ২০১৬ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close