¦
লিবিয়া উপকূলে নৌকাডুবিতে ৪শ যাত্রীর মৃত্যুর আশংকা

যুগান্তর ডেস্ক | প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০১৫

লিবিয়ার উপকূলে যাত্রীবাহী একটি নৌকা ডুবে গেছে। এতে ৪শ যাত্রীর মৃত্যুর আশংকা করা হচ্ছে। যাত্রীরা লিবিয়া থেকে ইতালি যাচ্ছিল। ইতালির কোস্টগার্ড সোমবার ১৪৪ যাত্রীকে জীবিত ও ৯ জনের লাশ উদ্ধার করেছে। তারা আকাশ ও সাগর পথে উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। তবে নৌকাটি কি কারণে ডুবে গেছে এ ব্যাপারে সঠিক তথ্য জানা যায়নি। নৌকাটিতে ৫৫০ জনের বেশি যাত্রী ছিল। বেঁচে যাওয়া যাত্রীরা সেভ দ্য চিলড্রেনকে এ তথ্য জানিয়েছে। এএফপি, বিবিসি।
সোমবার লিবিয়া উপকূল থেকে ৬০ মাইল দূরে জাহাজের মতো বড় ওই নৌকাটি উল্টে যায়। লিবিয়া থেকে যাত্রা শুরু করার মাত্র একদিন পরই তারা ওই দুর্ঘটনায় পরে। দুর্ঘটনার পর পরই লিবিয়ার কোস্টগার্ড উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে। ইতালির উপকূলীয় রক্ষীরা ইতিমধ্যে ১৪৪ জনকে উদ্ধার করেছে। তাদেরকে মঙ্গলবার সকালে ইতালির এক বন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ পর্যন্ত ৯টি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে উদ্ধারকারীদের আশংকা, নৌকার আর কোনো আরোহী বেঁচে নেই।
সেভ দ্য চিলড্রেনের এক মুখপাত্র রয়টার্সকে জানিয়েছেন, সোমবারের ওই দুর্ঘটনা থেকে যাদেরকে উদ্ধার করা হয়েছে তাদের অধিকাংশই আফ্রিকার সাব সাহারা অঞ্চলের বাসিন্দা। তাদেও বেশির ভাগই বয়সে যুবক এবং তরুণ।
ইতালিতে আন্তর্জাতিক অভিবাসী সংস্থার মুখপাত্র ফ্লাভিও দি জিয়াকোমো বলেন, উদ্ধার হয়ে ফিরে আসা কয়েকজন যাত্রী তাদের জানিয়েছেন, জাহাজে ৫০০ থেকে ৫৫০ জন যাত্রী ছিল। তিনি বলেন, কীভাবে এ জাহাজডুবির ঘটনা ঘটেছে, আমরা তা তদন্ত করে দেখছি। প্রাথমিক তদন্তে দেখা যায়, ইতালীয় উদ্ধারকারী দলকে দেখার পর যাত্রীরা হুড়াহুড়ি শুরু করলে জাহাজটি ডুবে যাওয়ার ঘটনা ঘটে। ইতালি কর্তৃপক্ষ জানায়, কয়েক সপ্তাহে আফ্রিকা থেকে ভূমধ্যসাগর হয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে যাওয়ার পথে কয়েকটি নৌকা ধরা পড়েছে। গত শুক্রবার থেকে সোমবারের মধ্যে অভিযান চালিয়ে প্রায় আট হাজার ৫০০ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়।
উন্নত জীবনের খোঁজে ইউরোপের দেশগুলোতে পৌঁছানোর জন্য এই বিপজ্জনক নৌভ্রমণ শুরু করেছিল এসব অভিবাসী। গত তিন মাসে ভূমধ্যসাগরে এ জতীয় দুর্ঘটনায় ইতিমধ্যে ৫শ অভিবাসী প্রাণ হারিয়েছেন।
শেষ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close