¦

এইমাত্র পাওয়া

  • চাঁদা না দেয়ায় নরসিংদীর পলাশে সন্ত্রাসীদের হামলায় সাবেক ফুটবলার নাদিরুজ্জামান খন্দকার নিহত
মগবাজারে ফিল্মি স্টাইলে ৩৩ লাখ টাকা ছিনতাই

যুগান্তর রিপোর্ট | প্রকাশ : ২৫ মে ২০১৫

রাজধানীর বড় মগবাজারে ওষুধ বিপণনকারী প্রতিষ্ঠানের হিসাবরক্ষককে গুলি করে ৩৩ লাখ ২৭ হাজার টাকা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার দুপুর সোয়া ১টার দিকে অ্যাকোয়ামেরিন ডিস্ট্রিবিউশন নামে একটি প্রতিষ্ঠানের হিসাবরক্ষক সেলিম আক্তার (২৯) ও সহকারী হিসাবরক্ষক পিন্টু রঞ্জন দাস ব্র্যাক ব্যাংকের মগবাজার শাখায় টাকা জমা দিতে যাওয়ার সময় এ ঘটনা ঘটে। মগবাজার আড়ংসংলগ্ন বিশাল সেন্টারের পেছনের গলিতে বিবির গার্মেন্টসের সামনে আগে থেকে ওতপেতে থাকা কয়েক ছিনতাইকারী তাদের ঝাপটে ধরে ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। টানাহেঁচড়ার একপর্যায়ে সেলিমের ঊরুতে গুলি করে তারা ব্যাগ নিয়ে নেয়। ছিনতাইকারীরা পিন্টুকে গুলি করতে উদ্যত হলে তিনি প্রাণ ভয়ে টাকার ব্যাগ ফেলে দেন। ছিনতাইকারীরা টাকার দুটি ব্যাগ নিয়ে অস্ত্র উঁচিয়ে পালিয়ে যায়।
গুলিবিদ্ধ সেলিম জানান, তিনি ওষুধ বিপণন কোম্পানি সানোফির সহযোগী প্রতিষ্ঠান অ্যাকোয়ামেরিন ড্রিস্টিবিউশন লিমিটেডের হিসাবরক্ষক। তাদের অফিস ২১৯, বড় মগবাজারে। দুটি ব্যাগে ৩৩ লাখ ২৭ হাজার টাকা নিয়ে ব্র্যাক ব্যাংক মগবাজার শাখায় যাচ্ছিলেন। সামনে ছিলেন পিন্টু আর তিনি পেছনে। ব্যাংক থেকে ২০-৩০ গজ দূরে গলির মধ্যে বিবির গার্মেন্টসের সামনে তিনজন ছিনতাইকারী তাকে (সেলিম) ঝাপটে ধরে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। তিনি বাধা দিলে এক ছিনতাইকারী তার ঊরুতে গুলি করে টাকার ব্যাগ নিয়ে নেয়। তিনি চিৎকার শুরু করলে ছিনতাইকারীরা পিন্টুকে ধাওয়া করে গুলি করতে উদ্যত হয়। এ সময় পিন্টু টাকার ব্যাগ রেখে দৌড় দেয়। ছিনতাইকারীরা টাকার দুটি ব্যাগ নিয়ে অস্ত্র উঁচিয়ে দৌড় দেয় এবং আগে থেকে রাখা মোটরসাইকেলে পালিয়ে যায়। পরে অফিসের লোকজন তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেলিমের বাবার নাম মঞ্জুরুল আলম। মোহাম্মদপুর থানার জাকির হোসেন রোডে তার বাসা।
ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আনোয়ার হোসেন জানান, তিনি মোটরসাইকেল নিয়ে বাসা থেকে বের হচ্ছিলেন। এ সময় দুই যুবককে অস্ত্র হাতে অপর দুই যুবককে ধাওয়া করতে দেখেন। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই দুটি ব্যাগ নিয়ে অস্ত্র উঁচিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায় অস্ত্রধারীরা। এ সময় তারা দুই রাউন্ড গুলি করে। ছিনতাইকারী যুবকদের দুজনের পরনে টি-শার্ট ও জিন্স প্যান্ট ছিল। তাদের বয়স ২৫ থেকে ৩০-এর মধ্যে। পিস্তল হাতে থাকা এক যুবকের পায়ে কেডস অপর জনের পায়ে স্যান্ডেল ছিল।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টং দোকানের মালিক জানান, প্রায় প্রতিদিনই ব্যাংকে জান সেলিম ও পিন্টু। ব্র্যাক ব্যাংক থেকে তাদের অফিস ২শ গজের মধ্যেই। ছিনতাইকারীরা আগে থেকেই তাদের অনুসরণ করছিল।
এ বিষয়ে ব্র্যাক ব্যাংকের জনসংযোগ বিভাগে যোগাযোগ করা হলে কর্মকর্তা আবদুর রহিম জানান, অ্যাকোয়া মেরিন ড্রিস্টিবিউশন তাদের কর্পোরেট গ্রাহক। সেলিম গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ব্যাংকে এসে ঘটনা জানায়। ব্যাংক থেকে তাকে পাশের হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে অ্যাকোয়া মেরিন ড্রিস্টিবিউশনের লোকজন তাকে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যান। ঘটনাটি সম্পূর্ণভাবে ব্যাংকের বাইরে ছিল বলে জানান তিনি।
রমনা থানার ওসি মশিউর রহমান জানান, ঘটনাটি ঘটেছে ব্র্যাক ব্যাংক মগবাজার শাখার কাছে গলির ভেতর। ঘটনাস্থলে প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ণনা শুনে ছিনতাইকারীদের শনাক্ত ও লুণ্ঠিত টাকা উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। আশপাশে কোনো সিসি ফুটেজ আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এরকম কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি। আহত হিসাবরক্ষক সেলিম কিছুটা সুস্থ হলে মামলা করবেন।
শেষ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close