¦

এইমাত্র পাওয়া

  • হালনাগাদ ভোটার তালিকার খসড়া প্রকাশ; নতুন ভোটার ৪৩ লাখ ৬৮ হাজার ৪৭ জন
নির্বাচন নিয়ে আস্থার সংকট বাড়বে

বিবিসি বাংলা | প্রকাশ : ০২ জানুয়ারি ২০১৬

বাংলাদেশে নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের অনেকে বলেছেন, পৌর নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ায় নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে আস্থার সংকট আরও বাড়বে। বুধবার দেশের ২৩৩টি পৌরসভার নির্বাচনে গোলযোগ এবং ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। এ নির্বাচন নিয়ে শুক্রবার বিবিসি বাংলার প্রবাহ টেলিভিশন অনুষ্ঠানে আলোচকরা বলেছেন, নির্বাচন ব্যবস্থা যখন বিশ্বাসযোগ্যতা হারায়, তখন এর দায় বর্তায় সরকার ও নির্বাচন কমিশনের ওপর।
নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের অনেকে বলেছেন, ক্ষমতাসীনদের নানা অনিয়ম এবং গোলযোগের কারণে নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।
ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপ নামে একটি পর্যবেক্ষক সংস্থার প্রধান আবদুল আলীম অবশ্য বলেন, বর্তমান সরকারের সময় ঢাকায় যে দুটি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হয়েছে, তার চেয়ে পৌর নির্বাচন ভালো হয়েছে।
তিনি বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন এ পর্যন্ত চারটি নির্বাচন করেছে। তবে গত সিটি নির্বাচনে যে পরিমাণ সহিংসতা, জালিয়াতি ও ব্যালট বাক্স ছিনতাই হয়েছিল তার সঙ্গে তুলনা করলে এ নির্বাচন অনেকটা ভালো ছিল।
কিন্তু এর সঙ্গে একমত নন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক নাসিম আখতার হুসাইন। তার কথা, কারচুপি-অনিয়মের কারণে ভোটাররা প্রতারিত হয়েছেন।
তিনি বলেন, এ নির্বাচন দিয়ে গণতন্ত্র নিশ্চিত হবে না। অনেকের ভ্রান্ত ধারণা যে নির্বাচন নিয়মিত হচ্ছে, তার মানেই এখানে গণতন্ত্র আছে তা ঠিক নয়।”
তিনি বলেন, যেখানে ভোটাররা লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন কিন্তু ভোট কেন্দ্রের ভেতরে ভিন্ন দৃশ্য, আগে থেকেই ছাপ দেয়া ব্যালট পেপার দিয়ে বাক্স ভরা হয়- এটা কি ভোটারদের সঙ্গে প্রতারণা নয়?”
এবার পৌর নির্বাচনে প্রধান দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সাত বছর পর তাদের চিরাচরিত প্রতীক ‘নৌকা’ ও ‘ধানের শীষ’ নিয়ে ভোটযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়েছিল। ফলে এ নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের আগ্রহও বেশি ছিল।
পর্যবেক্ষক আবদুল আলীম বলেন, ভোটার টার্নআউট আগের চাইতে কিছু বেশি ছিল- যা ভোটারদের আগ্রহের ইঙ্গিত দেয়।
কিন্তু নানা অনিয়মের কারণে ভোটারদের মধ্যে হতাশা দেখা দিয়েছে এবং নির্বাচন নিয়ে আস্থার সংকট আরও বেড়েছে বলে মনে করছেন নাসিম আখতার হুসাইন।
আবদুল আলীমের মতে, আস্থা অর্জন করতে হলে নির্বাচন কমিশনকে উদ্যোগ নিতে হবে এবং সরকারকে তাতে সহযোগিতা করতে হবে। পৌর নির্বাচনে তাদের খুবই কমসংখ্যক প্রার্থী জয়ী হলেও প্রধান বিরোধী দল বিএনপি বলছে, সাংগঠনিক দিক থেকে তাদের রাজনৈতিক বিজয় হয়েছে।
শেষ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close