¦

এইমাত্র পাওয়া

  • রাজধানী থেকে কোকেনসহ আন্তর্জাতিক মাদক পাচারকারী চক্রের ৩ সদস্য আটক
আরও একটি নতুন সূর্য ওঠার অপেক্ষায়

| প্রকাশ : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫

দেখতে দেখতে চলে গেল আরও একটি খ্রিস্টীয় বর্ষ। আমরা আরেকটি নতুন বছরের একেবারে দ্বারপ্রান্তে। আগামীকাল নতুন বছরের সূর্য উঠবে। নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশেও চলে নানা জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজন! তবে এসব আয়োজনকে ঘিরে যেন অপ্রীতিকর কিছু না ঘটে সে বিষয়ে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। কিছু কুলাঙ্গার সবকিছুতেই অপ্রীতিকর কিছু করার অপপ্রয়াস চালায়। তাদের ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। যা হোক, বিদায় নিল আলোচনা-সমালোচনা আর সুখ-দুঃখে ভরা একটি বছর। চলে যাওয়া বছরে অনেকেই হারিয়েছেন তাদের প্রিয়জনকে, আবার অনেকের থলে ছিল প্রাপ্তিতে পূর্ণ। গাণিতিক রীতি অনুযায়ী ২০১৫ সালের শেষ, তাই শুরু হবে ২০১৬ সাল। অর্থাৎ বেজোড় সালের বিদায় আর জোড় সালের আগমন। অনেকের মতে বেজোড় সাল তাদের জন্য খুব খারাপ কাটে আর জোড় সাল ভালো যায়। অনেকের আবার বিপরীতটা। লোকমুখে প্রচলিত আছে, ‘যায় দিন ভালো, আসে দিন খারাপ’। আসলে এগুলো কেবলই কথার কথা। কর্মফল নির্ভর করে কাজের ওপর।
নতুন বছরের শুরু হচ্ছে শুক্রবার। নতুন সূর্য শুক্রবারেই হাসি দেবে। অনেক কর্মব্যস্ত মানুষ তাদের পরিবার-পরিজন নিয়ে নতুন বছরের প্রথম দিনটিতে সময় কাটানোর সুযোগ পাবে। ভালো-মন্দ যাই কাটুক, আজকাল বছরগুলো মনে হচ্ছে খুব দ্রুত চলে যাচ্ছে। আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশের মানুষ নতুন বছরকে ঘিরে নতুন করে স্বপ্ন বোনে। পেছনের হতাশা, ব্যর্থতা আর গ্লানি মুছে ফেলে সামনে এগিয়ে যেতে চায়। অতীতের ভুল শুধরে নতুন উদ্যমে পা ফেলতে চায়।
নতুন বছরে আমাদের মমত্ববোধ হোক আরও গভীর। আর যেন কোনো শিশু ও নারী নির্যাতন না হয় এই বাংলার মাটিতে। হিংসা-বিদ্বেষ, হানাহানি আর চাই না। ক্ষমতার দ্বন্দ্বে আর কোনো প্রাণ যেন না যায়। লুটেরা আর ঘুষখোররা শুধরে নিক নিজেদের ভুল। আইন প্রতিষ্ঠা পাক মানবতার কল্যাণে। জনপ্রতিনিধিদের আর প্রশাসনের বিবেক নড়ে উঠুক সাধারণের জন্য। সময়ের স্রোতে হারিয়ে যাচ্ছে অনেক প্রিয় মানুষ। আমরা যারা বর্তমান তারাও একদিন পেছনে ফেলে যাওয়া বছরের মতো হারিয়ে যাব অতীতের গর্ভে। তাই আসুন সবকিছু সুন্দরে সুন্দরে সাজিয়ে দিই নিজ গুণ আর অপার মহিমায়। সবাইকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা।
কাজী সুলতানুল আরেফিন
ছাগলনাইয়া, ফেনী
 

চিঠিপত্র পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close