jugantor
বুলবুল মেলা : সম্মানিত হলেন নৃত্যগুরু গোলাম মোস্তফা খান

  সাংস্কৃতিক রিপোর্টার  

০২ জানুয়ারি ২০১৪, ০০:০০:০০  | 

দেশের বিরাজমান অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যেও আনন্দঘন আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হল ‘বুলবুল চৌধুরী মেলা’ ও নৃত্যানুষ্ঠান। আর এই আয়োজনে এবারে বুলবুল পদক প্রদান করা হল বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী ও নৃত্যগুরু মোঃ গোলাম মোস্তফা খানকে।

উপমহাদেশের প্রখ্যাত নৃত্যাচার্য মরহুম বুলবুল চৌধুরীর ৯৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমি ও নৃত্যশিল্পী সংস্থার যৌথ উদ্যোগে গতকাল এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সন্ধ্যায় একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. রণজিৎ কুমার বিশ্বাস ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ইমদাদুল হক। একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন নৃত্যশিল্পী সংস্থার সভাপতি মিনু হক ও সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ড. গওহর রিজভী বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী ও নৃত্য পরিচালক মোঃ গোলাম মোস্তফা খানের হাতে বুলবুল পদক তুলে দেন। নৃত্যশিল্পীকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন ড. রণজিৎ কুমার বিশ্বাস।

আলোচনা শেষে মিনু হক, দীপা খন্দকার, মুনমুন আহমেদ, কবিরুল ইসলাম রতন, তাবাসসুম আহমেদ, সেলিনা হক, ফাতেমা কাশেম, ফারহানা চৌধুরী বেবীসহ ১৮টি নৃত্য দলের ১৮ জন নৃত্য পরিচালকের পরিচালনায় মনোজ্ঞ নৃত্যানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এথিকস ডে উদযাপন : আদর্শ শিক্ষককে সম্মাননা প্রদান, আলোচনা, আবৃত্তি ও সংগীতানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এথিকস ক্লাব বাংলাদেশ উদযাপন করল এথিকস ডে তথা নৈতিকতা দিবস। বুধবার বিকালে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিচারপতি হাবিবুর রহমান। অতিথি ছিলেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, দুদক চেয়ারম্যান মোঃ বদিউজ্জামান, সাংস্কৃতিক সচিব রণজিৎ কুমার বিশ্বাস, জাতিসংঘের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. আবুল মোমেন, টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান, ডা. জিয়াউদ্দিন আহমেদ। সভাপতিত্ব করেন এথিকস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা এমই চৌধুরী। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিচারপতি হাবিবুর রহমান বলেন, নৈতিকতা লংঘন করলে শাস্তি পাচ্ছেন কিনা, এটাই আগে দেখতে হবে। তা না হলে কিছুই হবে না। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিচারপতি হাবিবুর রহমান অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের হাতে আদর্শ শিক্ষক সম্মাননা পত্র ও ৩০ হাজার টাকার চেক তুলে দেন। সব শেষে ছিল আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।


 

সাবমিট

বুলবুল মেলা : সম্মানিত হলেন নৃত্যগুরু গোলাম মোস্তফা খান

 সাংস্কৃতিক রিপোর্টার 
০২ জানুয়ারি ২০১৪, ১২:০০ এএম  | 

দেশের বিরাজমান অস্বস্তিকর পরিবেশের মধ্যেও আনন্দঘন আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হল ‘বুলবুল চৌধুরী মেলা’ ও নৃত্যানুষ্ঠান। আর এই আয়োজনে এবারে বুলবুল পদক প্রদান করা হল বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী ও নৃত্যগুরু মোঃ গোলাম মোস্তফা খানকে।

উপমহাদেশের প্রখ্যাত নৃত্যাচার্য মরহুম বুলবুল চৌধুরীর ৯৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমি ও নৃত্যশিল্পী সংস্থার যৌথ উদ্যোগে গতকাল এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সন্ধ্যায় একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক সম্পর্কবিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. রণজিৎ কুমার বিশ্বাস ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ইমদাদুল হক। একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন নৃত্যশিল্পী সংস্থার সভাপতি মিনু হক ও সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ড. গওহর রিজভী বিশিষ্ট নৃত্যশিল্পী ও নৃত্য পরিচালক মোঃ গোলাম মোস্তফা খানের হাতে বুলবুল পদক তুলে দেন। নৃত্যশিল্পীকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন ড. রণজিৎ কুমার বিশ্বাস।

আলোচনা শেষে মিনু হক, দীপা খন্দকার, মুনমুন আহমেদ, কবিরুল ইসলাম রতন, তাবাসসুম আহমেদ, সেলিনা হক, ফাতেমা কাশেম, ফারহানা চৌধুরী বেবীসহ ১৮টি নৃত্য দলের ১৮ জন নৃত্য পরিচালকের পরিচালনায় মনোজ্ঞ নৃত্যানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

এথিকস ডে উদযাপন : আদর্শ শিক্ষককে সম্মাননা প্রদান, আলোচনা, আবৃত্তি ও সংগীতানুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এথিকস ক্লাব বাংলাদেশ উদযাপন করল এথিকস ডে তথা নৈতিকতা দিবস। বুধবার বিকালে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিচারপতি হাবিবুর রহমান। অতিথি ছিলেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান, দুদক চেয়ারম্যান মোঃ বদিউজ্জামান, সাংস্কৃতিক সচিব রণজিৎ কুমার বিশ্বাস, জাতিসংঘের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. আবুল মোমেন, টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ইফতেখারুজ্জামান, ডা. জিয়াউদ্দিন আহমেদ। সভাপতিত্ব করেন এথিকস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা এমই চৌধুরী। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিচারপতি হাবিবুর রহমান বলেন, নৈতিকতা লংঘন করলে শাস্তি পাচ্ছেন কিনা, এটাই আগে দেখতে হবে। তা না হলে কিছুই হবে না। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিচারপতি হাবিবুর রহমান অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের হাতে আদর্শ শিক্ষক সম্মাননা পত্র ও ৩০ হাজার টাকার চেক তুলে দেন। সব শেষে ছিল আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।


 

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র