¦
নারীর জন্য বাজেটে বরাদ্দ বাড়াতে হবে

যুগান্তর রিপোর্ট | প্রকাশ : ০১ এপ্রিল ২০১৫

নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে কার্যকর বাজেটারি পদক্ষেপ জরুরি বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের নেতারা। নেতারা বলেছেন, কেবল ভিজিডি, ভিজিএফ কিংবা ক্ষুদ্র ঋণের মতো কর্মসূচির মধ্যে নারী উন্নয়ন প্রকল্প সীমাবদ্ধ রাখা নারীর সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করে না। মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাব ভিআইপি লাউঞ্জে জাতীয় বাজেট ২০১৫-১৬ : নারী সমাজের প্রত্যাশা শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন।
সংঘের নির্বাহী পরিচালক রোকেয়া কবীরের সভাপতিত্বে সেমিনারে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন ডিআইডিএসের সাবেক সিনিয়র রিসার্চ ফেলো ড. প্রতিমা পাল মজুমদার। সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক ডেপুটি স্পিকার ও সংসদ সদস্য শওকত আলী। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাবির অধ্যাপক ড. সায়মা হক বিদিশা, উইএনওমেনের উইমেনস ইকোনমিক এমপাওয়ারমেন্টের প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর তপতি সাহা, সিডও কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান সালমা খান, প্রফেসর নাজমা সিদ্দিকী, নারী মৈত্রীর নির্বাহী পরিচালক শাহিন আক্তার ডলি। সাবেক ডেপুটি স্পিকার শওকত আলী বলেন, জাতীয় বাজেটে নারীর জন্য পৃথক বরাদ্দ এবং প্রকল্প গ্রহণ করতে হবে। ড. প্রতিমা পাল মজুমদার মূল প্রবন্ধে বলেন, এখনও প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে নারী ও পুরুষের মধ্যে ব্যাপক ফারাক রয়েছে, যা অপসারণ করা সম্ভব। তথ্য ও প্রযুক্তি খাতে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে নারীর শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের জন্য বাজেটে বিশেষ বরাদ্দ বাড়াতে হবে। রোকেয়া কবীর বলেন, শুধু বাজেট বরাদ্দ করলেই হবে না, আগামী বাজেটে পরীক্ষামূলকভাবে অন্তত তিনটি মন্ত্রণালয়ে জেন্ডার বাজেট মনিটরিংয়ের উদ্যোগ নেয়ার দাবি জানান তিনি।
খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close