¦
বর্ষবরণ ও বিদায় পাহাড়ে সম্প্রীতির মিলনমেলা

সুশীল প্রসাদ চাকমা, রাঙ্গামাটি থেকে | প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০১৫

বৈচিত্র্য সংস্কৃতির ঐকতানে নাচনের রং ছড়িয়ে উৎসবের ঝড় বইয়ে গেল পার্বত্যাঞ্চলে। নতুন করে বাঁধল বাঙালি-পাহাড়ির সম্প্রীতির মিলনসেতু। আবহমান বাংলার চিরাচরিত ঐতিহ্য চৈত্রসংক্রান্তিতে বাঙালি-পাহাড়ির এ প্রাণের উৎসব গোটা পার্বত্য চট্টগ্রামে এনেছে উচ্ছ্বাসের ছোঁয়া। উৎসবের রূপ ও রঙে নতুন করে সাজে পাহাড়ি জনপদ। নববর্ষ বরণ ও বৈশাখী এবং পাহাড়িদের সবচেয়ে বড় সামাজিক উৎসব বিজু, সাংগ্রাই, বৈসু পার্বত্যবাসীকে করেছে একাট্টা। ভেদাভেদ ভুল সৃষ্টি করে সম্প্রীতি আর মহামিলনের ঐকতান।
প্রতিবছর চৈত্রসংক্রান্তিতে বর্ষ বিদায় ও বরণ উৎসবে একাকার হন পাহাড়ের সব জাতিগোষ্ঠী ও সম্প্রদায়ের মানুষ। এবারও রাঙ্গামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি জেলার পাহাড়ি জনপদে প্রাণছোঁয়া উচ্ছ্বাস আর বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে রোববার শুরু হওয়া চাকমাদের বিজু, মারমাদের সাংগ্রাই আর ত্রিপুরাদের বৈসু মঙ্গলবার শেষ হয়। উৎসবের রং ছড়ায় তিন পার্বত্য জেলাজুড়ে। বুধবার কাপ্তাই চিৎমরমে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী সাংগ্রাই জল উৎসবে হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে। সমবেত হন পাহাড়ি-বাঙালিসহ ধর্ম, বর্ণ, জাতিগোষ্ঠী নির্বিশেষে সব সম্প্রদায়ের নারী-পুরুষ। ঐতিহ্যবাহী চিৎমরম বৌদ্ধ মন্দিরের দক্ষিণ-পূর্ব মাঠে বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিত জলোৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা ওরফে সন্তু লারমা।
খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close