¦
বাগেরহাটে চাকরির প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণ : গ্রেফতার ২

বাগেরহাট প্রতিনিধি | প্রকাশ : ০৬ মে ২০১৫

বাগেরহাটে চাকরির প্রলোভনে এক কিশোরীকে তার কথিত প্রেমিক ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার দুপুরে মংলার আবহাওয়া অফিসের কাছে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মংলা থানায় মামলা করেছে। এ ঘটনায় দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সকালে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আদালত অভিযুক্ত ধর্ষক মংলার রামপালের ভরসাপুর এলাকার মো. শহিদ শেখের ছেলে মো. ফয়সাল (২১) ও তার সহযোগী একই উপজেলার তুলশিরাবাদ এলাকার আ. রহিমকে (২৪) জেলহাজতে পাঠিয়েছে।
মংলা থানার ওসি কাজী বেলায়েত হোসেন বলেন, তিন মাস আগে মোবাইল ফোনে রামপাল এলাকার ওই কিশোরীর সঙ্গে ফয়সালের পরিচয় হয়। কিশোরী তার নাম পরিচয় সঠিক বললেও সুচতুর ফয়সাল কিশোরীর কাছে ভিন্ন নাম-ঠিকানা প্রকাশ করে।
এরপর অনেকবার দুজনের সঙ্গে মোবাইলে কথা হলেও সরাসরি সাক্ষাৎ হয়নি। এরই মধ্যে ফয়সাল ওই কিশোরীকে মংলা ইপিজেডে চাকরি দেয়ারও প্রলোভন দেয়। সেই মোতাবেক কিশোরী সোমবার দুপুরে মংলায় ফয়সালের সঙ্গে দেখা করতে যায়। কিশোরীকে কৌশলে মংলার আবহাওয়া অফিসের কিছু দূরে একটি বাগানে নিয়ে জোর করে ধর্ষণ করে ফয়সাল। এ কাজে ফয়সালকে সহায়তা করে তারই বন্ধু আবদুর রহিম। এ সময় ওই এলাকায় মংলা থানার টিএসআই উত্তম চ্যাটার্জি টহল দেয়ার সময় ওই দুই যুবকের গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে মেয়েটির অভিযোগ মোতাবেক তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায়।
খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close