¦
কুমিল্লায় পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রী জেলহাজতে

কুমিল্লা ব্যুরো | প্রকাশ : ০৯ মে ২০১৫

কুমিল্লায় নির্যাতন চালিয়ে গৃহকর্মী রীনা আক্তার খুনের ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নিহত গৃহকর্মীর বাবা মোহাব আলী মামলাটি করেন। এতে একমাত্র আসামি ফেনীর ফুলগাজী থানার এসআই আবু জাহের মোল্লার স্ত্রী নাজনীন আক্তার লিপি। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গ থেকে লাশ গ্রহণ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলার হরিপুরে গ্রামের বাড়িতে নিয়ে যান নিহতের বাবা মোহাব ও ইউপি চেয়ারম্যান জামাল হোসেন।
বুধবার দুপুরে কুমিল্লা জেনারেল (সদর) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে গৃহকর্মী রীনা আক্তারের (১৭) লাশ রেখে পালিয়ে যান গৃহকর্ত্রী নাজনীন আক্তার লিপি। কিন্তু দিনভর লাশের পরিচয় পাওয়া না গেলেও গোপন সূত্রে খবর পেয়ে রাতে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ নগরীর জিলা স্কুল রোডের সমতট ল্যাগাসী নামে ১২তলা ভবনের তিন তলার বাসা থেকে গৃহকর্ত্রী লিপিকে আটক করে। কুমিল্লা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সালাউদ্দিন মাহমুদ সাংবাদিকদের জানান, নিহতের শরীরে নির্যাতন, আগুনের ছ্যাঁকার চিহ্ন ও হাতের নখ উপড়ানো ছিল। আটক গৃহকত্রী নাজনীন আক্তার লিপি সাংবাদিকদের জানান, রীনা আক্তারকে জিনে আছড়ে মেরেছে, তাকে তাবিজ দেয়া হয়েছিল।
খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close