¦
শরণখোলায় বাঘের কংকালসহ শীর্ষ পাচারকারী গ্রেফতার

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি | প্রকাশ : ১৩ মে ২০১৫

বাগেরহাটের শরণখোলায় বাঘের কংকালসহ ছগির ঘরামী (৩৮) নামের এক শীর্ষ পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছেন বনবিভাগের কর্মকর্তারা। মঙ্গলবার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের বনসংলগ্ন সোনাতলা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে ছগিরকে আটক করা হয়। এ সময় একটি বাঘের মাথার খুলিসহ ১৫৭ টুকরা হাঁড়, বিভিন্ন অঙ্গের ২০ টুকরা মূল শিরা ও নাইলনের দড়ি দিয়ে তৈরি ২০টি হরিণ শিকারের ফাঁদ জব্দ করা হয়েছে। ছগিরের বিরুদ্ধে বাঘ, হরিণ হত্যা ও পাচারের অভিযোগে অন্তত ৬টি মামলা রয়েছে।
পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বনসংরক্ষক (এসিএফ) মো. কামাল আহম্মেদ জানান, গোপন সংবাদে তারা জানতে পারেন, ইউসুফ ঘরামীর ছেলে চিহ্নিত বন্যপ্রাণী শিকারি ছগির ঘরামী তার বাড়িতে একটি বাঘের কংকাল পাচারের উদ্দেশ্যে মজুদ রেখেছেন। এসিএফের নেতৃত্বে বনরক্ষীদের নিয়ে ওই বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় তার বাড়ি তল্লাশি করে বিভিন্ন স্থানে বস্তাবন্দি অবস্থায় বাঘের হাঁড়গোড়সহ বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ পাওয়া যায়। পরে ছগিরকে আটক করে তার বিরুদ্ধে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে মামলা করা হয়েছে। ইউসুফ ঘরামী ও তার ৫ ছেলে সবাই সুন্দরবনের বন্যপ্রাণী শিকার ও পাচারের সঙ্গে জড়িত বলে তিনি জানিয়েছেন।
এসিএফ আরও জানান, ছগিরের বিরুদ্ধে সুন্দরবনের বাঘ-হরিণসহ বন্যপ্রাণী হত্যা ও পাচারের অভিযোগে আরও ৬টি মামলা রয়েছে। মামলার বাদী ফরেস্ট রেঞ্জার খান মো. হাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় ছগিরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।
খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close