jugantor
বেগম রোকেয়া নারী সমাজকে আলোর পথ দেখিয়েছেন
অ্যাড. সালমা ইসলাম এমপি

  স্টাফ রিপোর্টার, নবাবগঞ্জ  

১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ০০:০০:০০  | 

নবাবগঞ্জের এক রত্নগর্ভা মাকে জয়িতা পুরস্কার দিচ্ছেন সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি	-যুগান্তর

বেগম রোকেয়া ছিলেন নারী সমাজের দর্পণ। তিনিই নারী সমাজকে আলোর পথ দেখিয়েছেন। তাকে অনুসরণ করেই নারীদের আগামী দিনের পথ চলতে হবে। বুধবার সকাল ১১টায় ঢাকার নবাবগঞ্জে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে উপজেলা সভাকক্ষে আলোচনা সভায় সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী (ঢাকা-১) আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এ কথা বলেন।

নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিবুল আহসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি সালমা ইসলাম বলেন, সমাজের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে নারীকে সব ভয়ভীতি ও প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করে এগিয়ে যেতে হবে। সাবেক প্রতিমন্ত্রী বেগম রোকেয়াকে আধুনিক সমাজের আলোকবর্তিকা আখ্যায়িত করে বলেন, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধশালী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় নারীকে সমাজের প্রেরণা হিসেবে প্রমাণ করেছেন তিনি।

সালমা ইসলাম আরও বলেন, নারী নেতৃত্বের অহংকার বেগম রোকেয়ার আদর্শ বাস্তবায়নে ঘরের বাইরে নারীকে আরও সাহসী ও দৃঢ় চেতনার হতে হবে। তিনি রাষ্ট্র ও সমাজের সর্বত্র নারীর কৃতিত্ব এবং অবদানকে স্বীকৃতির আহ্বান জানান।

অতিরিক্তি সচিব আশীষ কুমার সরকার বলেন, নারী মায়ের জাতি। তাই মা যেমন সংসার ও ছেলে-মেয়ের দেখভাল করেন তেমনি চাকরি ও ব্যবসায় সময় দিয়ে আর্থিক উন্নয়নে সহযোগিতা করছেন। অনুষ্ঠানের সভাপতি রাজিবুল আহসান অ্যাডভোকেট সালমা ইসলামকে নবাবগঞ্জের বেগম রোকেয়া আখ্যায়িত করে বলেন, তিনিও একজন নারী। বহুগুণের অধিকারী এ মহিয়সী শুধু জনপ্রতিনিধিই নন। তিনি একজন লেখক, সাংবাদিক, গায়ক, ব্যবসায়ী ও সংসার জীবনে সফল মানুষ। এ সময় প্রধান অতিথি নবাবগঞ্জে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ৫ জন জয়িতার হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত সচিব আশীষ কুমার সরকার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবদুল কাদির মিয়া, অধ্যক্ষ মানবেন্দ্র দত্ত, মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন, বীমা কর্মকর্তা আক্তার হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদ আল মামুন, জাতীয় পার্টি নেতা জুয়েল আহমেদ, জাহাঙ্গীর চোকদার, এমএ মজিদ, একেএম আবদুল হালিম, নারী নেত্রী খোরশেদা মহিউদ্দিন, মাধুরী বণিক, আসমা আক্তার রুমি, শিল্পী ইসলামসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ।


 

সাবমিট

বেগম রোকেয়া নারী সমাজকে আলোর পথ দেখিয়েছেন

অ্যাড. সালমা ইসলাম এমপি
 স্টাফ রিপোর্টার, নবাবগঞ্জ 
১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ১২:০০ এএম  | 
নবাবগঞ্জের এক রত্নগর্ভা মাকে জয়িতা পুরস্কার দিচ্ছেন সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি	-যুগান্তর
নবাবগঞ্জের এক রত্নগর্ভা মাকে জয়িতা পুরস্কার দিচ্ছেন সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এমপি -যুগান্তর

বেগম রোকেয়া ছিলেন নারী সমাজের দর্পণ। তিনিই নারী সমাজকে আলোর পথ দেখিয়েছেন। তাকে অনুসরণ করেই নারীদের আগামী দিনের পথ চলতে হবে। বুধবার সকাল ১১টায় ঢাকার নবাবগঞ্জে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে উপজেলা সভাকক্ষে আলোচনা সভায় সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী (ঢাকা-১) আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সালমা ইসলাম এ কথা বলেন।

নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিবুল আহসানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি সালমা ইসলাম বলেন, সমাজের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে নারীকে সব ভয়ভীতি ও প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করে এগিয়ে যেতে হবে। সাবেক প্রতিমন্ত্রী বেগম রোকেয়াকে আধুনিক সমাজের আলোকবর্তিকা আখ্যায়িত করে বলেন, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধশালী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় নারীকে সমাজের প্রেরণা হিসেবে প্রমাণ করেছেন তিনি।

সালমা ইসলাম আরও বলেন, নারী নেতৃত্বের অহংকার বেগম রোকেয়ার আদর্শ বাস্তবায়নে ঘরের বাইরে নারীকে আরও সাহসী ও দৃঢ় চেতনার হতে হবে। তিনি রাষ্ট্র ও সমাজের সর্বত্র নারীর কৃতিত্ব এবং অবদানকে স্বীকৃতির আহ্বান জানান।

অতিরিক্তি সচিব আশীষ কুমার সরকার বলেন, নারী মায়ের জাতি। তাই মা যেমন সংসার ও ছেলে-মেয়ের দেখভাল করেন তেমনি চাকরি ও ব্যবসায় সময় দিয়ে আর্থিক উন্নয়নে সহযোগিতা করছেন। অনুষ্ঠানের সভাপতি রাজিবুল আহসান অ্যাডভোকেট সালমা ইসলামকে নবাবগঞ্জের বেগম রোকেয়া আখ্যায়িত করে বলেন, তিনিও একজন নারী। বহুগুণের অধিকারী এ মহিয়সী শুধু জনপ্রতিনিধিই নন। তিনি একজন লেখক, সাংবাদিক, গায়ক, ব্যবসায়ী ও সংসার জীবনে সফল মানুষ। এ সময় প্রধান অতিথি নবাবগঞ্জে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ৫ জন জয়িতার হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত সচিব আশীষ কুমার সরকার, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবদুল কাদির মিয়া, অধ্যক্ষ মানবেন্দ্র দত্ত, মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন, বীমা কর্মকর্তা আক্তার হোসেন, ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদ আল মামুন, জাতীয় পার্টি নেতা জুয়েল আহমেদ, জাহাঙ্গীর চোকদার, এমএ মজিদ, একেএম আবদুল হালিম, নারী নেত্রী খোরশেদা মহিউদ্দিন, মাধুরী বণিক, আসমা আক্তার রুমি, শিল্পী ইসলামসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ।


 

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র