¦
যত্নে থাকুক প্রিয় বই

সাইফ বিন আইয়ুব | প্রকাশ : ০৩ মার্চ ২০১৫

বই অবশ্যই প্রিয় জিনিস। যারা বই পড়তে ভালোবাসেন তারা অবশ্যই বই যত্নে রাখেন বা রাখার চেষ্টা করেন। কিন্তু অনেক যত্নআত্তিতে রাখার পরও কিছু ভুল সিদ্ধান্তের কারণে সংগ্রহের বই মাঝে মধ্যেই নষ্ট হয়ে যায়। পোকামাকড়ের আক্রমণ তো আছেই, তার সঙ্গে যোগ হয় নানা রকম সোঁদা গন্ধ। এজন্য বই সাজাতে অনেক খুঁটিনাটি বিষয়ের দিকেও নজর রাখতে হয়।
বইয়ের জন্য প্রথমেই দরকার একটি ভালো শেলফ। আপনার সংগৃহীত বইয়ের পরিমাণ ও আগামীতে কেমন বই কিনতে পারেন তার একটি আনুমানিক সংখ্যা ধরে নিয়ে তবেই বুকশেলফের আকার-আয়তন নির্ধারণ করুন। বুকশেলফের সব তাক প্রমাণ বইয়ের সাইজের হওয়ার কোনো দরকার নেই। মাঝে মধ্যে অস্বাভাবিক লম্বা সাইজের বইও সংগ্রহে চলে আসে। তাই অন্তত একটা তাক একটু বড় বা লম্বা রাখার চেষ্টা করুন। বুকশেলফের সামনে কাচের দরজা দিতে পারেন। এতে বইয়ে ধুলোবালি কম পড়বে।
বুকশেলফ কখনোই জানালা কিংবা বারান্দার দরজার পাশে রাখা উচিত নয়। কারণ একটু জোরে ঝড়-বৃষ্টি হলেই পানির ছিটায় বুকশেলফ ভিজে যেতে পারে। আবার বুকশেলফ না ভিজলেও বৃষ্টির দিনে অথবা শীতকালে ঠাণ্ডা বাতাস তো ঢুকবেই। এ ঠাণ্ডা আবহাওয়া বইয়ের জন্য খুবই ক্ষতিকর। ঠাণ্ডায় বইয়ে কেমন যেন একটা সোঁদা গন্ধ চলে আসে।
দিনের আলো বা রোদ লাগে বুকশেলফের জন্য এমন একটা জায়গা বেছে নিন। রোদের ছোঁয়া পেলে বইয়ে পোকামাকড়ের আক্রমণ কম হবে। বুকশেলফের ভেতর পোকা বা তেলাপোকার উপদ্রব ঠেকাতে বইয়ের পেছনে এবং ফাঁকে ফাঁকে কালো জিরা ও শুকনো নিমপাতা দিয়ে রাখতে পারেন। নিমপাতা শুকিয়ে গুঁড়া করে ছোট পুঁটলি বেঁধে শেলফের কোণায় রেখে দিতে পারেন। কিছুদিন পর পরই নিমপাতার পুঁটলি পাল্টে দিন। এছাড়া ন্যাপথলিনের গোটাও পোকামাকড় তাড়াতে দারুণভাবে কার্যকর।
বই সংগ্রহে রাখতে হলে কিছু দিন পর পর অবশ্যই বই রোদে দিতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। বই রোদে শুকাতে দেয়ার ফল হাতেনাতে টের পাওয়া যাবে। পোকামাকড় তো কমবেই, সঙ্গে অনেকদিন ধরে জমে থাকা বইয়ের দুর্গন্ধও দূর হবে। দুর্গন্ধ দূর করতে চাইলে ছোট ছোট সিলিকা জেলের প্যাকেট বুকশেলফের কোণায় এবং বইয়ের ওপরে-পেছনে দিয়ে রাখতে পারেন। এছাড়া কিছুদিন পরপরই বই শেলফ থেকে বের করে ভালো সুতি কাপড় দিয়ে মুছে দিন। বই থাকবে নতুনের মতো পরিষ্কার।
অনেকদিন বইয়ের যত্ন নেয়া না হলে পোকামাকড়ের আক্রমণ বেড়ে যায়। তখন ‘ডাইক্লোরো ডাইফিনাইল’ জাতীয় এক ধরনের রাসায়নিক পাউডার ব্যবহার করতে পারেন। তবে খুবই বিষাক্ত এ রাসায়নিক বস্তুটি অত্যন্ত সাবধানে ব্যবহার করতে হবে। বুকশেলফে ব্যবহার করলে অল্প কিছুদিন পরই আবার শেলফ ঝেড়ে-মুছে একেবারে পরিষ্কার করে ফেলুন।
 

ঘরে বাইরে পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close