¦
টঙ্গীবাড়ীতে বিয়ের অনুষ্ঠানের আগেই লাপাত্তা বর ও তার মা

টঙ্গীবাড়ী (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি | প্রকাশ : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

টঙ্গীবাড়ী উপজেলার যোগানিয়া গ্রামে প্রতারণামূলকভাবে শুক্রবার বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে পালিয়েছে বর ও তার মা। এতে এক দরিদ্র পিতাকে সর্বস্বান্ত করা হয়েছে। বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে নিজের শেষ সম্বল ভিটে বাড়ির ২ শতাংশ জমি ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা বিক্রি করে এ আয়োজন করলেও বর এবং বরযাত্রী না আসায় মেয়েকে নিয়ে চরম বিপাকে পড়েছে কন্যা দায়গ্রস্ত পিতা। এ ঘটনায় কনের আত্মীয়স্বজন ও এলাকাবাসীর মাঝে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। জানা গেছে, গত বছরের ১৩ অক্টোবর উপজেলার যোগানিয়া গ্রামের আলিম হাওলাদারের মেয়ে নাজমা আক্তারের সঙ্গে প্রতিবেশী কাশেম দেওয়ানের ছেলে হাতেম দেওয়ানের ৪ লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ে রেজেস্ট্রি হয়। বিয়ের পরে কনের পিতার কাছে ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে বরের মা হাসি বেগম। পরে মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে কনের পিতা ওই ২ লাখ টাকা যৌতুক দিতে নিজের শেষ সম্বল তার বসত বাড়িটি বিক্রি করে দেয়। এরপর ২ ফেব্রুয়ারি যোগানিয়া গ্রামের আলমগীরের মাধ্যমে সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে ছেলের মা হাসি বেগম শুক্রবার বিয়ের দিন তারিখ নির্ধারণ করে। নির্ধারিত তারিখে মেয়ের বাবা প্রায় ৪শ জন লোকের আয়োজন করলে গ্রামবাসী ও মেয়ের আত্মীয় স্বজন সবাই আসলেও বিয়ের অনুষ্ঠানে বরযাত্রী না এসে ছেলের মা হাসি বেগম ও তার পরিবার বিয়ের একদিন আগে বাড়ি থেকে আত্মগোপন করে। শুক্রবার দফায় দফার বরের মা এবং বরপক্ষের আত্মীয়স্বজন এর মোবাইলে বার বার তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি। পরে বিয়ের মধ্যস্থতাকারী আলমগীরের মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে সে সাংবাদিকদের জানান, বরের মা হাসি বেগম একজন দুষ্ট প্রকৃতির মহিলা সে নিজেই বিয়ের দিন তারিখ ধায্য করে এখন আত্মগোপন করে আছে।
দ্বিতীয় সংস্করণ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close