¦
জনগণ শিগগিরই নৌমন্ত্রীর হুমকির জবাব দেবে

যুগান্তর রিপোর্ট | প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে খাবার প্রবেশে পুলিশি বাধা এবং নৌপরিবহনমন্ত্রীর নেতৃত্বে কার্যালয় ঘেরাওয়ের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মির্জা আব্বাস ও সদস্যসচিব হাবিব-উন-নবী খান সোহেল। সোমবার আব্বাসের প্রেসসচিব জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে তারা বলেন, গণআন্দোলনে হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে দখলদার সরকার খালেদা জিয়াকে টার্গেট করেছে। সরকারের উপরের মহলের নির্দেশে নৌমন্ত্রীর এ কর্মসূচি চরম উসকানিমূলক। খালেদা জিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যে কার্যালয় ঘেরাওয়ের চেষ্টা হয়েছে। শাজাহান খান ঘেরাও কর্মসূচির নামে খালেদা জিয়াকে বন্দি করার হুমকি দিয়ে চরম দুঃসাহস দেখিয়েছেন। শিগগিরই গণতন্ত্রকামী জনগণ আন্দোলনের মাধ্যমে তার এ হুমকির সমুচিত জবাব দেবে। আব্বাস ও সোহেল বলেন, সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রের অপব্যবহারের মাধ্যমে গুলশান কার্যালয়ের বিদ্যুৎ সংযোগ, টেলিফোন লাইন, ডিশ লাইন কেটে দিয়ে খালেদা জিয়াকে নেতাকর্মী থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখার অপচেষ্টা চালিয়েছে। এখন কার্যালয়ে খাবার প্রবেশেও বাধা দেয়া হচ্ছে। জনগণের ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে গেলে পুলিশি প্রটোকল, অস্ত্র, গুলি কোনো কিছুই কাজে আসবে না বলে সরকারকে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন মহানগর নেতারা।
স্বেচ্ছাসেবক দলের নিন্দা : খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে নৌপরিবহনমন্ত্রীসহ সরকারের একাধিক মন্ত্রীর হুংকার, অশালীন বক্তব্য ও রোববার সংসদে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল। সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, সাধারণ সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু ও সাংগঠনিক সম্পাদক শফিউল বারী বাবু সোমবার এক বিবৃতিতে এ নিন্দা জানান।
দ্বিতীয় সংস্করণ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close