¦
১২ দুদক কর্মকর্তার তথ্য-উপাত্ত চেয়ে মন্ত্রণালয়ে চিঠি

যুগান্তর রিপোর্ট | প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

মুক্তিযোদ্ধা পোষ্য কোটায় চাকরি নেয়া দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) ১২ কর্মকর্তার তথ্য-উপাত্ত চেয়ে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়কে আবারও চিঠি দিয়েছে দুদক। বুধবার দুদকের উপপরিচালক জুলফিকার আলী এ চিঠি পাঠান। আগামী ৩ মার্চের মধ্যে তথ্য সরবরাহ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। এর আগে ১১ ফেব্র“য়ারি একই ধরনের চিঠি দেয়া হলেও মন্ত্রণালয় থেকে সাড়া আসেনি। এ পরিপ্রেক্ষিতে দ্বিতীয়বার চিঠি দেয়া হল।
দুদক সূত্র জানায়, মুক্তিযোদ্ধা পোষ্য কোটায় জালিয়াতির আশ্রয় নেয়া হয়েছে কিনা তা যাচাইয়ের লক্ষ্যে অনুসন্ধান চালাচ্ছে দুদক। মুক্তিযোদ্ধা পোষ্য কোটায় চাকরি নেয়া ১২ কর্মকর্তাকে পোষ্য হিসেবে শনাক্তকরণে সরকার নির্ধারিত পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়েছে কিনা সে বিষয়ে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ হিসেবে দুদকের রেকর্ডপত্র ইতিমধ্যেই সংগ্রহ করা হয়েছে। তবে কর্মকর্তাদের বাবা-মা কিংবা পরিবার সদস্যরা প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা কিনা সেটি নিশ্চিত হতে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের রেকর্ডপত্র চাওয়া হয়। যে কোনো সরকারি, স্বায়ত্তশাসিত, আধা-স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান এবং কর্পোরেশনে নিয়োগের ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা পোষ্য কোটায় পদ সংরক্ষিত রয়েছে। গত কয়েক বছরে দুদক ৭২ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ দিয়েছে দুদক। এর মধ্যে ১২ জন নিয়োগ পেয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা পোষ্য কোটায়। নিয়োগপ্রাপ্তরা কেউ পিতা, কেউ বা পিতামহ (দাদা), এমনকি নানাও মুক্তিযুদ্ধ করেছেন মর্মে সত্যায়িত রেকর্ডপত্র দাখিল করেন। দাখিলকৃত রেকর্ডে মুক্তিযোদ্ধা সনদের জাল কাগজপত্র ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। এদের মধ্যে রয়েছেন দুদকের সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান, ফারুক আহমেদ, আতিকুল আলম, জুয়েল আহমেদ, মঈনুল হাসান, এহসানুল কামরান তানভীর, আতিকুর রহমান, শাওন মিয়া, নাজমুল আহসান, উপসহকারী পরিচালক মাহফুজ ইকবাল, নিয়ামুল আহসান গাজী এবং সাইদুজ্জামান। তারা দুদকের প্রধান কার্যালয়, সমন্বিত জেলা কার্যালয় এবং বিভাগীয় কার্যালয়ের বিভিন্ন শাখায় কর্মরত।
দ্বিতীয় সংস্করণ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close