¦
আইন মেনে মামলা মোকাবেলা করতে হবে খালেদা জিয়াকে

যুগান্তর রিপোর্ট | প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির বিষয়টি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আইনগতভাবেই মোকাবেলা করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। বুধবার ঢাকার সুইডেনের রাষ্ট্রদূত জোহান ফ্রিসেলের বৈঠক শেষে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন। গ্রেফতারি পরোয়ানার পেছনে রাজনৈতিক প্রতিহিংসা কাজ করছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রতিহিংসার রাজনীতিতে আমরা বিশ্বাস করি না। যেটা বিএনপি করেছে। বিএনপি আমাদের ওপর যে অত্যাচার করেছে, আমরা সেটা করিনি। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আইন ও বিচার বিভাগের বিষয়ে মন্তব্য না করাই উচিত। আইন সবার মেনে চলা উচিত। তার (খালেদা জিয়া) বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উত্থাপন করা হয়েছে সেটা আইনগতভাবেই তার মোকাবেলা করা উচিত।
তোফায়েল আহমেদ বলেন, খালেদা জিয়া অনেকদিন কোর্টে উপস্থিত হন নাই। আসলে উনি তো কোনো কিছুই কেয়ার করেন না। বিশ্ব ইজতেমা চলাকালীন হরতাল-অবরোধ ছিল। নিয়মিতভাবে ১৫ লাখ শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিতে পারছে না। তিনি হরতাল-অবরোধ দিয়ে রেখেছেন, এমনকি ২১ ফ্রেব্র“য়ারিতেও অবরোধ অব্যাহত রেখেছেন। বিএনপির চলমান কর্মসূচিকে সন্ত্রাসী, নাশকতামূলক কার্যক্রম ও জঙ্গি তৎপরতা আখ্যায়িত করে মন্ত্রী বলেন, রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড হলে আলোচনায় বসা যায়, অতীতেও বসেছি। কিন্তু এগুলো তো রাজনীতি না। রাজনীতির নামে সন্ত্রাসী, নাশকতামূলক কার্যক্রম ও জঙ্গি তৎপরতা চলছে। দিন আনে দিন খায় এমন শ্রমিকদের হত্যা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, দেশের মানুষ ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এসবের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। ইউরোপীয় পার্লামেন্টে বাংলাদেশের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা প্রসঙ্গে সরকারের ভূমিকা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা তো ভালো। কারণ এর আগে তারা বাংলাদেশে এসেছিলেন। বিএনপির কর্মকাণ্ড দেখে তারা বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। সাবেক ছাত্রলীগ ও ডাকসু নেতা মাহমুদুর রহমান মান্নার টেলিফোন আলাপ ও তাকে গ্রেফতার করা প্রসঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, মান্নার নাম নিয়ে কিছু বলতে আমি বিব্রতবোধ করি। তার সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ড ও টেলিফোনিক আলাপে সব জাতি বিস্মিত হয়েছে। দেশ ও জাতি তার কাছে এটা প্রত্যাশা করে না। যারা এত নীতি কথা বলেন টক শোতে গিয়ে, ভালো কথা বলেন, তারা বাস্তবে কী মাহমুদুর রহমান মান্না নিজে সেটা প্রকাশ করে দিয়েছেন।
দ্বিতীয় সংস্করণ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close