jugantor
ধুনটে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম তাবলিগি ইজতেমা শুরু

  বগুড়া ব্যুরো  

১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ০০:০০:০০  | 

প্রশাসনের গৃহীত কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে বগুড়া জেলা সদর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে ধুনটের সরুগ্রামে শুরু হয়েছে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিশ্ব তাবলিগি ইজতেমা। আজ ফজরের নামাজ আদায়ের পর উদ্বোধনী বয়ানের মধ্য দিয়ে তাবলিগ জামায়াতের তিন দিনের এই ইজতেমা শুরু হয়েছে। ঢাকার কাকরাইল মসজিদের ব্যবস্থাপনায় কালেরপাড়া ইউনিয়নের সরুগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে বিশাল ময়দানে ৩৮তম বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ইজতেমা প্রাঙ্গণে মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বুধবার থেকেই আইনশৃংখলা বাহিনীর ২৫১ জন সদস্য ও ২০০ জন স্বেচ্ছাসেবী নিয়োজিত রয়েছেন। প্রতি বছর ধুনটের এই ইজতেমায় দেশের প্রায় প্রতিটি জেলা ও উপজেলাসহ বিশ্বের অন্তত ১৫টি রাষ্ট্রের লাখো ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নেন। এ বছর দেশের প্রায় প্রতিটি জেলা ও উপজেলাসহ সৌদি আরব, ফিলিপাইন, চাদ, মরক্কো, লেবানন, জর্ডানসহ বেশ কয়েকটি দেশের মুসল্লিরা অংশ নিচ্ছেন। তিন দিনব্যাপী ইজতেমায় আল্লাহর ইবাদত বন্দেগি ও নবী-রাসূলের তরিকাসহ ধর্মীয় বিভিন্ন বিষয়ে দেশ ও বিদেশের ওলামায়ে কেরাম কোরআন ও হাদিসের আলোকে বয়ান পেশ করবেন। মুসল্লিদের জন্য ইজতেমা প্রাঙ্গণের পূর্বপাশে ১৪০টি ল্যাট্রিন, ৬৫টি টিউবওয়েল ও ৫টি পানির পাম্প স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া রাস্তার পশ্চিমপাশে তাদের জন্য বসানো হয়েছে বাজার। আগামী শনিবার পূর্বাহ্নে মুসলিম উম্মাহ, দেশ ও জাতির শান্তি উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি কামনা করে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে এই বিশ্ব ইজতেমার সমাপ্তি ঘটবে।



সাবমিট

ধুনটে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম তাবলিগি ইজতেমা শুরু

 বগুড়া ব্যুরো 
১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ১২:০০ এএম  | 
প্রশাসনের গৃহীত কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে বগুড়া জেলা সদর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে ধুনটের সরুগ্রামে শুরু হয়েছে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম বিশ্ব তাবলিগি ইজতেমা। আজ ফজরের নামাজ আদায়ের পর উদ্বোধনী বয়ানের মধ্য দিয়ে তাবলিগ জামায়াতের তিন দিনের এই ইজতেমা শুরু হয়েছে। ঢাকার কাকরাইল মসজিদের ব্যবস্থাপনায় কালেরপাড়া ইউনিয়নের সরুগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে বিশাল ময়দানে ৩৮তম বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ইজতেমা প্রাঙ্গণে মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বুধবার থেকেই আইনশৃংখলা বাহিনীর ২৫১ জন সদস্য ও ২০০ জন স্বেচ্ছাসেবী নিয়োজিত রয়েছেন। প্রতি বছর ধুনটের এই ইজতেমায় দেশের প্রায় প্রতিটি জেলা ও উপজেলাসহ বিশ্বের অন্তত ১৫টি রাষ্ট্রের লাখো ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নেন। এ বছর দেশের প্রায় প্রতিটি জেলা ও উপজেলাসহ সৌদি আরব, ফিলিপাইন, চাদ, মরক্কো, লেবানন, জর্ডানসহ বেশ কয়েকটি দেশের মুসল্লিরা অংশ নিচ্ছেন। তিন দিনব্যাপী ইজতেমায় আল্লাহর ইবাদত বন্দেগি ও নবী-রাসূলের তরিকাসহ ধর্মীয় বিভিন্ন বিষয়ে দেশ ও বিদেশের ওলামায়ে কেরাম কোরআন ও হাদিসের আলোকে বয়ান পেশ করবেন। মুসল্লিদের জন্য ইজতেমা প্রাঙ্গণের পূর্বপাশে ১৪০টি ল্যাট্রিন, ৬৫টি টিউবওয়েল ও ৫টি পানির পাম্প স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া রাস্তার পশ্চিমপাশে তাদের জন্য বসানো হয়েছে বাজার। আগামী শনিবার পূর্বাহ্নে মুসলিম উম্মাহ, দেশ ও জাতির শান্তি উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি কামনা করে আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে এই বিশ্ব ইজতেমার সমাপ্তি ঘটবে।



 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র