¦

এইমাত্র পাওয়া

  • রাজধানী থেকে কোকেনসহ আন্তর্জাতিক মাদক পাচারকারী চক্রের ৩ সদস্য আটক
সোনারগাঁ পৌরসভায় জাল ভোটের মহোৎসব

যুগান্তর রিপোর্ট | প্রকাশ : ৩১ ডিসেম্বর ২০১৫

রানী আক্তারের ভোটার নম্বর ২৮। তার বাড়ি সোনারগাঁ পৌরসভার খাগুটিয়া গ্রামে। দুপুর দেড়টার দিকে তিনি এ পৌরসভার ৬নং জিআর ইন্সটিটিউশন মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ ভোট কেন্দ্রে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে আসেন। যথারীতি ব্যালট পেপারে অমুছনীয় কালি দিয়ে নিজ হাতে টিপসইও দেন। কিন্তু কেন্দ্রে দায়িত্বরত সরকারদলীয় প্রার্থীর পোলিং এজেন্ট শাহীন ওই ব্যালট পেপার রানী আক্তারের হাত থেকে কেড়ে নিয়ে নৌকা প্রতীকে সিল মেরে ব্যালট বাক্সে ফেলে দেন। ফলে রানী আক্তার তার পছন্দের মেয়র প্রার্থীকে ভোট দেয়া থেকে বঞ্চিত হন। এ বিষয়ে দায়িত্বরত প্রিসাইডিং অফিসার সফিকুল ইসলামের কাছে অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার পাননি। একই কেন্দ্রে প্রতিপক্ষ সরকারদলীয় বিদ্রোহী প্রার্থী সাদেকুর রহমানের পোলিং এজেন্ট মো. মুজিবুর রহমানকেও ভোট কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।
এরকম আরও অভিযোগ মিলেছে সাহাপুর ৯নং তালিমুল কোরআন মাদ্রাসা কেন্দ্রের। এ কেন্দ্রের ৪নং বুথে ভোট দিতে আসা মুরাদ হোসেন নাজিরও (ব্যালট নং-১৮৮) ভোট দিতে পারেননি। ভোট কেন্দ্রে এসে তিনি জানতে পারেন তার ভোট আগেই দেয়া হয়ে গেছে। ইকবাল হোসেন ব্যালট নং-১৮৪ এবং জোবেদা খাতুন ব্যালট নং-৪৭৯-এর ভোটও অন্যরা আগেই দিয়ে ফেলেছেন। প্রিসাইডিং অফিসার সুমন জানান, এই ভোট কেন্দ্রে বুথ নং-৪-এ মোট ভোটার ছিলেন ২৯৫ জন। কিন্তু সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটে সরকারি দলের প্রার্থীর পক্ষে বহিরাগতরা কমপক্ষে ১২০টি জাল ভোট দিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্র্থী সাদেকুর রহমানের সমর্থক পোলিং এজেন্ট মো. জুনায়েদ হোসেন। জাল ভোট দেয়ার সময় বহিরাগত ভোটার মো. জুনায়েদ নামক এক যুবককে তিনি হাতেনাতে ধরে প্রিসাইডিং কর্মকর্তার হাতে তুলে দেন।
প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আ ফ ম জাহিদ ইকবাল যুগান্তরকে জানান, জাল ভোট যারা দিচ্ছেন, তাদের কেউ হাতেনাতে ধরে দিলে তাৎক্ষণিক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এ সময় তিনি আটক জুনায়েদকে আইনশৃংখলা বাহিনীর হাতে সোপর্দ করেন।
এই কেন্দ্রে জাল ভোটের বিস্তার এতটাই লক্ষণীয় ছিল যেখানে মোবাইল কোর্টের নামকাওয়াস্তে ত্বরিত অভিযানেও চারজনকে আটক করা হয়েছে। ৮নং ভট্টরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকেও একই অভিযোগে দুই কিশোরকে আটক করা হয়েছে। এদিকে সোনারগাঁ পৌরসভার নির্বাচন পরিস্থিতি দিনভর এতটাই শংকাময় ছিল, যেখানে এর ভোট জালিয়াতির বিষয়টিকেও প্রতিপক্ষরা মন্দের ভালো হিসেবে মেনে নিয়েছেন।
দ্বিতীয় সংস্করণ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close