jugantor
দেশজুড়ে স্বজনদের বর্ষবরণ

   

২২ এপ্রিল ২০১৫, ০০:০০:০০  | 

সুনামগঞ্জ

‘ওরাও মানুষ, ওদেরও দাবি আছে, ওদের কথাও শুনতে হবে, ওদের কাছেও যেতে হবে’ এই স্লোগান সামনে রেখে ‘হযরত শাহজালাল (রহ.)’ ও ‘হযরত শাহপরান (রহ.)-এর’ দরগাহ শরিফ এলাকার দু’শতাধিক হতদরিদ্র ভাসমান মানুষ ও ছিন্নমূল পথশিশুদের মধ্যে সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর স্বজন সমাবেশ উপজেলা শাখা ও সিলেটের স্বজনদের উদ্যোগে বাংলা নববর্ষবরণ উপলক্ষে নতুন পোশাক পরিয়ে দেয়া হয়। মঙ্গলবার পোশাক পরিয়ে দেন দৈনিক যুগান্তরের সিলেট ব্যুরো অফিসের ফটো সাংবাদিক মামুন হাসান, যুগান্তরের সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি এবং পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন সোসাইটির উপ-পরিচালক হাবিব সরোয়ার আজাদ, স্বজন সমাবেশ সুনামগঞ্জ জেলা আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট শাহআলম তুলিপ, আকরাম হোসেন, আহসানুল হক, মো. ফরিদ গাজী, মো. ফিরোজ মিয়া খাদিম, মো. গিয়াস উদ্দিন সরকার, মো. হাবিব মিয়া, মো. রাহি আহমদ খাদিম, মো. সাদিক মিয়া খাদিম, দেওয়ান জহির উদ্দিন, মো. শহীদুল্লাহ, আতাউর রহমান, আমিনুল ইসলাম আমিন, আলমগীর হোসেন বাবলু, আসিকুর রহমান আলবি, শিহাব সরোয়ার শিপু, মরিয়ম আক্তার মিম, শাহ মোহাম্মদ আজাদ প্রমুখ।

শাহ্ মোহাম্মদ আজাদ



ত্রিশাল

সকাল সাড়ে ১০টায় ময়মনসিংহের ত্রিশাল যুগান্তর স্বজন সমাবেশের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। বর্র্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শেষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অনন্ত কাদেরের পরিচালনায় ও যুগান্তর স্বজন সমাবেশের সভাপতি অধ্যাপক খবিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম মণ্ডল, প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও যুগান্তর স্বজন উপদেষ্টা মাহবুব হাসান শাহীন। স্বাগত বক্তব্য দেন যুগান্তর প্রতিনিধি ও স্বজন উপদেষ্টা খোরশিদুল আলম মজিব। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু আসলাম, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মহসিন আলী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আলহাজ মোজাহারুল হক, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার চান মিয়া, সাহাদাত হোসেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার নূর মোহাম্মদ, জুলহাস উদ্দিন, প্রদীপ রঞ্জন, দুলালী ধর, ত্রিশাল পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা সরকার, রফিকুল ইসলাম শামীম, এটিএম মনিরুজ্জামান, আলমগীর কবীর, রফিকুল ইসলাম, হারুন অর রশিদ, কামাল হোসেন, আবদুল্লাহ আল মাসুদ শিহাব, প্রমুখ। শেষে অতিথিদের মুড়ি-মুড়কি খাওয়ানো হয়। খোরশিদুল আলম মজিব



গোয়ালন্দ

‘নব রবির কিরণে আঁধার যাক সরে’ এ শ্লোগান ধারণ করে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় যুগান্তর স্বজন সমাবেশের সদস্যরা বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মাধ্যমে বরণ করে নেন বাংলা নতুন বছরকে। পহেলা বৈশাখ উদ্যাপন পর্ষদ নববর্ষকে বরণ করতে ওই দিন সকাল ১০টায় গোয়ালন্দ শহীদ স্মৃতি সরকারি উচ্চবালিকা বিদ্যালয় থেকে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়। ওই শোভাযাত্রায় স্বজন সদস্যরাও সদলবলে যোগ দেন। শোভাযাত্রায় অংশ নেন গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মাহবুবুর রাব্বানী, স্বজন সমাবেশের আহ্বায়ক নির্মল কুমার চক্রবর্তী, পহেলা বৈশাখ উদ্যাপন পর্ষদের নেতা নজরুল ইসলাম মণ্ডল, স্বজনের যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল মতিন মিয়া, স্বজন উপদেষ্টা ও যুগান্তর প্রতিনিধি শামীম শেখসহ অন্য সদস্যরা। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শহীদ স্মৃতি বালিকা বিদ্যালয়ে এসে শেষ হয়।

শামীম শেখ



শাহজাদপুর

যুগান্তর স্বজন সমাবেশ শাহজাদপুর শাখা, পূরবী থিয়েটার ও শাহজাদপুর উপজেলা প্রশাসন দিনব্যাপী নানা অনুষ্ঠান পালন করে। হাইস্কুল মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিল মঙ্গল শোভাযাত্রা, পান্তা ইলিশ ভোজ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও গ্রামীণ মেলা। প্রধান অতিথি ছিলেন সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনে জাতীয় সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আজাদ রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান মুস্তাক আহমেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এলিজা খান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম আহমেদ। অনুষ্ঠানে স্বজন সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ মুমীদুজ্জামান জাহান, তাকিবুন্নাহার, রুমকি, আল মুবিন জন, মেহেদী হাসান হিমু, আলামিন হোসেন, নাসির উদ্দিন, রুবেল, শিবলু, সোনামনি, মালিহা, মকবুল হোসেন, জিয়াসমিন, মারিয়া, অন্তর, মলিনা, আইরিন, আতিয়া, খাদিজা বেগম প্রমুখ।

মো. মুমীদুজ্জামান জাহান



গৌরীপুর

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কবিতা আবৃত্তি, দেশীয় খাবার, গ্রামীণ ক্রীড়া উৎসব, আড্ডা আর আনন্দময় অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উদযাপন করল স্বজনরা। হাডুডু, গোল্লাছুট, দাঁড়িয়াবান্ধা, বউচি, হাঁড়িভাঙা, এক্কা-দুক্কা, দৌড়, লুডু, ডাঙ্গুরীসহ ২৭টি ইভেন্ট শতাধিক স্বজন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। স্বজন উপদেষ্টা যুগান্তর প্রতিনিধি মো. রইছ উদ্দিনের সভাপতিত্বে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ এর পরিচালক রতন সরকার, আবুল কালাম সরকার, বোকাইনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম, ইসলামাবাদ সিনিয়র মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মো. এমদাদুল হক, রাতের সংসদের সভাপতি মো. সামছুল হক, সার্ডের ম্যানেজার আবদুল বাছেদ, নোভা সিফাত ইলেকট্রিক্যাল সার্ভিসের ফয়সাল ইবনে লতিফ, প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি আলী হায়দার রবিন, গৌরীপুর উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, উপজেলা স্বজনের সহ-সভাপতি শামীমা খানম মিনা প্রমুখ। মো. রইছ উদ্দিন



হালুয়াঘাট

হালুয়াঘাট স্বজন সমাবেশের উদ্যোগে নববর্ষ বরণ করতে এক বর্ণাঢ্য ট্রাক র‌্যালির আয়োজন করা হয়। র‌্যালিটি পুরাতন বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আবার পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন স্বজন সম্পাদক শাহাব উদ্দিন রতন, সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবীর, সহ-সম্পাদক সজীব সাহা, ক্রীড়া সম্পাদক শেখর বেনবংশী নন্দন, জাহিদ, হাবিবুর রহমান হবি, বিপুল নমদাস, সাগর, জামাল উদ্দিন, শহিদ, রাসেল সরকার, রেজাউল করিম সুমন, অজয় হুড়, হৃদয়সহ অনেকে। র‌্যালিতে ট্রাক দিয়ে সহযোগিতা করেন উজ্জ্বল এলএলবি ব্রিক, দড়ি নগুয়া।

হাবিবুর রহমান হবি



লৌহজং

মঙ্গল শোভাযাত্রা, ঘুড়ি উৎসব ও শিশু-কিশোরদের সঙ্গীত, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নতুন বছরটিতে বরণ করেন লৌহজং-এর স্বজনরা। মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভায় স্বজন সভাপতি মো. আবুল বাসার খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্বজন উপদেষ্টা ও ঢাকা মেডিকেল কলেজের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবু ইউসুফ ফকির। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বজন উপদেষ্টা মোহাম্মদ নোমান মিয়া, মো. মনির হোসেন মাস্টার, মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, মো. হুমায়ুন কবীর খোকা মৃধা, মো. বিল্লাল হোসেন হাওলাদার, হাজী মো. মোয়াজ্জেম হোসেন।

শেখ সাইদুর রহমান টুটুল



মীরসরাই

মীরসরাই মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে শুরু করা দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ ও খবরিকা স্বজনের ওই বৈশাখী শোভাযাত্রায় ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও কয়েকটি সামাজিক সংগঠন বাঙালি সংস্কৃতির বিভিন্ন সাজে অংশগ্রহণ করে। পরে আলোচনা অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম। স্বজন উপদেষ্টা সম্পাদক ডা. এসএ ফারুকের সভাপতিত্বে ও যুগান্তর প্রতিনিধি মাহবুবুর রহমান পলাশের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব শেখ আতাউর রহমান। কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

পলাশ মাহবুব



বন্দর

নৃত্য, সঙ্গীত, স্বরচিত কবিতাপাঠ, আলোচনা সভা ও ছোটদের আবৃত্তি প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে নববর্ষকে বরণ করলেন নারায়ণগঞ্জ বন্দর শাখার স্বজনরা। বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল সকালে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। কবি ও সাংবাদিক আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন অধ্যাপক ডা. জিএম জাব্বার চিশতি, বাতেন বাহার, জহিরউদ্দিন মাস্টার, শহীদুল্লাহ মাস্টার, কবি ইয়াদি মাহমুদ, অভিজিৎ রায়, সায়িদ হাসান সেলিম, সিরাজুল ইসলাম, কবির সোহেল, লতিফ রানা ও সংগঠক আবুল হোসেন প্রমুখ। কবিতাপাঠ করেন কবি ও ছড়াকার গাজী মুশফিকুর রহমান লিটন, ঠাকুর তিক্তদাহ নলূয়া, কাজী আনিসুল হক হীরা, বাপ্পী সাহা, সানজিদা ইসলাম বীণা, রইস মুকুল, সায়েদ আলী মাস্টার, শহীদুর রহমান, জিয়াবল ইবন, তানজিম মেহেদী প্রমুখ। লোকনৃত্য পরিবেশন করেন সুমনা রহমান স্মৃতি ও লাবণী। সংগীত পরিবেশনায় ছিলেন আওলাদ হোসেন, সুমন, ফাতেমা কনক, কামাল হোসেন, অশোক বিশ্বাস, সামিয়া খন্দকার, ইসমত আরা জেরিন, কৃষ্ণ, সুলতানা পারভীন, আবুল কালাম প্রমুখ। বাদ্যযন্ত্রে রঞ্জন লাল।

আতাউর রহমান



নরসিংদী

মঙ্গল শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন স্বজন সহ-সভাপতি সরকার ছগির আহাম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক সুমন সরকার, চ্যানেল আই প্রতিনিধি ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুমন রায়, লক্ষণ বর্মণ, বেলাল হোসাইন, নাসিমা আফ্রাদ, সৈকত জামান বাবু, রিপন মিয়া, মাধব সূত্রধরসহ আরও অনেকে। শোভাযাত্রাটি নরসিংদী শহর প্রদক্ষিণ করে শেরেবাংলা ক্লাবে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে পান্তাইলিশ দিয়ে সবাইকে আপ্যায়িত করা হয়। শেরেবাংলা ক্লাব আয়োজিত আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধান অতিথি অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান, বিশেষ অতিথি প্রফেসর মোহাম্মদ আলী, স্বজন প্রধান উপদেষ্টা প্রফেসর গোলাম মোস্তাফা মিয়া, স্বজন সভাপতি আসাদুজ্জামান খোকন এবং শেরেবাংলা ক্লাবের সহ-সভাপতি জাহিদ হোসেন সরকার। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি সমাপ্ত হয়।

মৃন্ময় ভৌমিক



সিলেটে বর্ষ শেষের আড্ডা

বর্ষ শেষ মুখর ছিল ১৩ এপ্রিল সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস। আড্ডাপ্রিয় স্বজনদের আড্ডায় প্রধান আকর্ষণ ছিল গান, কৌতুক আর মজার মজার স্মৃতিচারণ।

মবরুর আহমেদ সাজুর সভাপত্বিতে স্বজন সুবনিয় আচার্যও প্রাণবন্ত পরিচালনায় বর্ষ শেষের আড্ডায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলার সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম রেজা, সঞ্জয় রায়, ঝলক বিশ্বাস, রাজু তালুকদার, নিলয় দাস তানু, আলমগীর ফারজান, আফরোজা আক্তার যুক্তি, নাইম আহমদ, এনামুল ঘশ, সুমী অর্পা, রুবি রায়, পিলু কুমার রায় প্রমুখ।

মবরুর আহমদ সাজু










 

সাবমিট

দেশজুড়ে স্বজনদের বর্ষবরণ

  
২২ এপ্রিল ২০১৫, ১২:০০ এএম  | 

সুনামগঞ্জ

‘ওরাও মানুষ, ওদেরও দাবি আছে, ওদের কথাও শুনতে হবে, ওদের কাছেও যেতে হবে’ এই স্লোগান সামনে রেখে ‘হযরত শাহজালাল (রহ.)’ ও ‘হযরত শাহপরান (রহ.)-এর’ দরগাহ শরিফ এলাকার দু’শতাধিক হতদরিদ্র ভাসমান মানুষ ও ছিন্নমূল পথশিশুদের মধ্যে সুনামগঞ্জ জেলার তাহিরপুর স্বজন সমাবেশ উপজেলা শাখা ও সিলেটের স্বজনদের উদ্যোগে বাংলা নববর্ষবরণ উপলক্ষে নতুন পোশাক পরিয়ে দেয়া হয়। মঙ্গলবার পোশাক পরিয়ে দেন দৈনিক যুগান্তরের সিলেট ব্যুরো অফিসের ফটো সাংবাদিক মামুন হাসান, যুগান্তরের সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি এবং পরিবেশ ও মানবাধিকার উন্নয়ন সোসাইটির উপ-পরিচালক হাবিব সরোয়ার আজাদ, স্বজন সমাবেশ সুনামগঞ্জ জেলা আহ্বায়ক কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট শাহআলম তুলিপ, আকরাম হোসেন, আহসানুল হক, মো. ফরিদ গাজী, মো. ফিরোজ মিয়া খাদিম, মো. গিয়াস উদ্দিন সরকার, মো. হাবিব মিয়া, মো. রাহি আহমদ খাদিম, মো. সাদিক মিয়া খাদিম, দেওয়ান জহির উদ্দিন, মো. শহীদুল্লাহ, আতাউর রহমান, আমিনুল ইসলাম আমিন, আলমগীর হোসেন বাবলু, আসিকুর রহমান আলবি, শিহাব সরোয়ার শিপু, মরিয়ম আক্তার মিম, শাহ মোহাম্মদ আজাদ প্রমুখ।

শাহ্ মোহাম্মদ আজাদ



ত্রিশাল

সকাল সাড়ে ১০টায় ময়মনসিংহের ত্রিশাল যুগান্তর স্বজন সমাবেশের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। বর্র্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শেষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অনন্ত কাদেরের পরিচালনায় ও যুগান্তর স্বজন সমাবেশের সভাপতি অধ্যাপক খবিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম মণ্ডল, প্রধান অতিথি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও যুগান্তর স্বজন উপদেষ্টা মাহবুব হাসান শাহীন। স্বাগত বক্তব্য দেন যুগান্তর প্রতিনিধি ও স্বজন উপদেষ্টা খোরশিদুল আলম মজিব। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু আসলাম, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মহসিন আলী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আলহাজ মোজাহারুল হক, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার চান মিয়া, সাহাদাত হোসেন, উপজেলা শিক্ষা অফিসার নূর মোহাম্মদ, জুলহাস উদ্দিন, প্রদীপ রঞ্জন, দুলালী ধর, ত্রিশাল পৌরসভার সাবেক প্যানেল মেয়র অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা সরকার, রফিকুল ইসলাম শামীম, এটিএম মনিরুজ্জামান, আলমগীর কবীর, রফিকুল ইসলাম, হারুন অর রশিদ, কামাল হোসেন, আবদুল্লাহ আল মাসুদ শিহাব, প্রমুখ। শেষে অতিথিদের মুড়ি-মুড়কি খাওয়ানো হয়। খোরশিদুল আলম মজিব



গোয়ালন্দ

‘নব রবির কিরণে আঁধার যাক সরে’ এ শ্লোগান ধারণ করে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলায় যুগান্তর স্বজন সমাবেশের সদস্যরা বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রার মাধ্যমে বরণ করে নেন বাংলা নতুন বছরকে। পহেলা বৈশাখ উদ্যাপন পর্ষদ নববর্ষকে বরণ করতে ওই দিন সকাল ১০টায় গোয়ালন্দ শহীদ স্মৃতি সরকারি উচ্চবালিকা বিদ্যালয় থেকে বর্ণাঢ্য মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়। ওই শোভাযাত্রায় স্বজন সদস্যরাও সদলবলে যোগ দেন। শোভাযাত্রায় অংশ নেন গোয়ালন্দ উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম মাহবুবুর রাব্বানী, স্বজন সমাবেশের আহ্বায়ক নির্মল কুমার চক্রবর্তী, পহেলা বৈশাখ উদ্যাপন পর্ষদের নেতা নজরুল ইসলাম মণ্ডল, স্বজনের যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল মতিন মিয়া, স্বজন উপদেষ্টা ও যুগান্তর প্রতিনিধি শামীম শেখসহ অন্য সদস্যরা। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় শহীদ স্মৃতি বালিকা বিদ্যালয়ে এসে শেষ হয়।

শামীম শেখ



শাহজাদপুর

যুগান্তর স্বজন সমাবেশ শাহজাদপুর শাখা, পূরবী থিয়েটার ও শাহজাদপুর উপজেলা প্রশাসন দিনব্যাপী নানা অনুষ্ঠান পালন করে। হাইস্কুল মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিল মঙ্গল শোভাযাত্রা, পান্তা ইলিশ ভোজ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও গ্রামীণ মেলা। প্রধান অতিথি ছিলেন সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনে জাতীয় সংসদ সদস্য হাসিবুর রহমান স্বপন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আজাদ রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান মুস্তাক আহমেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এলিজা খান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শামীম আহমেদ। অনুষ্ঠানে স্বজন সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ মুমীদুজ্জামান জাহান, তাকিবুন্নাহার, রুমকি, আল মুবিন জন, মেহেদী হাসান হিমু, আলামিন হোসেন, নাসির উদ্দিন, রুবেল, শিবলু, সোনামনি, মালিহা, মকবুল হোসেন, জিয়াসমিন, মারিয়া, অন্তর, মলিনা, আইরিন, আতিয়া, খাদিজা বেগম প্রমুখ।

মো. মুমীদুজ্জামান জাহান



গৌরীপুর

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, কবিতা আবৃত্তি, দেশীয় খাবার, গ্রামীণ ক্রীড়া উৎসব, আড্ডা আর আনন্দময় অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে বর্ষবরণ উদযাপন করল স্বজনরা। হাডুডু, গোল্লাছুট, দাঁড়িয়াবান্ধা, বউচি, হাঁড়িভাঙা, এক্কা-দুক্কা, দৌড়, লুডু, ডাঙ্গুরীসহ ২৭টি ইভেন্ট শতাধিক স্বজন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। স্বজন উপদেষ্টা যুগান্তর প্রতিনিধি মো. রইছ উদ্দিনের সভাপতিত্বে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ এর পরিচালক রতন সরকার, আবুল কালাম সরকার, বোকাইনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবুল কালাম, ইসলামাবাদ সিনিয়র মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মো. এমদাদুল হক, রাতের সংসদের সভাপতি মো. সামছুল হক, সার্ডের ম্যানেজার আবদুল বাছেদ, নোভা সিফাত ইলেকট্রিক্যাল সার্ভিসের ফয়সাল ইবনে লতিফ, প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি আলী হায়দার রবিন, গৌরীপুর উন্নয়ন সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, উপজেলা স্বজনের সহ-সভাপতি শামীমা খানম মিনা প্রমুখ। মো. রইছ উদ্দিন



হালুয়াঘাট

হালুয়াঘাট স্বজন সমাবেশের উদ্যোগে নববর্ষ বরণ করতে এক বর্ণাঢ্য ট্রাক র‌্যালির আয়োজন করা হয়। র‌্যালিটি পুরাতন বাসস্ট্যান্ড থেকে শুরু হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আবার পুরাতন বাসস্ট্যান্ডে এসে শেষ হয়। র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন স্বজন সম্পাদক শাহাব উদ্দিন রতন, সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবীর, সহ-সম্পাদক সজীব সাহা, ক্রীড়া সম্পাদক শেখর বেনবংশী নন্দন, জাহিদ, হাবিবুর রহমান হবি, বিপুল নমদাস, সাগর, জামাল উদ্দিন, শহিদ, রাসেল সরকার, রেজাউল করিম সুমন, অজয় হুড়, হৃদয়সহ অনেকে। র‌্যালিতে ট্রাক দিয়ে সহযোগিতা করেন উজ্জ্বল এলএলবি ব্রিক, দড়ি নগুয়া।

হাবিবুর রহমান হবি



লৌহজং

মঙ্গল শোভাযাত্রা, ঘুড়ি উৎসব ও শিশু-কিশোরদের সঙ্গীত, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নতুন বছরটিতে বরণ করেন লৌহজং-এর স্বজনরা। মঙ্গল শোভাযাত্রা শেষে আলোচনা সভায় স্বজন সভাপতি মো. আবুল বাসার খানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি ছিলেন স্বজন উপদেষ্টা ও ঢাকা মেডিকেল কলেজের শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবু ইউসুফ ফকির। বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বজন উপদেষ্টা মোহাম্মদ নোমান মিয়া, মো. মনির হোসেন মাস্টার, মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, মো. হুমায়ুন কবীর খোকা মৃধা, মো. বিল্লাল হোসেন হাওলাদার, হাজী মো. মোয়াজ্জেম হোসেন।

শেখ সাইদুর রহমান টুটুল



মীরসরাই

মীরসরাই মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে শুরু করা দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ ও খবরিকা স্বজনের ওই বৈশাখী শোভাযাত্রায় ১২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও কয়েকটি সামাজিক সংগঠন বাঙালি সংস্কৃতির বিভিন্ন সাজে অংশগ্রহণ করে। পরে আলোচনা অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম। স্বজন উপদেষ্টা সম্পাদক ডা. এসএ ফারুকের সভাপতিত্বে ও যুগান্তর প্রতিনিধি মাহবুবুর রহমান পলাশের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব শেখ আতাউর রহমান। কেক কেটে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইব্রাহিম।

পলাশ মাহবুব



বন্দর

নৃত্য, সঙ্গীত, স্বরচিত কবিতাপাঠ, আলোচনা সভা ও ছোটদের আবৃত্তি প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে নববর্ষকে বরণ করলেন নারায়ণগঞ্জ বন্দর শাখার স্বজনরা। বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মুকুল সকালে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। কবি ও সাংবাদিক আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন অধ্যাপক ডা. জিএম জাব্বার চিশতি, বাতেন বাহার, জহিরউদ্দিন মাস্টার, শহীদুল্লাহ মাস্টার, কবি ইয়াদি মাহমুদ, অভিজিৎ রায়, সায়িদ হাসান সেলিম, সিরাজুল ইসলাম, কবির সোহেল, লতিফ রানা ও সংগঠক আবুল হোসেন প্রমুখ। কবিতাপাঠ করেন কবি ও ছড়াকার গাজী মুশফিকুর রহমান লিটন, ঠাকুর তিক্তদাহ নলূয়া, কাজী আনিসুল হক হীরা, বাপ্পী সাহা, সানজিদা ইসলাম বীণা, রইস মুকুল, সায়েদ আলী মাস্টার, শহীদুর রহমান, জিয়াবল ইবন, তানজিম মেহেদী প্রমুখ। লোকনৃত্য পরিবেশন করেন সুমনা রহমান স্মৃতি ও লাবণী। সংগীত পরিবেশনায় ছিলেন আওলাদ হোসেন, সুমন, ফাতেমা কনক, কামাল হোসেন, অশোক বিশ্বাস, সামিয়া খন্দকার, ইসমত আরা জেরিন, কৃষ্ণ, সুলতানা পারভীন, আবুল কালাম প্রমুখ। বাদ্যযন্ত্রে রঞ্জন লাল।

আতাউর রহমান



নরসিংদী

মঙ্গল শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন স্বজন সহ-সভাপতি সরকার ছগির আহাম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক সুমন সরকার, চ্যানেল আই প্রতিনিধি ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুমন রায়, লক্ষণ বর্মণ, বেলাল হোসাইন, নাসিমা আফ্রাদ, সৈকত জামান বাবু, রিপন মিয়া, মাধব সূত্রধরসহ আরও অনেকে। শোভাযাত্রাটি নরসিংদী শহর প্রদক্ষিণ করে শেরেবাংলা ক্লাবে এসে শেষ হয়। শোভাযাত্রা শেষে পান্তাইলিশ দিয়ে সবাইকে আপ্যায়িত করা হয়। শেরেবাংলা ক্লাব আয়োজিত আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধান অতিথি অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান, বিশেষ অতিথি প্রফেসর মোহাম্মদ আলী, স্বজন প্রধান উপদেষ্টা প্রফেসর গোলাম মোস্তাফা মিয়া, স্বজন সভাপতি আসাদুজ্জামান খোকন এবং শেরেবাংলা ক্লাবের সহ-সভাপতি জাহিদ হোসেন সরকার। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি সমাপ্ত হয়।

মৃন্ময় ভৌমিক



সিলেটে বর্ষ শেষের আড্ডা

বর্ষ শেষ মুখর ছিল ১৩ এপ্রিল সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস। আড্ডাপ্রিয় স্বজনদের আড্ডায় প্রধান আকর্ষণ ছিল গান, কৌতুক আর মজার মজার স্মৃতিচারণ।

মবরুর আহমেদ সাজুর সভাপত্বিতে স্বজন সুবনিয় আচার্যও প্রাণবন্ত পরিচালনায় বর্ষ শেষের আড্ডায় উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলার সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম রেজা, সঞ্জয় রায়, ঝলক বিশ্বাস, রাজু তালুকদার, নিলয় দাস তানু, আলমগীর ফারজান, আফরোজা আক্তার যুক্তি, নাইম আহমদ, এনামুল ঘশ, সুমী অর্পা, রুবি রায়, পিলু কুমার রায় প্রমুখ।

মবরুর আহমদ সাজু










 

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র