¦
বাংলাদেশের জন্য স্কটল্যান্ডের সতর্ক সংকেত

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

বিশ্বকাপ প্রস্তুতি পর্বে বাংলাদেশের ম্যাচ ছিল না কাল। তবে গ্রুপপর্বে যে দু’দলের বিপক্ষে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত ধরে নেয়া হয়েছে, সেই আফগানিস্তান ও স্কটল্যান্ড মাঠে নেমেছিল। অ্যাডিলেডে ভারতের কাছে আফগানিস্তানের ১৫৩ রানের বড়সড় হার যদি বাংলাদেশের জন্য স্বস্তির উপলক্ষ হয়, তবে মাশরাফিদের কপালে ভাঁজ ফেলে দিয়েছে স্কটল্যান্ড! বড় মঞ্চে দৈত্যবধে অভ্যস্ত যারা, সেই আয়াল্যান্ড এবার নিজেই শিকার। প্রস্তুতি ম্যাচে আইরিশদের (১১৭/১০) ১৭৯ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে বাংলাদেশের জন্য সতর্ক সংকেত দিয়ে রাখল স্কটিশরা (২৯৬/৬)। অভাবনীয় হারে তেতে থাকা আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষেই আবার আগামীকাল শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। মঙ্গলবারের দুটি প্রস্তুতি ম্যাচে সেঞ্চুরি করেছেন ভারতের রোহিত শর্মা ও স্কটল্যান্ডের ম্যাট মাচান। ১৮ ফেব্র“য়ারি ক্যানবেরায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করবে বাংলাদেশ। দুঃসময়ের ঘেরাটোপে বন্দি ভারতকে হারিয়ে বাংলাদেশ-বধের প্রস্তুতি নিতে চেয়েছিল আফগানরা। কিন্তু তা আর হয়নি। উল্টো বিশ্বকাপের নবীনতম দলটিকে সমনে পেয়ে বাঘ হয়ে গেল ভারত! তিন মাসের অস্ট্রেলিয়া সফরে ১২তম ম্যাচে এসে প্রথম জয়ের দেখা পেল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। হোক না প্রতিপক্ষ দুর্বল আফগানিস্তান, বিশ্বকাপের আগে একটি জয় নিশ্চয় ধোনিদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেবে। রোহিত শর্মার তাণ্ডবে প্রথম ব্যাট করে পাঁচ উইকেটে ৩৬৪ রানের পাহাড় গড়েছিল ভারত। জবাবে সাধ্যমতো লড়াই করে আট উইকেটে ২১১ রানে থামে আফগানিস্তানের দৌড়।
টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে কিছুটা বিপদেই পড়েছিল ভারত। ১৬ রানের মধ্যে বিদায় নেন শিখর ধাওয়ান ও বিরাট কোহলি। পরের গল্পটা ভারতের ঘুরে দাঁড়ানোর। তৃতীয় উইকেটে ১৫৮ রানের জুটি গড়েন রোহিত ও সুরেশ রায়না। আফগান বোলারদের কচুকাটা করে রোহিত শর্মা আবারও জানান দিলেন বিশ্বকাপে যেকোনো দলের বিপক্ষেই দুঃস্বপ্ন হয়ে উঠতে পারেন তিনি। ১২২ বলে ১২ চার ও সাত ছয়ে তার ব্যাট থেকে এসেছে ১৫০ রানের অনবদ্য এক ইনিংস। রায়না খেলেছেন ৭৫ রানের ইনিংস। শেষদিকে ৬১ বলে অপরাজিত ৮৮ রানের আরেকটি ঝড়ো ইনিংস উপহার দেন আজিংকা রাহানে। তাতেই ভারতের সংগ্রহ সাড়ে তিনশ’ ছাড়িয়ে যায়। বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে শুরুটা খারাপ হয়নি আফগানিস্তানের। নওরোজ মঙ্গলের ৬০ ও উসমান গনির ৪৪ রানের সুবাদে একপার্যায় তাদের সংগ্রহ ছিল দুই উইকেটে ১৫৩। তবে এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ভারতকে আর চোখ রাঙাতে পারেনি আফগানিস্তান। ভারতের পক্ষে মোহিত শর্মা ও রবীন্দ্র জাদেজা দুটি করে উইকেট নেন।
সিডনির ব্ল্যাকটাউন অলিম্পিক পার্ক ওভালে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা স্কটল্যান্ড ছয় উইকেটে তুলেছিল ২৯৬। বড় সংগ্রহের ভিতটা গড়ে দেয় ম্যাট মাচানের সেঞ্চুরি। ৮৬ রানে তিন উইকেট হারানোর পর অধিনায়ক
প্রেস্টন মমসেনের সঙ্গে ৯৬ ও রিচি বেরিংটনের সঙ্গে ৯৮ রানের দুটি চমৎকার জুটি গড়ে দলকে তিনশ’ রানের কাছাকাছি নিয়ে যান মাচান। ১০৮ বলে ১০৩ রান করে আউট হন তিনি। এছাড়া মমসেন ৫৬ ও বেরিংটন ৫২ রান করেন। জবাবে অ্যালাসডার ইভান্স ও মাজিদ হকের মারাÍক বোলিংয়ে ২৭ ওভারে মাত্র ১১৭ রানে গুটিয়ে যায় আয়াল্যান্ড। পল স্টার্লিং (৩৭) ও উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের (২৩) ৫৭ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙার পর মাত্র ৫১ রানে শেষ নয় উইকেট হারায় আইরিশরা। দীর্ঘদেহী পেসার ইভান্স ১৭ রানে নেন চার উইকেট। অফ-স্পিনার মাজিদ তিন উইকেট নেন মাত্র নয় রানের বিনিময়ে।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
ভারত ও আফগানিস্তান
ভারত ৩৬৪/৫, ৫০ ওভারে
(রোহিত শর্মা ১৫০, রায়না ৭৫, রাহানে ৮৮*, জাদেজা ১১*।
হামিদ হাসান ১/৪৯, মোহাম্মদ নবী ১/৬২, দৌলত জাদরান ১/৬৬,
শাপুর জাদরান ১/৫৮)।
আফগানিস্তান ২১১/৮,
৫০ ওভারে (উসমান গনি ৪০, নওরোজ মঙ্গল ৬৬,
আজগর ২০, আফসার ২৪*।
মোহিত শর্মা ২/৪০,
জাদেজা ২/৩৮)।
ফল : ভারত ১৫৩ রানে জয়ী।
স্কটল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ড
স্কটল্যান্ড ২৯৬/৬, ৫০
ওভারে (ম্যাকলিওড ৪১,
মাচান ১০৩, মমসেন ৫৬,
বেরিংটন ৫২। সরেনসেন ৩/৫৫,
ক্রিস ইয়ং ২/৩০)।
আয়ারল্যান্ড ১১৭, ২৭ ওভারে (পোর্টারফিল্ড ২৩, স্টার্লিং ৩৭, উইলসন ১৫। ইভান্স ৪/১৭, মাজিদ হক ৩/৯, ডেভি ২/৩৬)।
ফল : স্কটল্যান্ড ১৭৯ রানে জয়ী।
 

খেলা পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close