¦
ক্রিকেটারদের পায়ে শেকল!

| প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

আইসিসি এবারের বিশ্বকাপে ক্রিকেটারদের ওপর যেসব নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, তাতে তাদের প্রায় অনূর্ধ্ব-১৫ টিমে রূপান্তরিত হওয়ার উপক্রম। ১৪ দলের ২১০ ক্রিকেটারের ওপর যেসব নিষেধাজ্ঞা চেপেছে, তা নজিরবিহীন! বিশ্বকাপের ৪০ বছরের ইতিহাসে আর কখনও এমনটি হয়নি!
১. নিজের মোবাইল ফোন নম্বর দিতে হবে আইসিসির কাছে। কোনো গোপন নম্বর রাখা চলবে না। যাতে প্রয়োজনে গোয়েন্দারা যেকোনো সময় যে কারও ফোনে আড়ি পাততে পারেন।
২. হোটেলের ঘরে বাইরের কাউকে নিয়ে যাওয়া যাবে না। যদি একান্ত প্রয়োজন হয়, টিম ম্যানেজারের অনুমতি নিতে হবে। তিনি আবার আইসিসির অপরাধ দমন শাখার সম্মতি নিয়ে তবেই অতিথিকে ঘরে ঢুকতে দেবেন।
৩. আইসিসির অনুমতি ছাড়া সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলা যাবে না।
৪. অপরিচিত আকর্ষণীয় মহিলাদের সম্পর্কে বিশেষ সতর্ক থাকতে হবে। তারা নানাভাবে ভাব জমাবার, ঘনিষ্ঠ হওয়ার চেষ্টা করবে। এদের কোনোমতেই প্রশ্রয় দেয়া যাবে না। বুকিরা এদের চর হিসেবে পাঠাতে পারে, এমনই আশংকা।
৫. হোটেলের বাইরে কোথাও যেতে হলে শুধু জানিয়েই নয়, সঙ্গে নিরাপত্তারক্ষী নিয়ে যেতে হবে। এদের আইসিসি অনুমোদিত হওয়া চাই। না জানিয়ে দুমদাম বেরিয়ে যাওয়া যাবে না।
৬. মাঠে কোনোভাবেই বলের বিকৃতি ঘটানো চলবে না। ক্যাপ্টেনকে এ ব্যাপারে বাড়তি দায়িত্ব নিতে হবে। নইলে কিছু ঘটলে তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হবে।
৭. প্রতি টিমের সঙ্গে নিরাপত্তারক্ষী একজন থেকে বাড়িয়ে তিনজন করা হবে।
৮. সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট টুর্নামেন্ট চলাকালীন ব্যবহারের ব্যাপারে বিচক্ষণতা দেখাতে হবে। ফেসবুকে নতুন ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট না নেয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে।
৯. টুইটার ব্যবহারের ব্যাপারে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।
১০. নতুন কোনো স্পন্সরের সঙ্গে বিশ্বকাপের সময় গা ঘেঁষাঘেঁষি না করাই ভালো। ওয়েবসাইট।
খেলা পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close