¦
বাংলাদেশ-ভারত ক্রিকেটীয় সম্পর্ক নিয়ে উদ্বিগ্ন নন বিসিবি সভাপতি

স্পোর্টস রিপোটার | প্রকাশ : ০৩ এপ্রিল ২০১৫

আইসিসি সভাপতির পদ থেকে আহম মুস্তফা কামালের পদত্যাগকে র্দুভাগ্যজনক বলেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান। বিশ্বকাপ শেষে ঢাকায় ফিরে বুধবার রাতে সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি। নাজমুল হাসান আরও বলেন, বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচে বিতর্কিত আম্পায়ারিং দু’দেশের সম্পর্কে কোনো প্রভাব ফেলবে না।
২৮ মার্চ হঠাৎ ডাকা আইসিসির জরুরি সভায় ছিলেন না বিসিবি সভাপতি। যেখানে আহম মুস্তফা কামালকে ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছিল। বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘ফাইনালের আগে একটা সভা হয়েছিল। দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমি সেখানে ছিলাম না। সেখানে সিদ্ধান্ত হয় চেয়ারম্যান ট্রফি দেবেন। এটা ব্যতিক্রমী সিদ্ধান্ত। দুর্ভাগ্যজনকও বটে। আমি কয়েক ঘণ্টা আগেই জেনেছি, কামাল সাহেব পদত্যাগ করেছেন। পুরো ঘটনাই অনাকাক্সিক্ষত। এটা না হলেই ভালো হতো।’
বিসিবি সভাপতি জানিয়েছেন, আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন তাকে বলেছেন কোয়ার্টার ফাইনালের বল বাই বল তদন্ত করা হবে। তদন্তের ফল পরে বিসিবিকে জানানো হবে। আইসিসি চেয়ারম্যান এন শ্রীনিবাসনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে মুস্তফা কামালের পদত্যাগের ঘটনায় ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে সম্পর্কের অবনতির শংকা উড়িয়ে দিয়ে বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমি কোনো কারণ খুঁজে পাই না বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক অবনতি হওয়ার। এটা দু’দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোনো প্রভাব ফেলবে না। আমরা কোনো নির্দিষ্ট দেশ সম্পর্কে অভিযোগ করিনি। আমরা আম্পায়ারিং নিয়ে কথা বলেছি। আমরা বলেছি, প্রযুক্তি থাকতেও তা ব্যবহার হয়নি। এটা কয়েকবার হয়েছে।’
মুস্তফা কামালের উত্তরসূরি নির্বাচনের বিষয়টি ১৫ ও ১৬ এপ্রিল আইসিসির সভায় আলোচনা হবে। এমনও হতে পারে তার মেয়াদের বাকি তিন মাস বাংলাদেশ থেকেই কেউ সভাপতি থাকতে পারেন। তেমন কিছু হলে আগের মতোই সরকারের মতামত নিয়েই সিদ্ধান্ত হবে বলে জানান নাজমুল হাসান। এমনকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুমোদনও নেয়া হবে।
আইসিসির সভাপতি পদটা আলংকারিক। এটা সবারই জানা। তাই নাজমুল হাসান বলেছেন, ‘আগামী তিন মাস কে সভাপতি থাকবেন তা গুরুত্বপূর্ণ নয়। সভাপতির একটাই সম্মান ছিল ট্রফি দেয়া। যেটা দিতে দেয়া হয়নি।’
 

খেলা পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close