jugantor
সাফ ভলিবলে চোখ রুপায় : শেষ প্রস্তুতি ইরানে

  স্পোর্টস রিপোর্টার  

১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ০০:০০:০০  | 

দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিকখ্যাত সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমস ভলিবলে অতীতে তেমন কোনো সাফল্য নেই বাংলাদেশের। এ আসরে ভারত ও পাকিস্তানই সেরা। লাল-সবুজদের লড়াই করতে হয় শ্রীলংকার সঙ্গে। এই ধারা এবার ভাঙতে চায় বাংলাদেশ ভলিবল ফেডারেশন। তাদের লক্ষ্য, ১২তম এসএ গেমসের পুরুষ ভলিবলে অন্তত রুপা জেতা। লক্ষ্য পূরণে আগস্টের প্রথম সপ্তাহে অনুশীলন ক্যাম্প শুরু করে ফেডারেশন। ইরানি কোচ আলিপোর আরজির তত্ত্বাবধানে প্রায় চার মাসের নিবিড় অনুশীলনে এখন এসএ গেমসের জন্য অনেকটাই প্রস্তুত জাতীয় ভলিবল দল। প্রস্তুতিপর্বে পূর্ণতা আনতে দলটি ২০ ডিসেম্বর ইরান যাচ্ছে। সেখানে প্রায় ২০ দিনের সফরে পুরুষ ভলিবল দল অনুশীলনের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি প্রদর্শনী ম্যাচ খেলবে। ইরান সফর শেষে বাংলাদেশে ফেরার পথে জাতীয় ভলিবল দলের দুবাইয়েও দুটি প্রদর্শনী ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে।

জাতীয় পুরুষ ভলিবল দলের ইরানি কোচের পরামর্শ অনুযায়ী এ প্রদর্শনী ম্যাচের এবং দেশের বাইরে কিছুদিনের জন্য অনুশীলন ক্যাম্প করার সিদ্ধান্ত নেয় ভলিবল ফেডারেশন। আলিপোর যখন জাতীয় দলের দায়িত্ব নেন, তখনই তিনি ফেডারেশনের কর্মকর্তাদের প্রস্তাব করেছিলেন যে, এসএ গেমসের আগে বাংলাদেশ জাতীয় দলকে কমপক্ষে ১২টি অনুশীলন ম্যাচ খেলাতে হবে। এবং তা অবশ্যই দক্ষিণ এশীয়দের চেয়ে উঁচুমানের দলের বিপক্ষে। সেই মোতাবেক ফেডারেশন ইরান ভলিবল অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেখানে প্রদর্শনী ম্যাচ ও অনুশীলন ক্যাম্প করার ব্যবস্থা করে। ইরান সফর শেষে জানুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে ঢাকায় ফেরার কথা জাতীয় ভলিবল দলের।



সাবমিট

সাফ ভলিবলে চোখ রুপায় : শেষ প্রস্তুতি ইরানে

 স্পোর্টস রিপোর্টার 
১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ১২:০০ এএম  | 
দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিকখ্যাত সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমস ভলিবলে অতীতে তেমন কোনো সাফল্য নেই বাংলাদেশের। এ আসরে ভারত ও পাকিস্তানই সেরা। লাল-সবুজদের লড়াই করতে হয় শ্রীলংকার সঙ্গে। এই ধারা এবার ভাঙতে চায় বাংলাদেশ ভলিবল ফেডারেশন। তাদের লক্ষ্য, ১২তম এসএ গেমসের পুরুষ ভলিবলে অন্তত রুপা জেতা। লক্ষ্য পূরণে আগস্টের প্রথম সপ্তাহে অনুশীলন ক্যাম্প শুরু করে ফেডারেশন। ইরানি কোচ আলিপোর আরজির তত্ত্বাবধানে প্রায় চার মাসের নিবিড় অনুশীলনে এখন এসএ গেমসের জন্য অনেকটাই প্রস্তুত জাতীয় ভলিবল দল। প্রস্তুতিপর্বে পূর্ণতা আনতে দলটি ২০ ডিসেম্বর ইরান যাচ্ছে। সেখানে প্রায় ২০ দিনের সফরে পুরুষ ভলিবল দল অনুশীলনের পাশাপাশি বেশ কয়েকটি প্রদর্শনী ম্যাচ খেলবে। ইরান সফর শেষে বাংলাদেশে ফেরার পথে জাতীয় ভলিবল দলের দুবাইয়েও দুটি প্রদর্শনী ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে।

জাতীয় পুরুষ ভলিবল দলের ইরানি কোচের পরামর্শ অনুযায়ী এ প্রদর্শনী ম্যাচের এবং দেশের বাইরে কিছুদিনের জন্য অনুশীলন ক্যাম্প করার সিদ্ধান্ত নেয় ভলিবল ফেডারেশন। আলিপোর যখন জাতীয় দলের দায়িত্ব নেন, তখনই তিনি ফেডারেশনের কর্মকর্তাদের প্রস্তাব করেছিলেন যে, এসএ গেমসের আগে বাংলাদেশ জাতীয় দলকে কমপক্ষে ১২টি অনুশীলন ম্যাচ খেলাতে হবে। এবং তা অবশ্যই দক্ষিণ এশীয়দের চেয়ে উঁচুমানের দলের বিপক্ষে। সেই মোতাবেক ফেডারেশন ইরান ভলিবল অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেখানে প্রদর্শনী ম্যাচ ও অনুশীলন ক্যাম্প করার ব্যবস্থা করে। ইরান সফর শেষে জানুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহে ঢাকায় ফেরার কথা জাতীয় ভলিবল দলের।



 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র