¦
জমকালো আসরে জমল অস্কার

পিয়াস রায় | প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

বার্ডম্যান? দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল? নাকি বয়হুড? বিতর্কটা ছিল তুঙ্গে। অন্ততপক্ষে বাফটা আর গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডে তুমুল লড়াই করা ছবি তিনটার দিকেই নজর ছিল সবার। কে কাকে ডিঙ্গিয়ে বছরের সর্বশেষ প্রতীক্ষিত অস্কারের আসরে ছড়ি ঘোরাতে পারে। তবে শেষ ফলটা হল চার-চারে ড্র। আর সেই ড্রয়ের ফলে চারটা করে পুরস্কার বগলদাবা করে বার্ডম্যান ও দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল এগিয়ে রইল রানের খাতায়। সেরা পার্শ্বঅভিনেত্রীর মাত্র একটি পুরস্কার নিয়ে আপাতদৃষ্টিতে খুশি থাকতে হল অন্য আসরগুলোতে জয়ের লাগাম টেনে ধরা বয়হুডকে।
সদ্যসমাপ্ত অস্কারের আসরের সামগ্রিক চিত্রটা ছিল অনেকটা এমনই। লস অ্যাঞ্জেলসের ডলবি থিয়েটারের চেহারাটা গেল কয়েকদিন ধরেই ছিল বেশ সাজ সাজ রব। পুরো অনুষ্ঠানের সাজপোশাক তো বটেই, পুরো আয়োজনের স্টেজ রিহার্সেলসহ দীর্ঘ একটা আয়োজনযজ্ঞের সফল পরিসমাপ্তিতে তারকাবহুল একটা আয়োজন। ২২ ফেব্র“য়ারি স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে পাঁচটা। একটা নাচ-গানের যৌথ পরিবেশনার পর বেশ জাঁকজমকের সঙ্গেই শুরু হল অস্কারের এবারের ৮৭তম আসর। প্রথমবারের মতো অস্কার উপস্থাপনা করতে আসা নেইল প্যাট্রিকের উপস্থাপনাটা অন্যান্যবারের তুলনায় বেশ খানিকটা নিষ্প্রভ হলেও উপস্থাপনার এক ফাঁকে অভিনয়গুণের জারিজুরি বোঝাতে তার কাপড়-চোপড় উদোম করে দেয়ার বিষয়টিতে আগতদের খানিকটা উৎফুল্ল হতে দেখা যায়। এছাড়া প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টার লম্বা আয়োজনে নীল সঞ্চালক হিসেবে ছিলেন অনেকটাই আড়ম্বরশূন্য। তবে পুরো অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে মিউজিক্যাল পরিবেশনাগুলো প্রতি বছরের মতোই দর্শকদের বিনোদন জুগিয়েছে বলে ধারণা করা যায়। এবিসি টেলিভিশন নেটওয়ার্কের বরাতে যুক্তরাষ্ট্র ও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সরাসরি সম্প্রচারও করা হয় পুরো অস্কার অনুষ্ঠানটি।
চলুন এবার দেখে নেই পুরো আয়োজনের পুরস্কার সংক্রান্ত খুঁটিনাটি। ২৪টি ভিন্ন ভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কারের আয়োজন ছিল প্রতিবারের মতো একাডেমি অব মোশন পিকচার আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেসের আয়োজনের এই একাডেমি অ্যাওয়ার্ড বা নামান্তরে অস্কারের। অনুষ্ঠানের প্রথমদিকেই সেরা পার্শ্বঅভিনেতা ও সেরা পার্শ্বঅভিনেত্রীর পুরস্কার দিয়ে কিছুটা থিতু করা হয় পরিস্থিতি। সেরা পার্শ্বঅভিনেতা হিসেবে হুইপল্যাশ ছবির জন্য জে কে সিমন্স এবং সেরা পার্শ্বঅভিনেত্রীর তালিকায় সবাইকে হটিয়ে বয়হুড ছবির জন্য প্যাট্রিসিয়া আরকুয়েট একটি করে পুরস্কার বাগিয়ে মানরক্ষা করেন ছবিগুলোর। তবে চারটি করে পুরস্কার নিয়ে সংখ্যাধিক্যের হিসেবে ড্র করা বিষয়টি মজার খোরাক জুগিয়েছে সবার। প্রোডাকশন ডিজাইন, পোশাক-অঙ্গসজ্জা, রূপসজ্জা ও কেশবিন্যাস এবং অরিজিনাল স্কোর বিভাগে চারটি পুরস্কার বাগিয়ে দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল বেশ বগল বাজিয়েছে আয়োজনে। অন্যদিকে সেরা ছবি, সেরা পরিচালক অ্যালেজান্দ্রো গঞ্জালেস ইনারিতু, চিত্রগ্রহণ ও চিত্রনাট্য এই চার ক্যাটাগরিতে বার্ডম্যানের জয় সংখ্যায় চার হলেও পুরস্কারের গুরুত্বে ছাপিয়ে গেছে দ্য গ্র্যান্ড বুদাপেস্ট হোটেল-এর চারের মাত্রাকে। তবে সেই তুলনায় সেরা অভিনেত্রী ও সেরা অভিনেতার খেতাব জয়টা অনেক বেশিই প্রত্যাশিত ছিল বললেও হয়তো অত্যুক্তি হবে না। সেই গোল্ডেন গ্লোব কিংবা বাফটা সবগুলোর আসর থেকেই যে মুখগুলো বেশ চেনা হয়ে গেছে সেই জুলিয়ান মুর ও এডি রেডমায়েনের ভাগ্যেই এবার জুটেছে বর্ষসেরা অভিনয়শিল্পী হিসেবে নির্বাচিত হওয়ার সম্মান। স্টিল এলিস ছবিতে অনবদ্য অভিনয়গুণের জন্য এবারের অস্কারের সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হন জুলিয়ান। অন্যদিকে বিজ্ঞানী স্টিফেন হকিংয়ের জীবনের গল্প নিয়ে দ্য থিওরি অব এভরিথিং-এ স্টিফেন হকিং চরিত্রে কেন্দ্রীয় অভিনয়শিল্পীর ভূমিকায় এডি রেডমায়েন যে অভিনয়ের মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন তাতে এই সেরা অভিনেতার পুরস্কার তার হাতছাড়া হওয়ার কোনো আশংকা ছিল বলে মনে হয় না কারোই।
এবারকার অস্কারে মনোনীতদের যারা ব্যর্থ মনোরথে ফিরে গেছেন তারাও খুব একটা হতাশ হয়েছেন বলে মনে হয় না। বিশাল অংকের উপহারে পরিপূর্ণ গুডিব্যাগের বহুমূল্য উপহার তাদের দুঃখ ঘোচাতে কিছুটা হলেও সমর্থ হবে বলে ধারণা আয়োজকদের। যদিও অস্কারের তুলনা অস্কারই, সেটা হাজারও বহুমূল্যের উপহার দ্বারা তুলনীয় হওয়ার কোনো সম্ভাবনা রাখে না আদৌ।
তারাঝিলমিল পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close