jugantor
মাহি-শুভর রসায়ন
নতুন কোনো চলচ্চিত্রে আর জুটিবদ্ধ না হলে হয়তো ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রটিই হবে আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি অভিনীত শেষ চলচ্চিত্র। জানাচ্ছেন-

  অভি মঈনুদ্দীন  

৩০ এপ্রিল ২০১৫, ০০:০০:০০  | 

দীর্ঘ এক মাস পর ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ‘অগ্নি-টু’ চলচ্চিত্রের কাজ শেষ করে ব্যাংকক থেকে ঢাকায় ফিরেছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের হালের দর্শকপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। ফিরে এসেই নিজের মুঠোফোন খোলা মাত্রই অসংখ্য মেসেজ পান। যার বেশিরভাগই ছিল চলচ্চিত্রে তার বিরতি বিষয়ক নানা প্রশ্ন। পাশাপাশি মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রটি নিয়েও তার ভক্ত দর্শক আর পরিচিতজনের শুভ কামনা ছিল। বার বার নিজের মুঠোফোনের নাম্বার বদলাবেন, মাহি এমনটা নন। পুরনো যে নাম্বারটি ছিল তা সযতনে রেখে দিয়েছেন। কারণ হিসেবে মাহি বলেন, ‘আমার ভক্ত দর্শকের কাছ থেকে যদি আমি সরাসরি রেসপন্স না পাই তাহলে কীভাবে বুঝব আমি যে আমার অভিনয় কিংবা অভিনীত চলচ্চিত্রটি ভালো হয়েছে, দর্শক দেখছেন। তাই নতুন নাম্বার নিলেও আমি পুরনো নাম্বারটি রেখে দিয়েছি ভক্ত-দর্শকের জন্য। যেন তারা আমাকে তাদের ভালোলাগা, মন্দলাগা শেয়ার করতে পারেন। তাতে আমিও নিজেকে ডেভেলপ করতে পারব।’ ‘ম্যাপল ফিল্মস’র ব্যানারে ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছেন টপি খান। এটি তার প্রযোজিত প্রথম চলচ্চিত্র। তাই ‘ওয়ার্নিং’ নিয়ে তিনি দারুণ আশাবাদী। আশাবাদী এ চলচ্চিত্রের নায়ক আরিফিন শুভ’ও। এ প্রসঙ্গে শুভ বলেন, ‘যখন নায়ক হিসেবে আমার ক্যারিয়ার খুব ভালো অবস্থানে নয়, সে সময় যারা আমাকে নিয়ে উৎসাহ দেখিয়ে কাজে নিয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম একজন টপি ভাই। তিনি তার ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রে আমাকে নিয়ে কাজ না করলে হয়তো ভালো চলচ্চিত্রে কাজ করার স্বপ্ন ভুলে যেতাম। ওয়ার্নিং সত্যিই অসাধারণ গল্পের একটি চলচ্চিত্র। লোকেশন, গান, সবকিছুতেই বিচিত্রতা পাবেন দর্শক, এ কথা আমি নিশ্চিতভাবেই বলতে পারি। দর্শকের কাছে অনুরোধ থাকবে আমার এবং মাহির অভিনীত এ চলচ্চিত্রটি দেখতে প্লিজ হলে যাবেন। আশাকরি আপনাদের খুব ভালো লাগবে।’ মাহি এবং আরিফিন শুভ এর আগে ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ‘অগ্নি’ চলচ্চিত্রে প্রথমবারের মতো জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেছিলেন। এটি ছিল গত বছরের আলোচিত চলচ্চিত্রের একটি। তবে অগ্নি ছবিতে আরিফিন শুভকে খুব একটা প্রাধান্য দেননি পরিচালক- এমন কথাও হয়েছে অনেক। যদিও বিষয়টি নিয়ে কখনোই মুখ খোলেনরি শুভ। তিনি বরাবরই বলেছেন, ‘ছবিতে আমার চরিত্র যতটুকু ছিল তাতে আমি সর্বোচ্চ মেধা দিয়ে অভিনয় করার চেষ্টা করেছি। সফলও হয়েছি।’ সেসময় অবশ্য মাহিকে নিয়েই মাতামাতি বেশি হয়েছে। এতে অবশ্য অসন্তুষ্ট নন শুভ। কারণ নতুন একটি সময়ের জন্য অপেক্ষা করেছেন তিনি। ওয়ার্নিং ছবির মাধ্যমে সে সময় এখন তার হাতের মুঠোয়। চলতি বছরের ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র হিসেবেও ‘ওয়ানির্ং’য়ের অবস্থান নিয়েও ভবিষ্যতবানী করছেন এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা। এ জুটিকে নিয়ে সম্প্রতি নতুন একটি গুজবও শুরু হয়েছে। যদি নতুন কোনো চলচ্চিত্রে মাহিয়া মাহি ও আরিফিন শুভ জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় না করেন তাহলে ‘ওয়ার্নিং’ই হতে পারে তাদের শেষ চলচ্চিত্র। নতুন এখনও পর্যন্ত অবশ্য এ জুটিকে নিয়ে নতুন ছবি নির্মাণের কোনো ঘোষণা আসেনি। শুভ ও মাহি জুটিকে নিয়ে সম্ভাবনার কথা অগ্নি মুক্তি পাওয়ার পরপরই আলোচনায় এসেছিল। কিন্তু সেসময় প্রচারের অগ্রভাগে মাহি থাকাতে শুভর বিষয়টি চাপা পড়ে গিয়েছিল। নতুন করে ওয়ার্নিং নিয়ে আলোচনায় কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছেন এ দুই তারকা। সম্ভাবনার শতভাগ দর্শকদের উজাড় করে দিতেও প্রস্তুত তারা।

নতুন ছবির প্রচারনার পাশাপাশি শুভ তার অভিনীত ‘মুসাফির’ চলচ্চিত্রের কাজ নিয়েও ব্যস্ত রয়েছেন। কিছুদিনের মধ্যেই ছবিটির শুটিং শুরু হবে। অন্যদিকে মাহি ‘অগ্নি-২’ চলচ্চিত্রের বাকি অংশের শুটিং করতে শনিবার রাতের ফ্লাইটে কলকাতা উড়াল দেবেন। ফিরবেন চার-পাঁচদিন পর। ফিরে এসে আবারও ‘ওয়ার্নিং’-এর প্রচার নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন বলে জানিয়েছেন।


 

সাবমিট

মাহি-শুভর রসায়ন

নতুন কোনো চলচ্চিত্রে আর জুটিবদ্ধ না হলে হয়তো ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রটিই হবে আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি অভিনীত শেষ চলচ্চিত্র। জানাচ্ছেন-
 অভি মঈনুদ্দীন 
৩০ এপ্রিল ২০১৫, ১২:০০ এএম  | 

দীর্ঘ এক মাস পর ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ‘অগ্নি-টু’ চলচ্চিত্রের কাজ শেষ করে ব্যাংকক থেকে ঢাকায় ফিরেছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের হালের দর্শকপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। ফিরে এসেই নিজের মুঠোফোন খোলা মাত্রই অসংখ্য মেসেজ পান। যার বেশিরভাগই ছিল চলচ্চিত্রে তার বিরতি বিষয়ক নানা প্রশ্ন। পাশাপাশি মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রটি নিয়েও তার ভক্ত দর্শক আর পরিচিতজনের শুভ কামনা ছিল। বার বার নিজের মুঠোফোনের নাম্বার বদলাবেন, মাহি এমনটা নন। পুরনো যে নাম্বারটি ছিল তা সযতনে রেখে দিয়েছেন। কারণ হিসেবে মাহি বলেন, ‘আমার ভক্ত দর্শকের কাছ থেকে যদি আমি সরাসরি রেসপন্স না পাই তাহলে কীভাবে বুঝব আমি যে আমার অভিনয় কিংবা অভিনীত চলচ্চিত্রটি ভালো হয়েছে, দর্শক দেখছেন। তাই নতুন নাম্বার নিলেও আমি পুরনো নাম্বারটি রেখে দিয়েছি ভক্ত-দর্শকের জন্য। যেন তারা আমাকে তাদের ভালোলাগা, মন্দলাগা শেয়ার করতে পারেন। তাতে আমিও নিজেকে ডেভেলপ করতে পারব।’ ‘ম্যাপল ফিল্মস’র ব্যানারে ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছেন টপি খান। এটি তার প্রযোজিত প্রথম চলচ্চিত্র। তাই ‘ওয়ার্নিং’ নিয়ে তিনি দারুণ আশাবাদী। আশাবাদী এ চলচ্চিত্রের নায়ক আরিফিন শুভ’ও। এ প্রসঙ্গে শুভ বলেন, ‘যখন নায়ক হিসেবে আমার ক্যারিয়ার খুব ভালো অবস্থানে নয়, সে সময় যারা আমাকে নিয়ে উৎসাহ দেখিয়ে কাজে নিয়েছেন তাদের মধ্যে অন্যতম একজন টপি ভাই। তিনি তার ‘ওয়ার্নিং’ চলচ্চিত্রে আমাকে নিয়ে কাজ না করলে হয়তো ভালো চলচ্চিত্রে কাজ করার স্বপ্ন ভুলে যেতাম। ওয়ার্নিং সত্যিই অসাধারণ গল্পের একটি চলচ্চিত্র। লোকেশন, গান, সবকিছুতেই বিচিত্রতা পাবেন দর্শক, এ কথা আমি নিশ্চিতভাবেই বলতে পারি। দর্শকের কাছে অনুরোধ থাকবে আমার এবং মাহির অভিনীত এ চলচ্চিত্রটি দেখতে প্লিজ হলে যাবেন। আশাকরি আপনাদের খুব ভালো লাগবে।’ মাহি এবং আরিফিন শুভ এর আগে ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ‘অগ্নি’ চলচ্চিত্রে প্রথমবারের মতো জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেছিলেন। এটি ছিল গত বছরের আলোচিত চলচ্চিত্রের একটি। তবে অগ্নি ছবিতে আরিফিন শুভকে খুব একটা প্রাধান্য দেননি পরিচালক- এমন কথাও হয়েছে অনেক। যদিও বিষয়টি নিয়ে কখনোই মুখ খোলেনরি শুভ। তিনি বরাবরই বলেছেন, ‘ছবিতে আমার চরিত্র যতটুকু ছিল তাতে আমি সর্বোচ্চ মেধা দিয়ে অভিনয় করার চেষ্টা করেছি। সফলও হয়েছি।’ সেসময় অবশ্য মাহিকে নিয়েই মাতামাতি বেশি হয়েছে। এতে অবশ্য অসন্তুষ্ট নন শুভ। কারণ নতুন একটি সময়ের জন্য অপেক্ষা করেছেন তিনি। ওয়ার্নিং ছবির মাধ্যমে সে সময় এখন তার হাতের মুঠোয়। চলতি বছরের ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র হিসেবেও ‘ওয়ানির্ং’য়ের অবস্থান নিয়েও ভবিষ্যতবানী করছেন এর সঙ্গে সংশ্লিষ্টরা। এ জুটিকে নিয়ে সম্প্রতি নতুন একটি গুজবও শুরু হয়েছে। যদি নতুন কোনো চলচ্চিত্রে মাহিয়া মাহি ও আরিফিন শুভ জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় না করেন তাহলে ‘ওয়ার্নিং’ই হতে পারে তাদের শেষ চলচ্চিত্র। নতুন এখনও পর্যন্ত অবশ্য এ জুটিকে নিয়ে নতুন ছবি নির্মাণের কোনো ঘোষণা আসেনি। শুভ ও মাহি জুটিকে নিয়ে সম্ভাবনার কথা অগ্নি মুক্তি পাওয়ার পরপরই আলোচনায় এসেছিল। কিন্তু সেসময় প্রচারের অগ্রভাগে মাহি থাকাতে শুভর বিষয়টি চাপা পড়ে গিয়েছিল। নতুন করে ওয়ার্নিং নিয়ে আলোচনায় কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছেন এ দুই তারকা। সম্ভাবনার শতভাগ দর্শকদের উজাড় করে দিতেও প্রস্তুত তারা।

নতুন ছবির প্রচারনার পাশাপাশি শুভ তার অভিনীত ‘মুসাফির’ চলচ্চিত্রের কাজ নিয়েও ব্যস্ত রয়েছেন। কিছুদিনের মধ্যেই ছবিটির শুটিং শুরু হবে। অন্যদিকে মাহি ‘অগ্নি-২’ চলচ্চিত্রের বাকি অংশের শুটিং করতে শনিবার রাতের ফ্লাইটে কলকাতা উড়াল দেবেন। ফিরবেন চার-পাঁচদিন পর। ফিরে এসে আবারও ‘ওয়ার্নিং’-এর প্রচার নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন বলে জানিয়েছেন।


 

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র