¦
ছোট খবর

| প্রকাশ : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

বাতাসের জন্য ফি!
চীনের অনেক শহরের বায়ুদূষণের মাত্রা বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক বেশি। দূষণ এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, সেই শহরগুলো ধোঁয়াশাচ্ছন্ন হয়ে থাকে। এ কারণে মহাসড়ক বন্ধ রাখা, এমনকি ফ্লাইট বাতিল করার ঘটনাও রয়েছে। গত সপ্তাহে বায়ু দূষণের কারণে বেইজিংয়ে রেড অ্যালার্ট জারি করেছিল কর্তৃপক্ষ। চীনের পূর্বাঞ্চলের জিয়াংশু প্রদেশের ঝ্যাং জিয়াগাং শহরে বায়ুদূষণ এমন মাত্রায় পৌঁছেছে যে, একটি রেস্তোরাঁ খাবারের দামের পাশাপাশি বিশুদ্ধ বাতাসের জন্যও অতিরিক্ত ফি আদায় করেছে। বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে, ঝ্যাং জিয়াগাংয়ের শহরগুলোতে বায়ুদূষণের কারণে এত ঘন ধোঁয়াশা সৃষ্টি হচ্ছে যে, ১০০ মিটারের বেশি দূরের জিনিস দেখা যায় না। এ কারণে সেখানকার একটি রেস্তোরাঁ তাদের খদ্দেরদের খাওয়া-দাওয়ার পরিবেশ উন্নত করতে অভিনব ব্যবস্থার উদ্যোগ নিয়েছে। রেস্তোরাঁর ভেতরের বাতাস পরিশুদ্ধ করার জন্য সম্প্রতি একটি ফিল্টার সিস্টেম বসানো হয়েছে। এর খরচ পুষিয়ে নিতে রেস্তোরাঁর মালিক খদ্দেরপিছু এক ইউয়ান করে চার্জ আরোপ করেছেন, যা খাবারের দামের বাইরে।
জনসম্মুখে থাই রাজা
শারীরিক অসুস্থতার কারণে দীর্ঘদিন ধরে লোকচক্ষুর অন্তরালে থাকা থাই রাজা ভূমিবল আদুলিয়াদেজকে আবারও দেখা গেল জনসমক্ষে। সোমবার রাজপ্রাসাদ থেকে প্রকাশ করা এক ভিডিও ফুটেজে বেশ ক’জন বিচারপতিকে থাই রাজা ভূমিবলের কাছে শপথ নিতে দেখা গেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। প্রতিবেদনে বলা হয়, দীর্ঘদিন ধরে ৮৮ বছর বয়সী থাই রাজা ব্যাংককের যে হাসপাতালটিতে চিকিৎসা নিচ্ছেন সেখানেই বিচারপতিদের শপথ নিতে দেখা গেছে। তবে রাজপ্রাসাদের পক্ষ থেকে রাজার বর্তমান শারীরিক অবস্থার বিস্তারিত জানানো হয়নি।
সবচেয়ে বেশি বয়সী এ রাজাকে গত সেপ্টেম্বরে সর্বশেষ দেখা গিয়েছিল। তবে অসুস্থতার কারণে টানা দুই বছরের মতো চলতি বছরের ৫ ডিসেম্বর জন্মদিনের উৎসবে যোগ দিতে পারেননি থাই রাজা। গত কয়েক বছর ধরেই থাই রাজার বেশিরভাগ সময় কাটছে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে। মাঝে মধ্যে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেও বার বারই ভর্তি হতে হচ্ছে তাকে।
দশ দিগন্ত পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close