¦

এইমাত্র পাওয়া

  • হালনাগাদ ভোটার তালিকার খসড়া প্রকাশ; নতুন ভোটার ৪৩ লাখ ৬৮ হাজার ৪৭ জন
নিষেধাজ্ঞার আশংকা সত্ত্বেও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি জোরদার করছে ইরান

যুগান্তর ডেস্ক | প্রকাশ : ০২ জানুয়ারি ২০১৬

২০১৫ জুলাইয়ে বৈরী যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে এক ঐতিহাসিক চুক্তির মাধ্যমে পারমাণবিক কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ পায় ইরান। কিন্তু বুধবার এক মিসাইল পরীক্ষার পরিপ্রেক্ষিতে নতুন করে নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে যাচ্ছে দেশটি। তবুও এ কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানী।
যুক্তরাষ্ট্রের নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাতে সংবাদমাধ্যম রয়টার্স জানিয়েছে ১০ অক্টোবর পরীক্ষা চালানো ওই মধ্য পাল্লার মিসাইলটি পারমাণবিক বোমা বহনে সক্ষম। আর এর পারপ্রেক্ষিতেই আবারও নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে যাচ্ছে দেশটি। এসব কোনোকিছুই তোয়াক্কা না করে দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন দেহকানকে লেখা একটি চিঠিতে প্রেসডিন্টে হাসান রুহানী জানিয়েছেন ‘মার্কিন সরকার স্পষ্টতই তাদের অনৈতিক পররাষ্ট্রনীতি আমাদের ওপর চাপিয়ে দিতে চাইছে। এজন্যই আমাদের নিজস্ব পারমাণবিক শক্তি প্রদর্শন করা প্রয়োজন।’ তিনি বলেছেন, দেশের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের উৎপাদন জোরদার করতে হবে। আমেরিকা অবৈধ ও শত্র“তামূলকভাবে ইরানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের চেষ্টা করছে। এ অবস্থায় সশস্ত্র বাহিনীর জন্য আরও গতি ও আন্তরিকতার সঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র উৎপাদন জোরদার করা জরুরি।
এখনই নিষেধাজ্ঞা আসছে না ইরানের ওপর : ইরানের ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ঘটনায় দেশটির ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত স্থগিত করছে হোয়াইট হাউস। বৃহস্পতিবার এক মার্কিন কর্মকর্তার বরাতে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক খবরে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থবিভাগ তেহরানের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের রূপরেখা তৈরি করছিল। তবে আপাতত নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে ওয়াশিংটন। ফলে বিষয়টি এখনও টেবিলে ফাইলবন্দি রয়েছে।
এছাড়া কংগ্রেসে হোয়াইট হাউসের পাঠানো এক প্রজ্ঞাপনের উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়, বুধবার ওয়াশিংটনে নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দেয়ার কথা ছিল। তবে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা নিষেধাজ্ঞা কখন জারি করা হবে তার সুনির্দিষ্ট সময়সীমা উল্লেখ করেননি।
এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের এ ধরনের পদক্ষেপ তেহরানের সঙ্গে কষ্টার্জিত পারমাণবিক চুক্তি ব্যাহত করতে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।
ঊর্ধ্বতন এক প্রশাসনিক কর্মকর্তা বলেন, ‘আমরা কিছু সময় নিচ্ছি। কারণ ইরানের ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি সংশ্লিষ্ট কিছু কর্মকাণ্ড আমরা প্রত্যক্ষ করছি।’
তেহরানের ব্যালাস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকার অভিযোগে ইরান, হংকং ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিভিন্ন কোম্পানি ও ব্যক্তির ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রস্তুতি নিচ্ছিল যুক্তরাষ্ট্র।
মার্কিন অর্থ বিভাগের এ পদক্ষেপ পারমাণবিক চুক্তি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে একটি বিরাট বাধা হতে পারে। এছাড়া একে কেন্দ্র করে আবারও তেহরান ও ওয়াশিংটনের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হতে পারে।
ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্র নতুর করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করলে এটা হবে গত জুলাইতে বিশ্বশক্তির সঙ্গে ইরানের পারমাণবিক চুক্তির পর তেহরানের ওপর ওয়াশিংটনের প্রথম অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা।
দশ দিগন্ত পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close