গাজীপুর প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ০৬ জুলাই, ২০১৬ ১৬:৪৩:০১ প্রিন্ট
ঈদযাত্রায় এবার দুর্ভোগ কম হয়েছে

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গত কয়েক বছরের তুলনায় এবারের ঈদে মানুষের দুর্ভোগ কম হয়েছে।

বুধবার দুপুরে গাজীপুর মহানগরীর চন্দনা চৌরাস্তায় ঈদে যানজট পরিস্থিতি পরিদর্শনে এসে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রীর সঙ্গে ঢাকা বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ, গাজীপুর সওজ’র নির্বাহী প্রকৌশলী ডি.এ.কে.এম. নাহীন রেজাসহ সড়ক ও জনপথের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, জনজট, বৃষ্টি এবং রাস্তায় ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান চলাচলের কারণে যাত্রীদের কিছুটা দুর্ভোগ হয়েছে।

তিনি জানান, ঈদে ঘরমুখো যাত্রী আর নেই। এখন চ্যালেঞ্জ কর্মস্থলে ফিরে আসা মানুষদের নিয়ে। তারা কিভাবে স্বাচ্ছন্দ্যে কর্মস্থলে ফিরতে পারে, সে ব্যাপারে এখনই প্রস্তুতি নিতে হবে।

মন্ত্রী জানান, এজন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের শুধুমাত্র ঈদের দিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ছুটি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ঈদের আগে গার্মেন্ট কারখানাগুলো একসঙ্গে ছুটি হয়। সব শ্রমিক একসঙ্গে বাড়ি ফিরতে যাওয়ায় মঙ্গলবার চন্দ্রা, বাইপাইল ও মির্জাপুর পর্যস্ত রাস্তায় কয়েক ঘণ্টা জনজট হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদের তিন দিন আগে রাস্তায় কাভার্ডভ্যান চলাচলা করার নিষেধ থাকলেও তা অর্ধেক মানা হয়েছে। টানা বর্ষণে রাস্তায় যানবাহনের গতি কম ছিল, গার্মেন্ট কারখানাগুলো পরপর তিন দিন ছুটি দেয়ার কথা বললেও তা মানা হয়নি বলেই মানুষের কিছুটা দুর্ভোগ হয়েছে।

তিনি বলেন, আগামী ঈদুল আজহা সামনে রেখে যানজট পরিস্থিতি আরও কিভাবে উন্নতি করা যায়, সেজন এখন থেকে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, ঈদের পর রাস্তার পাশ থেকে সব ধরনের বিলবোর্ড উচ্ছেদ করা হবে। বৃষ্টির কারণে যেসব রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, সেসব রাস্তা দ্রুতগতিতে মেরাতম করাই এখন আমাদের কাজ।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by