যশোর ব্যুরো    |    
প্রকাশ : ০৫ জানুয়ারি, ২০১৭ ২৩:৪০:২৮ | অাপডেট: ০৬ জানুয়ারি, ২০১৭ ০০:৫২:৪৪ প্রিন্ট
ঘুষ না পেয়ে যুবককে থানায় ঝুলিয়ে পেটালো পুলিশ!

যশোরে দাবিকৃত ঘুষ দিতে রাজি না হওয়ায় থানার মধ্যে ঝুলিয়ে এক যুবককে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে।

দুই লাখ টাকা ঘুষ দাবি করা হলেও শেষ পর্যন্ত আবু সাঈদ (৩০) নামের ওই যুবক ৫০ হাজার টাকার বিনিময়ে ছাড়া পেয়েছেন। আবু সাঈদ যশোর সদর উপজেলার তালবাড়িয়া গ্রামের নুরুল হকের ছেলে।

সূত্র জানায়, সাঈদকে বুধবার রাতে আটক করেন কোতোয়ালি থানার গোয়েন্দা টিমের এসআই নাজমুল ও এএসআই হাদিবুর রহমান।

পরে তার কাছে ২ লাখ টাকা দাবি করেন ওই দুই কর্মকর্তা। ঘুষ দিতে অস্বীকার করায় আবু সাঈদকে হ্যান্ডক্যাপ পরিয়ে থানার মধ্যে দুই টেবিলের মাঝে বাস দিয়ে উল্টো করে ঝুলিয়ে পেটানো হয়। পরে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে রাতেই ছাড়া পান সাঈদ।

এ প্রসঙ্গে কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন বলেন,  বিষয়টি আমার জানা নেই। তিনি এসআই নাহিয়ানের সঙ্গে কথা বলার জন্য পরামর্শ দেন।

যোগাযোগ করা হলে এসআই নাহিয়ান জানান, ঘটনার সঙ্গে তিনি জড়িত নন।  তবে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এস আই নাজমুল ও এএসআই হাদিবুর রহমান তাকে আটক করে দুই লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন।

টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাকে কোতোয়ালি থানা অভ্যন্তরে ঝুলিয়ে পেটানো হয়েছে। এদিকে অপর অভিযুক্ত এএসআই হাদিবুর রহমান বলেন, ঘটনার সঙ্গে আমি জড়িত নই।

এদিকে কী অভিযোগে তাকে আটক করা হয়েছিল পুলিশের পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট করে কিছু বলা হচ্ছে না। অপরদিকে, নির্যাতিত আবু সাঈদের এক স্বজন জানিয়েছেন, আবু সাঈদের নামে থানায় মামলা থাকলেও তিনি জামিনে আছেন।

বুধবার রাতে বিনা অপরাধে তাকে আটক করা হয়। পরে ঘুষ নিয়ে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।
 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত