বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২২:২০:২৩ প্রিন্ট
ছাত্রীদের কমনরুমে ভিডিও ধারণের অভিযোগে ছাত্র বহিষ্কার

রাজশাহীতে একটি হাইস্কুলে ছাত্রীদের কমনরুমে ভিডিও ধারণের অভিযোগে পারভেজ আহম্মেদ নামের এক ছাত্রকে স্কুলটি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বাঘা উপজেলার চণ্ডিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই ছাত্রের চাচা (অভিভাবক) বজলুর রহমানকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে উভয়কে ডেকে এই নির্দেশ দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হামিদুল ইসলাম।

জানা যায়, মোবাইল ফোনে ছাত্রীদের ছবি ধারণের জন্য গোপনে ছাত্রীদের কমনরুমের জানালার র‌্যাকের ওপর মোবাইলফোনটি চালু করে রেখে যায় একই বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র পারভেজ আহম্মেদ।

বিদ্যালয় ছুটির পর কমনরুমের কক্ষ বন্ধ করার সময় প্রতিষ্ঠানের আয়া জরিনা বেগম মোবাইল ফোনটি দেখতে পেয়ে বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক আবদুল কুদ্দুসের কাছে জমা দেন।  পরে বিষয়টি প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামকে জানান আবদুল কুদ্দুস।

প্রধান শিক্ষক ফোনটি স্কুল গভর্নিং কমিটির সভাপতি ও বাজুবাঘা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমানের কাছে জমা দেয়ার জন্য বলেন।

প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে মোবাইল ফোনটি সভাপতির কাছে ধর্মীয় শিক্ষক আবদুল কুদ্দুস জমা দিতে যাওয়ার সময় অভিযুক্ত শিক্ষার্থী পারভেজ আহম্মেদ ও তার চাচা বাজুবাঘা ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি বজলুর রহমান বিদ্যালয়ে এসে ফোন চায়। ফোন দিতে না চাইলে উভয়ে মিলে বাঁশের লাঠি দিয়ে ওই ধর্ম শিক্ষককে মারধর করে। স্থানীয়রা এগিয়ে গিয়ে শিক্ষককে উদ্ধার করে।

ধর্ম শিক্ষক কুদ্দুস জানান, আমার কাছে এসে তারা ফোন চেয়েছে। দিতে না চাইলে তারা আমাকে মারধর শুরু করে। বর্তমানে আমি স্থানীয় চিকিৎসকের মাধ্যমে বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, তাৎক্ষণিক আমি বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানিয়েছিলাম। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে কাজ করেছি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুল ইসলাম বলেন, উভয়কে বুধবার আমার কার্যালয়ে ডাকা হয়েছিল। ওই শিক্ষার্থীকে বিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের নির্দেশ দিয়েছি। এছাড়া তার অভিভাবক চাচাকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত