বেনাপোল প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১০ নভেম্বর, ২০১৭ ০৫:০৩:৫৪ প্রিন্ট
বেনাপোল বন্দর দিয়ে পণ্য আমদানি রফতানি বন্ধ

বেনাপোল স্থলবন্দরে ভারত থেকে আমদানি করা পণ্য বোঝাই ট্রাক থেকে একটি দেশীয় শুটারগান উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় সোনিয়া এন্টারপ্রাইজ নামে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের এক কর্মচারীকে আটক করা হয়েছে।

আটকের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকালে অনির্দিষ্টকালের জন্য দু’দেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি বাণিজ্য বন্ধ করে দিয়েছে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট কর্মচারী ইউনিয়ন।

সকাল থেকে কয়েক হাজার কর্মচারী বেনাপোল-যশোর সড়ক অবরোধ করে বন্দর এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

বেনাপোল থেকে দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাসসহ সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। বন্দর থেকে মালামাল লোড-আনলোডসহ বন্ধ রয়েছে সব ধরনের পণ্য খালাস প্রক্রিয়া। ফলে চাল ও পচনশীল পণ্যসহ শত শত পণ্য বোঝাই ট্রাক আটকে আছে উভয় বন্দর এলাকায়।

উল্লেখ্য, বুধবার রাত সাড়ে ১০টায় বেনাপোল বন্দরের ভারতীয় ট্রাক টার্মিনালে ভারতীয় এন-২৩ প-০৩৭৩ নম্বার ট্রাকে আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে এমন সংবাদ পেয়ে কাস্টমস, বন্দর, বিজিবি, পুলিশসহ বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদের উপস্থিতিতে ট্রাকের ডালার পেছনে কাগজে মোড়ানো প্যাকেট থেকে পুরনো একটি দেশি ওয়ান শুটারগান ও দুই রাউন্ড বন্দুকের গুলি পাওয়া যায়।

প্রশাসনিক সংস্থার লোকজনের উপস্থিতির খবর পেয়ে ট্রাক থেকে আগেই পালিয়ে গেছে চালক। ওই ট্রাকের পণ্য চালানের আমদানিকারক ঢাকার ইউনিয়ন লেবেল এক্সেসরিজ লিমিটেড।

আটক কর্মচারী মিকাইল হোসেনের নিঃশর্ত মুক্তি না দেয়া পর্যন্ত আমদানি-রফতানি বন্ধ থাকবে বলে আন্দোলনকারীরা জানায়।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত