অনলাইন ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ১৪ নভেম্বর, ২০১৭ ১৬:৫৭:৩০ প্রিন্ট
স্বামীর জামিনের বিরোধিতায় কান্নায় ভেঙে পড়েন মিলা

স্বামী পারভেজ সানজারির জামিন আবেদনের শুনানিতে এজলাসে দাঁড়িয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন কণ্ঠশিল্পী মিলা ইসলাম।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো. কামরুল হোসেন মোল্লার আদালতে সানজারির জামিনের আবেদনের ওপর শুনানি হয়।

যৌতুকের দাবিতে মারধরের মামলায় সোমবার জামিনের বিরোধিতায় এজলাসে উঠে স্বামীর নির্যাতনের বর্ণনা দেয়ার সময় কেঁদে ফেলেন মিলা।  

মিলা দাবি করেন, বিয়ের চারদিন পর জোর করে আমাকে তালাক দিতে বলে সানজারি। আমি রাজি না হওয়ায় আমার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে। বিয়ের আগে তার সঙ্গে আমার ১১ বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ১১ বছরে কোনো সমস্যা হয়নি। কিন্তু বিয়ের চারদিনের মধ্যে তার আচরণ পরিবর্তন হয়ে যায়। আমি তার জামিন নামঞ্জুরের জন্য আদালতের কাছে অনুরোধ করছি।

এ কথা বলেই মিলা কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরে আসামিপক্ষের আইনজীবীকে বাদীর সঙ্গে মীমাংসা করতে বলে আগামী ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত সানজারির জামিনের মেয়াদ বাড়িয়ে দেন বিচারক।

এর আগে গত ২৫ অক্টোবর সানজারিকে অন্তর্বতী জামিন দিয়েছিলেন একই বিচারক। সোমবার মেয়াদ শেষ হলে আইনজীবী কাজী নজিবুল্যাহ হীরুর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে ফের জামিনের আবেদন করেন সানজারি।

গত ৫ অক্টোবর রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় মারধর ও যৌতুকের অভিযোগে মিলা বাদী হয়ে মামলাটি করেন। মামলা দায়েরের পরই সানজারিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, বিয়ের পর পর্যায়ক্রমে কয়েকবার মারধরের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ চলতি মাসের ৩ অক্টোবর মিলাকে মারধর করেন তার স্বামী। এর আগে স্বামী ৫ লাখ টাকা যৌতুক নিয়েছেন। আরও ১০ লাখ টাকা দাবি করলে তা না পেয়ে মিলাকে মারধর করা হয়।
 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত