আনলাইন ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০৩:১১:৪১ প্রিন্ট
রসুন সবজি না মশলা? জানতে আদালতে মামলা

বিচিত্র সব বিষয় নিয়ে আজকাল মানুষ আদালতের দ্বারস্থ হচ্ছে! তার সর্বশেষ উদাহরণ হল রসুন।

রসুন আসলে কোনও সবজি না মশলা- এটা নির্ধারণ করতে অবশেষে  ভারতের রাজস্থান হাইকোর্টে ওই মামলা হয়েছে। খবর বিবিসির।

আদালত সরকারের কাছে এর ব্যাখ্যা চেয়েছে। কারণ রাজস্থান সরকারেরই এক নির্দেশের ফলে রসুন নিয়ে ওই বিভ্রান্তি।

২০১৬ সালে জারি করা এক নির্দেশে রাজ্যটির সবজির পাইকারি বাজারগুলিতে রসুন বিক্রি করা যায় না। তার পরিবর্তে শস্যের বাজারে বিক্রি করতে হবে বলে জানিয়েছিল সরকার।

কিন্তু ব্যবসায়ীদের দাবি, শস্যের বাজারে রসুন বিক্রি করলে দুই শতাংশ কমিশন পাওয়া যায়, অথচ সবজি বাজারে যখন রসুন বিক্রি হতো, তখন ছয় শতাংশ কমিশন পাওয়া যেতো।

আয় কমে যাওয়ার ফলে হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছে যোধপুর আলু-পেঁয়াজ ও রসুন বিক্রেতা সংগঠন। তাদের প্রশ্ন কেন শস্যের বাজারে রসুন বিক্রি করা হবে?

ভারতীয় কৃষি গবেষণা সংস্থার বিজ্ঞানী ড. প্রীতম কালিয়া জানান, রসুন মূলত সবজিই, কিন্তু এর ব্যবহার হয় মশলা হিসাবে। রসুনের চাষও হয় সবজি হিসাবেই।

সবজি বাজারে রসুন বিক্রি করার কথা কেন বলা হচ্ছে জানি না, কারণ রসুন কোনোভাবেই আনাজ বা শস্যের মধ্যে পড়ে না।

পেঁয়াজ আর রসুনকে ভাই-বোনও বলা চলে - দুটো নাম অনেক ক্ষেত্রেই এক সঙ্গেই উচ্চারিত হয় রান্নাঘরে।

অ্যান্টিবায়োটিক, অ্যান্টি ভাইরাল আর অ্যান্টিফাঙ্গাল গুণাগুণ সমৃদ্ধ রসুনের উপকারিতা প্রাচীনকাল থেকেই স্বীকৃত।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত