• বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭
ঢাকা    |    
প্রকাশ : ২০ জুন, ২০১৭ ০০:১৭:৩১ | অাপডেট: ২০ জুন, ২০১৭ ০০:১৮:১১ প্রিন্ট
পাঁচ আইনজীবীর বিরুদ্ধে হাইকোর্টের রুল
আদালত কক্ষে চিৎকার ও কার্যক্রমে ব্যাঘাত ঘটানোর অভিযোগে পাঁচ আইনজীবীর বিরুদ্ধে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আগামী ২ জুলাই পাঁচ আইনজীবীকে আদালতে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
 
আদালত অবমাননার অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না, রুলে তা জানতে চাওয়া হয়েছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
 
সোমবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির আহমেদ চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে রুলসহ এ আদেশ দেয়।
 
পাঁচ আইনজীবী হলেন নূরে-ই আলম উজ্জ্বল, বিল্লাহ হোসেন লিজেন পাটোয়ারী, মাহমুদ, মতি লাল ব্যাপারী ও মোহাম্মদ আলী।  
 
আদেশে বলা হয়েছে, বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদারের নেতৃত্বাধীন অবকাশকালীন হাইকোর্ট বেঞ্চের আদালতে কিছুসংখ্যক আইনজীবী হঠাৎ চিৎকার-চেঁচামেচি শুরু করেন। এতে আদালতের কার্যক্রম বাধাগ্রস্থ হয়। 
 
ঘটনার এক পর্যায়ে আইনজীবী নূরে ই আলম উজ্জ্বল, বিল্লাল হোসেন লিজেন পাটোয়ারী, মাহমুদ, মতি লাল ব্যাপারী এজলাসের সামনে এসে রফিকুল ইসলাম নামের এক বেঞ্চ কর্মকর্তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার পাশাপাশি মামলার নথিপত্র তছনছ করেন। 
 
তালিকাভুক্ত না হওয়া মোশন (আবেদন) শুনানি হয়নি বলে ওই আইনজীবীরা অজুহাত হিসেবে দাবি করেন। 
 
এছাড়া উক্ত বেঞ্চ কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করতে ওই আইনজীবীদের উৎসাহ দেন মোহাম্মদ আলীসহ কয়েকজন আইনজীবী। তখন আদালত ক সংলগ্ন খাস কামরায় থাকা বিচারকরা আইনজীবীদের এ হট্টগোলের শব্দ শুনতে পান। আদালতে আইনজীবীদের এহেন আচরণ আদালতের ভাবমূর্তি ও মর্যাদাকে খাটো করেছে। যা আদালত অবমাননার শামিল।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by