যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২২:৫১:৫৮ প্রিন্ট
তারুণ্য শক্তিকে কাজে লাগিয়ে এসডিজি বাস্তবায়ন করতে চাই
ফাইল ছবি

পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল বলেছেন, যুবসমাজ বা তারুণ্য শক্তিকে কাজে লাগিয়ে আমরা ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) বাস্তবায়ন করতে চাই। সরকার এজন্য প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তে প্রযুক্তিভিত্তিক শিক্ষাব্যবস্থা গড়ে তোলার ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে অর্থনীতিভিত্তিক জাতীয় দৈনিক আজকের বিজনেস বাংলাদেশ পত্রিকার আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের আগেই আমরা মধ্যম আয়ের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে চাই। পাশাপাশি উন্নত দেশের কাতারে পৌঁছাতে আমাদের যুব সমাজকে কার্যকরভাবে কাজে লাগাতে চাই। এর অংশ হিসেবে জ্ঞানভিত্তিক সমাজ গঠনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষে বর্তমান সরকার ভিশন-২০২১ টার্গেট নিয়ে দেশ সেবায় কাজ করে যাচ্ছে। এর বাস্তবায়নের কাছাকাছি চলে এসেছি।

সম্প্রতি দ্যা ইকোনমিস্ট পত্রিকায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে মন্ত্রী বলেন, বিশ্বখ্যাত এই পত্রিকাটি তার প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে-শুন্য হাতে শুরু করে বাংলাদেশ এখন অধিকাংশ অর্থনৈতিক সূচকে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে। এই অর্জনের পেছনে দেশের সব পর্যায়ের মানুষের অবদান আছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বস্তুনিষ্ঠ এবং ইতিবাচক সংবাদ প্রকাশের মাধ্যমে অর্থনৈতিক উন্নয়নে সংবাদমাধ্যমকে আরও সম্পৃক্ত হওয়ার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এতে দেশের মানুষ অনুপ্রাণিত হবে।

পত্রিকার সম্পাদক মেহেদি হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. ইউনুসুর রহমান, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া, বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স করপোরেশনের (বিএইচবিএফসি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেবাশীষ চক্রবর্ত্তী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by