যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ১২ অক্টোবর, ২০১৭ ২১:০১:৩৬ | অাপডেট: ১২ অক্টোবর, ২০১৭ ২১:০১:৪৭ প্রিন্ট
প্রধান বিচারপতির ছুটি
সুপ্রিমকোর্টে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি

প্রধান বিচারপতির ছুটির ইস্যুকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবারও সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গণে পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি পালন করেছেন সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির বিএনপি ও আওয়ামী সমর্থক আইনজীবীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির ভবনের সামনে মানববন্ধন করেন সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির বিএনপিপন্থীরা।

এ সময় আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, প্রধান বিচারপতিকে সুকৌশলে বিদেশে পাঠিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। তাকে বিদেশে পাঠিয়ে দেয়া হলেও আইনজীবীদের আন্দোলন চলমান থাকবে।

আগামী রোববার ও সোমবার দেশের সব জেলা বারের পক্ষ থেকে জেলা জজ ও ডিসি বরাবর স্মারকলিপি দেয়া এবং সুপ্রিমকোর্ট বারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি।

এদিকে সমিতির সহ-সভাপতি অজি উল্লাহ সমিতির ভবনের সামনে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, প্রধান বিচারপতির ছুটিকে কেন্দ্র করে সুপ্রিমকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি-সম্পাদকের নেতৃত্বে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে অশালীন কার্যকলাপ করছেন। যার কারণে বিচার অঙ্গনের শান্তিপূর্ণ ও স্বাভাবিক পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। যা সাধারণ আইনজীবীরা মেনে নেবেন না। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

প্রধান বিচারপতিকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে:

সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন বলেন, কোনো ব্যক্তিকে রক্ষা করার জন্য আমরা আন্দোলন করছি না, এটা বিচার বিভাগ রক্ষার আন্দোলন। জয়নুল আবেদীন অভিযোগ করেন, আইন মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।

সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, আইনমন্ত্রী স্বীকার করেছেন প্রধান বিচারপতি জিওতে স্বাক্ষর করেননি। ব্যক্তিগত সহকারী কর্মকর্তা চিঠি লিখেছেন। প্রধান বিচারপতিকে আজ গৃহবন্দি করে রাখা হয়েছে। তাকে জোর করে বিদেশে পাঠানো হচ্ছে। সুপ্রিমকোর্টে অবৈধ কর্মকাণ্ড শুরু হয়েছে।

তিনি বলেন, অ্যাটর্নি জেনারেল, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলরা সরকারি চাকরি করেন। আপনারা পদত্যাগ করে রাজনৈতিক দলের কর্মসূচিতে অংশ নেন। অন্যায়ের প্রতিবাদ করার কারণে সুপ্রিমকোর্ট বারের সভাপতিকে গ্রেফতার করতে পারেন। আমাকেও গ্রেফতার করতে পারেন। কিন্ত প্রধান বিচারপতির পদ সমুন্নত না থাকলে আইনের শাসন ও ন্যায়বিচার থাকবে না।

তিনি আওয়ামী আইনজীবীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনারা পুলিশের প্রহরায় আসেন। পুলিশ প্রহরায় এসে ধমক দেবেন, এটা মেনে নেয়া যায় না। ভবিষ্যতে ধমক দিলে আইনজীবীরা এর কড়া জবাব দেবে।

এদিকে মানববন্ধন শেষে সুপ্রিমকোর্টে বারের সভাপতি জয়নুল আবেদীন ও সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকনের নেতৃত্বে শতাধিক আইনজীবী প্রধান বিচারপতির বাসভবনের উদ্দেশ্যে বিক্ষোভ করে যাত্রা শুরু করেন। তবে আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর বাধার কারণে সুপ্রিমকোর্টের মাজার গেট থেকে ফিরে আসতে বাধ্য হন।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সমিতির বর্তমান সম্পাদক মাহবুব উদ্দিন খোকন, সাবেক সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, তৈমুর আলম খন্দকার, গোলাম মো. চৌধুরী আলাল, সুপ্রিমকোর্ট বারের সহ-সভাপতি উম্মে কুলসুম রেখা, আবেদ রাজা, মনির হোসেন, মোহাম্মদ আলী, গাজী কামরুল ইসলাম সজল, মির্জা আল মাহমুদ, মো. আহসানউল্লাহ, শরীফ ইউ আহমেদ প্রমুখ।

সভাপতি-সম্পাদকের নেতৃত্বে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে অশালীন কার্যকলাপ করা হচ্ছে:

সংবাদ সম্মেলনে সমিতির সহ-সভাপতি অজি উল্লাহ বলেন, প্রধান বিচারপতির ছুটিকে কেন্দ্র করে সুপ্রিমকোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি-সম্পাদকের নেতৃত্বে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে অশালীন কার্যকলাপ করা হচ্ছে। যার কারণে বিচার অঙ্গনের শান্তিপূর্ণ ও স্বাভাবিক পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। যা সাধারণ আইনজীবীরা মেনে নেবেন না।

তিনি বলেন, সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির আদালতের আঙিনায় প্রধান বিচারপতির ছবি ঝুলিয়ে তাকে পণ্য হিসেবে প্রচার করছে। যা তার প্রতি অশ্রদ্ধা প্রদর্শনের শামিল। তিনি বলেন, সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি-সম্পাদক বিএনপি সমর্থক আইনজীবী। তারা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভার নামে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছেন। তারা সমিতিকে দলীয় কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার করছেন। এর সঙ্গে সাধারণ আইনজীবীদের কোনো সম্পর্ক নাই। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এ সময় সমিতির নেতা অ্যাডভোকেট নুর-ই আলম উজ্জল, রফিকুল ইসলাম হিরু, সফিকুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান ও কুমার দেবলু দে উপস্থিত ছিলেন।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত