যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ১৪ নভেম্বর, ২০১৭ ২০:৩০:৫৩ প্রিন্ট
উৎপলকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে স্মারকলিপি

নিখোঁজ সাংবাদিক উৎপল দাসকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে অক্ষত অবস্থায় তার পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়েছে সাংবাদিক সংগঠনগুলো।

মঙ্গলবার এ দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) এবং ঢাকাস্থ নরসিংদী জেলা সাংবাদিক সমিতির উদ্যোগে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশ শেষে সাংবাদিকরা মৌন মিছিল করে প্রেস ক্লাব থেকে সচিবালয়ের প্রবেশ পথ পর্যন্ত যান।
 
সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ডিইউজে সভাপতি শাবান মাহমুদ।

এতে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, ডিইউজের সাধারণ সম্পাদক সোহেল হায়দার চৌধুরী, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক মুরসালিন নোমানী, নরসিংদী জেলা সাংবাদিক সমিতির সভাপতি মনির হোসেন লিটন, সাধারণ সম্পাদক গ্যালমান শফি প্রমুখ।
 
মনজুরুল আহসান বুলবুল বলেন, উৎপলের নিখোঁজের একটি মাত্রই কারণ থাকতে পারে, তা হল সাংবাদিকতা। সাংবাদিকতা কোনো অপরাধ নয়, তারপরও উৎপলকে খুঁজে পাওয়া যাবে না?

তিনি বলেন, উৎপলকে খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত সাংবাদিকরা আন্দোলন চালিয়ে যাবে। রাজপথ থেকে পিছু হটবে না।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ২৯ বছর বয়সী সাংবাদিক উৎপল ৩৫ দিন ধরে নিখোঁজ। তার পরিবার ও সহকর্মীরা চরম উদ্বেগ উৎকণ্ঠার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। একজন তরুণ এভাবে হারিয়ে যাবেন, তা মেনে নেয়া যায় না। উৎপলের নিখোঁজের কারণ যাই হোক, তাকে খুঁজে বের করা রাষ্ট্র ও সরকারের দায়িত্ব।
 
উৎপলের সন্ধানের দাবিতে প্রায় এক মাস ধরে রাজপথে নিয়মিত কর্মসূচি পালন করছে সাংবাদিক সংগঠনগুলো।

প্রতিদিন দুপুর ১টা ৪৭ মিনিটে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সামনে মানববন্ধন করছেন তার সহকর্মীরা।

সর্বশেষ গত রোববার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, কিছুটা সময় লাগতে পারে উৎপলসহ নিখোঁজ ব্যক্তিদের খুঁজে বের করতে।

এ বক্তব্যের নিন্দা করা হয় সোমবারের সমাবেশ থেকে।

উল্লেখ্য, গত ১০ অক্টোবর নিখোঁজ হন অনলাইন নিউজ পোর্টাল পূর্বপশ্চিমের সিনিয়র রিপোর্টার উৎপল দাস।

গত ২২ ও ২৩ অক্টোবর মতিঝিল থানায় পৃথক দুটি সাধারণ ডায়েরি হয়।

পুলিশের তথ্যানুযায়ী, তার সর্বশেষ অবস্থান ছিল ধানমণ্ডি ৩২ নম্বর এলাকায়।

গত ১০ অক্টোবর দুপুর ১টা ৪৭ মিনিট থেকে তার ফোন বন্ধ রয়েছে।

গত ৫ নভেম্বর পুলিশ পরিচয়ে পরিবারকে জানানো হয়, টাঙ্গাইলের মীর্জাপুরে উৎপলের সন্ধান পাওয়া গেছে। পরবর্তীতে এ খবর মিথ্যা প্রমাণিত হয়।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত