ঝালকাঠি প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১২ আগস্ট, ২০১৭ ১৮:০৬:০৪ প্রিন্ট
সংসদ অবৈধ হলে প্রধান বিচারপতির নিয়োগও অবৈধ: শিল্পমন্ত্রী

বর্তমান সংসদ অবৈধ হলে প্রধান বিচারপতির নিয়োগও অবৈধ বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

শনিবার দুপুরে ঝালকাঠিতে আন্তর্জাতিক যুব দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার উদ্দেশে শিল্পমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন না হলেও আওয়ামী লীগ এ দেশে মাথা উঁচু করে থাকত। কিন্তু দেশ স্বাধীন না হলে আপনি প্রধান বিচারপতি হতে পারতেন না। তাই মনে রাখতে হবে, বর্তমান সংসদ অবৈধ হলে প্রধান বিচারপতি হিসেবে আপনার নিয়োগও অবৈধ।

তিনি আরও বলেন, এ দেশ যাতে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে সে জন্য বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে। সেই থেকে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র চলছে। শেখ হাসিনা সব ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন।

কোনো অপশক্তিকে এই দেশের মানুষ প্রশ্রয় দেয় না। তাই সমস্ত ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙা জবাব দেয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়েও কথা বলেন আওয়ামী লীগের এ উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য।

সংবিধান অনুযায়ী এ দেশে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ভারতে কংগ্রেস ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় নির্বাচন হয়েছে এবং আমেরিকায় ওবামা প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় তার নেতৃত্বে নির্বাচন হয়েছে। পৃথিবীর সকল গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে যেভাবে নির্বাচন হয় বাংলাদেশেও সেইভাবে নির্বাচন হবে।

সংবিধান অনুযায়ীই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এর বাইরে যাওয়ার ক্ষমতা কারো নেই। কোনো ষড়যন্ত্র, কোনো চক্রান্ত তা ব্যাহত করতে পারবে না বলেও মন্তব্য করেন আমু।

ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার মো. জোবায়েদুর রহমান, পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার, যুব উন্নয়ন অধিদফতরের উপ-পরিচালক মো. মিজানুর রহমান প্রমুখ।

পরে শিল্পমন্ত্রী যুব উন্নয়নের প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ৪৩ জন যুবকের মধ্যে ঋণের ২৩ লাখ ৩০ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেন।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত