•       রংপুর সিটি নির্বাচন: প্রার্থীদের হলফনামায় বিভ্রান্তিমূলক তথ্য আছে: সুজন; ইসিকে ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ       প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে নাটোর সদরের ১২৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রথম ও চতুর্থ শ্রেণির আজকের গণিত পরীক্ষা স্থগিত       রাজধানীর শুক্রাবাদে নির্মাণাধীন ভবন থেকে মেরিন ইঞ্জিনিয়ারের মরদেহ উদ্ধার
যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৭ ১৭:৪০:৫৪ প্রিন্ট
অপশক্তিকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসতে দেবে না জনগণ
ফাইল ছবি

কোনো ব্যক্তির অধীনে নয়, সাংবিধানিক বিধান অনুযায়ী আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

তিনি বলেন, রাষ্ট্র চলে সংবিধানের ভিত্তিতে এবং সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। ২০১৪ সালে নির্বাচন বানচালের নামে সাংবিধানিক শূন্যতা সৃষ্টির মাধ্যমে অপশক্তিকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলের সুযোগ করে দেয়ার অপচেষ্টা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ়তায় তা মোকাবেলা করা সম্ভব হয়েছে। আবার বাংলাদেশে সাংবিধানিক শূন্যতার সুযোগ নিয়ে কোনো অপশক্তি রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসুক, তা জনগণ হতে দেবে না।

রোববার রাজধানীর আইডিইবি ভবনে “সমৃদ্ধ বাংলাদেশ ও এসডিজি অর্জনে দক্ষতা” শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশ (আইডিইবি)-এর ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও গণপ্রকৌশল দিবস-২০১৭ উদযাপন উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সংগঠনের সভাপতি প্রকৌশলী একেএম হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া, জাতীয় পার্টির (জেপি) মহাসচিব ও সাবেক মন্ত্রী শেখ শহীদুল ইসলাম, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, জাসদের স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিট ব্যুরোর সদস্য আনিসুর রহমান মল্লিক, আইডিইবি’র সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো. শামসুর রহমান বক্তব্য রাখেন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার মাত্র সাড়ে তিন বছরের মাথায় বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে বাংলাদেশকে পঞ্চাশের দশকে ফিরিয়ে নেয়া হয়েছিল। পরবর্তীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা পুনরুদ্ধারের পাশাপাশি অর্থনৈতিক অগ্রগতির ধারা জোরদার করা হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশ এমডিজি লক্ষ্য অর্জনে এশিয়ার অন্য দেশগুলো থেকে এগিয়ে গেছে।

আমির হোসেন আমু বলেন, ডিপ্লোমা প্রকৌশলীরা হচ্ছেন শিল্পসমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার কারিগর। দেশে বর্তমানে কারিগরি জনবলের পরিমাণ শতকরা মাত্র ১৪ ভাগ। উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণের জন্য এর পরিমাণ ৮০ শতাংশে উন্নীত করতে হবে।

অনুষ্ঠানে আইডিইবি’র নেতারা জানান, গণমানুষের প্রকৌশলী হিসেবে দেশের বিভিন্ন খাতে প্রায় ৫ লাখ ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার নিরলসভাবে কাজ করছে। জাতীয় উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদান থাকলেও তারা উপযুক্ত সামাজিক ও পেশাগত মর্যাদা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তারা বিতর্কিত ঢাকা মহানগর ইমারত নির্মাণ বিধিমালা সংশোধনপূর্বক গেজেট প্রকাশ, সরকারি, আধাসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের সহকারী প্রকৌশলী/সমমানের পদে পদোন্নতির ক্ষেত্রে শতকরা ৫০ ভাগ কোটা সংরক্ষণ, ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের প্রাথমিক নিযুক্তিতে গ্র্যাজুয়েট ইঞ্জিনিয়ারদের মতো একটি স্পেশাল ইনক্রিমেন্ট প্রদান, পরিকল্পনা ও নকশা বিভাগে কর্মরত ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের ব্যক্তিগত ভাতা হিসেবে সহকারী প্রকৌশলীদের অনুরূপ ৩টি ইনক্রিমেন্ট প্রদান এবং জাতীয় উন্নয়নের বৃহত্তর স্বার্থে আন্তর্জাতিক ইঞ্জিনিয়ারিং কনসেপ্ট অনুযায়ী সেটআপ প্রণয়নের ঘোষণা দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি তুলে ধরেন।

শিল্পমন্ত্রী তাদের পেশাগত দাবিগুলো যৌক্তিক হিসেবে মন্তব্য করে এর সমাধানে কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত