অনলাইন ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ১৯ জুন, ২০১৭ ১৪:৫৯:০১ প্রিন্ট
'নো বল'র নাম হচ্ছে বুমরাহ বল!

শারজায় শেষ বলে চার রানের প্রয়োজনের সময় চেতন শর্মার বল উড়িয়ে দিয়ে জয় ছিনিয়ে নিয়েছিলেন জাভেদ মিঁয়াদাদ। বহুদিন পর সেই আক্ষেপের সঙ্গে নিজের নাম জড়ালেন টিম ইন্ডিয়ার সবচেয়ে ভয়ংকর বোলার জাসপ্রিত বুমরাহ।

নিন্দুকেরা বলছে, এখন থেকে আর 'নো বল' নয়, ডাকতে হবে 'বুমরাহ বল' নামে।

আর ডাকবেই বা না কেন? পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান ফখর জামানকে সাজঘরমুখি করেও শেষ পর্যন্ত তার ব্যাটিং তাণ্ডবেই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে টিম ইন্ডিয়া।

কারণ ওভালে বুমরাহ এবং ভারতের কপাল পোড়ালো একটি 'নো বল'।

পাকিস্তানের ব্যাটিংয়ের শুরুতেই সফলতা পেলেন বুমরাহ। তার বলে ধোনির হাতে খোঁচা দিয়ে সাজঘরমুখি হন পাকিস্তানের নতুন মারকুটে ব্যাটসম্যান ফখর জামান। কিন্তু জায়ান্ট স্ক্রিন বলছে বুমরাহ 'নো বল' করেছেন। জামান তখন ৭ বলে ৩ রান নিয়ে খেলছিলেন। পাকিস্তান ৩ ওভারে ৭-১ হয়ে যায়। সেই যে বাঁচলেন বামহাতি ওপেনার, থামলেন ১০৬ বলে ১১৪ রানের দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলে।

আদায় করে নিলেন নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি। আর সেটা এল কি না ফাইনালে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে। কী অসাধারণ এক আবির্ভাব!

আর এ কারণেই রোববারের পরে কানে এল 'নো বলের' নাম পাল্টে নাকি রাখা হবে 'বুমরাহ বল'! ক্লাইভ লয়েড পর্যন্ত লাঞ্চের সময় বলেন, বুমরাহর ‘নো বল’টাই টার্নিং পয়েন্ট হয়ে থাকল।

১৯৮৬ সালে শারজায় সেই শেষ বলের ছক্কা নিয়ে আজও কথা শুনতে হয় চেতন শর্মাকে। ১৮ জুন, ২০১৭-ও তাড়া করে বেড়াবে বুমরাহকে।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by