রিজভীকে বিচারের আওতায় আনার দাবি হাছান মাহমুদের

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৯:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ। ফাইল ছবি

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার জন্য আওয়ামী লীগই দায়ী’- বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর এ মন্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক হাছান মাহমুদ বলেছেন, আমি আদালতের প্রতি অনুরোধ করব, স্বপ্রণোদিত হয়ে রিজভীর ওই বক্তব্যের জন্য তাকে বিচারের আওতায় আনা হোক।

সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়ের পর সবদিক থেকে ধিকৃত হচ্ছে বিএনপি। তাই দলটি রায় নিয়ে মিথ্যাচারের রাজনীতি করেছে।

তিনি বলেন, গত রোববার সংবাদ সম্মেলনে রিজভী যে বক্তব্য দিয়েছেন তা জাতির সঙ্গে নির্মম মশকরা। আদালত অবমাননার শামিল। তার ওই বক্তব্য রায়ের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শনেরও শামিল। রিজভীর ওই বক্তব্য বিএনপির রাজনৈতিক মিথ্যাচারেরই অংশ বলেও মন্তব্য দেন তিনি।

আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ২১ আগস্ট হামলার পর বিচারপতি জয়নাল আবেদীনের নেতৃত্বে বিএনপি তদন্ত কমিশন গঠন করেছিল। সেই তদন্ত কমিশনও জাতির সঙ্গে মশকরা করেছিল। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় বিএনপি শুধু যুক্তই নয়, তাদের পরিকল্পনায় তারেক রহমান ও বাবরের নেতৃত্বে ওই ঘটনা ঘটিয়েছিল দলটি।

বিএনপি ও ড. কামাল হোসেনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বিষয়ে জানতে চাইলে হাছান মাহমুদ বলেন, ২১ আগস্ট হামলার পর ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গণতদন্ত কমিশন গঠন করা হয়েছিল। সেই তদন্ত কমিশন রিপোর্ট দিয়েছিল, ওই হামলার সঙ্গে বিএনপির জোট জড়িত। ২১ আগস্ট হামলাকারীদের সঙ্গে ড. কামালের ঐক্য রাজনৈতিক চরম অধঃপতন।

তিনি অভিযোগ করেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বিডিআর বিদ্রোহ ও হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। যেদিন ওই হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয় সেদিন খালেদা জিয়া অনেক ভোরেই তার বাড়ি থেকে গোপনে বেরিয়ে যান। যিনি কোনোদিন দুপুর ২টার আগে ঘুম থেকে ওঠেন না, রাত ৮টার আগে স্থায়ী কমিটির বৈঠক করতে পারেন না, কেন সেদিন তিনি এত ভোরে ঘুম থেকে উঠে বাসা থেকে চলে গেলেন- এ প্রশ্ন পুরো জাতির।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কৃষিবিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, উপপ্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, উপদফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter