নিবন্ধিত শরিকদের যেসব আসন দিল বিএনপি

  যুগান্তর রিপোর্ট ১০ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

নিবন্ধিত শরিকদের যেসব আসন দিল বিএনপি
প্রতীকী ছবি

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে চ‚ড়ান্ত লড়াইয়ের মাঠে রয়েছেন দেড় হাজারের বেশি প্রার্থী। শেষ দিনে তিন শতাধিক প্রার্থী তাদের প্রার্থিতা প্রত্যাহার করেন।

আর যেসব দলের একাধিক প্রার্থী ছিলেন, সেখানে একক প্রার্থী নিশ্চিত করায় ২৫৬ জনের প্রার্থিতা রহিত হয়। তিনশ’ আসনের মধ্যে ধানের শীষ নিয়ে ২৯৮ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

চ‚ড়ান্ত প্রার্থীদের সোমবার প্রতীক বরাদ্দ দেবেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা। এরপরই শুরু হবে প্রচার উৎসব।

৩০০ আসনের মধ্যে বিএনপি ২৪১ জনকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে। এ ছাড়া ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিকদের ৫৯টি আসনে ছাড় দিয়েছে দলটি।

এর মধ্যে ২০ দলীয় জোটের শরিকদের ৪০ এবং ঐক্যফ্রন্টকে ১৯টি আসন দেয়া হয়েছে। বিএনপিকে নিয়ে গঠিত জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ২০ দলীয় জোটের প্রার্থীরা ‘ধানের শীষ’ প্রতীকে নির্বাচনে লড়বেন। শুধু এলডিপির চেয়ারম্যান অলি আহমদ নিজ দলের ‘ছাতা’ প্রতীকে ভোট করবেন।

জানা গেছে, ২০ দলীয় শরিকদের মধ্যে জামায়াতে ইসলামীকে ২২টি, এলডিপিকে ৫, জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ৪, জাতীয় পার্টি (জাফর) ২, খেলাফত মজলিস ২, বিজেপি ১, এনপিপি ১, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি ১, লেবার পার্টি ১, পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশকে ১টি আসন দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে ১৯টি আসন ছাড় দেয়া হয়। এর মধ্যে গণফোরাম ৭, জেএসডি ৪, নাগরিক ঐক্য ৪ ও কৃষক শ্রমিক জনতা লীগকে ৪টি আসন ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

এ ছাড়া কক্সবাজার-২ আসনে জামায়াতের প্রার্থী স্বতন্ত্র হিসেবে লড়বেন। এ আসনে বিএনপির কোনো প্রার্থী দেয়নি। এর বাইরেও পাবনা-১-এ মতিউর রহমান নিজামীর ছেলে ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩-এ নুরুল ইসলাম বুলবুলকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে রেখেছে দলটি। এ দুটি আসনে ধানের শীষের প্রার্থী রয়েছে।

এদিকে সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের দিন নয় আসনে প্রার্থী রদবদল করেছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট। মানিকগঞ্জ-১ আসনে এসএ জিন্নাহ কবীরের পরিবর্তে প্রয়াত মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে খোন্দকার আক্তার হামিদ ডাবলুকে মনোনয়ন দেয়া হয়। কিন্তু দুপুরে ডাবলুকে বাদ দিয়ে জিন্নাহকেই বহাল রাখে দলটি। এ নিয়ে দোলোয়ারের পরিবার তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে।

এদিকে নিবন্ধিত শরিকদল গণফোরাম, এলডিপি, জেএসডি, জমিয়তে উলামায়ে, খেলাফত মজলিস ও কল্যাণ পার্টির ২৫ প্রার্থীকে ধানের শীষ প্রতীক দেয়ার অনুরোধ জানিয়ে ইসিতে চিঠি দিয়েছে বিএনপি।

এসব প্রার্থীরা হলেন ঢাকা-৬ আসনে গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী, ঢাকা-৭ মোস্তফা মহসীন মন্টু, কুড়িগ্রাম-২ মেজর জেনারেল (অব.) আমসাআ আমিন, পাবনা-১ আবু সাইয়িদ, ময়মনসিংহ-৮ এ এইচ এম খালেকুজ্জামান, মৌলভীবাজার-২ সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ ও হবিগঞ্জ-১ রেজা কিবরিয়া।

ময়মনসিংহ-১০ আসনে এলডিপির সৈয়দ মাহমুদ মোরশেদ, কুমিল্লা-৭ রেদোয়ান আহমেদ, লক্ষ্মীপুর-১ শাহাদত হোসেন ও চট্টগ্রাম-৭ মো. নূরুল আলম।

লক্ষ্মীপুর-৪ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি আসম আবদুর রব, ঢাকা-১৮ শহীদ উদ্দিন মাহমুদ, কিশোরগঞ্জ-৩ মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম ও কুমিল্লা-৪ আবদুল মালেক রতন।

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে জমিয়তে উলামায়ে বাংলাদেশের মনির হোসাইন,সুনামগঞ্জ-৩ শাহীনুর পাশা চৌধুরী ও সিলেট-৫ উবাইদুল্লাহ ফারুক।

টাঙ্গাইল-৪ আসনে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের লিয়াকত আলী, টাঙ্গাইল-৮ কাদের সিদ্দিকীর মেয়ে কুড়ি সিদ্দিকী ও গাজীপুর-৩ ইকবাল সিদ্দিকী।

হবিগঞ্জ-২ আসনে খেলাফত মজলিসের আব্দুল বাছিত আজাদ ও হবিগঞ্জ-৪ আহমদ আবদুল কাদের।

চট্টগ্রাম -৫ আসনে কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম এবং ঢাকা-১৭ আসনে বিজেপির চেয়ারম্যান আন্দালিভ রহমান পার্থ।

আর নিবন্ধনের বাইরে থাকা নাগরিক ঐক্য ও জামায়াতের প্রার্থীরা সরাসরি বিএনপির প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে লড়বেন বলে জানা গেছে।

ঘটনাপ্রবাহ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×