মাহী বি চৌধুরীকে নিয়ে যা বললেন শাহ মোয়াজ্জেম

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

মাহী বি চৌধুরীকে নিয়ে যা বললেন শাহ মোয়াজ্জেম
মাহী বি চৌধুরী ও শাহ মোয়াজ্জেম

মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে মহাজোট প্রার্থী মাহী বি চৌধুরীকে নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন একই আসনে ধানের শীষের প্রার্থী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই ক্ষোভের কথা বলেন।

প্রসঙ্গত, দুদিন আগে মুন্সীগঞ্জে মাহী বি চৌধুরীর বাড়িতে হামলা হয়েছে। ওই দিনই আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে হামলা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। মাহীর অভিযোগ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী এ হামলা করেছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।

প্রতিদ্বন্দ্বী মাহী বি চৌধুরীর দিকে ইঙ্গিত করে শাহ মোয়াজ্জেম বলেন, ধানের শীষের প্রার্থীর কোনো কর্মীকে মাঠে থাকতে দেবে না বলে তারা হুমকি দিয়েছে। তারা আরও ধমকি দিয়েছে যে, বিএনপি নেতাকর্মীদের এলাকাছাড়া করবে, তাদের জেলে পাঠাবে।

ওই আসনে মহাজোট প্রার্থী মাহী বি চৌধুরীর নাম উল্লেখ না করে প্রবীণ এ রাজনীতিবিদ বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে একজন দাঁড়িয়েছে, ওর নাম বলতে চাই না, ঘৃণা থেকে ওর নাম বলতে চাই না— নাটক করে। ওর বাপও প্রেসিডেন্ট ছিলেন এবং তাকে প্রেসিডেন্ট থেকে কীভাবে নামিয়ে দেয়া হয়েছিল, আপনারা তা জানেন। ওর দাদাও এক সময় মন্ত্রী ছিলেন। এলাকায় চার পয়সার কাজও করেননি।’

শাহ মোয়াজ্জেমের জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়ে মাহী বি চৌধুরী হামলা ও অগ্নিসংযোগের নাটক করছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, প্রার্থী হয়ে এলাকায় গিয়ে দেখে শাহ মোয়াজ্জেমের আর কিছু না থাক, এলাকায় স্নেহ-ভালোবাসা আছে।

শাহ মোয়াজ্জেম চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে আমাদের সাপোর্ট ৯০ ভাগের বেশি। ‘যদি একটা স্বচ্ছ ভোট হয়, তা হলে আমরা ৯০ ভাগ ভোট পেয়ে জয়ী হব। আর যদি না পাই, তা হলে রিজাইন দেব’,— বলেন শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন।

মাহী ঋণখেলাপি অভিযোগ করে শাহ মোয়াজ্জেম বলেন, ‘এই লোক অনেক টাকার মালিক, কিন্তু ঋণখেলাপি। সে প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতা রাখে না। কিন্তু কেমনে, কেমনে কোর্টকে ম্যানেজ করে, কীভাবে কোর্ট থেকে একটা স্টে-অর্ডার বের করে প্রার্থী হয়ে গেল।

শাহ মোয়াজ্জেম চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে আমাদের সাপোর্ট ৯০ ভাগের বেশি। যদি একটা স্বচ্ছ ভোট হয়, তা হলে আমরা ৯০ ভাগ ভোট পেয়ে জয়ী হব। আর যদি না পাই, তা হলে রিজাইন দেব’,— বলেন শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন।

আন্দোলন-সংগ্রামে নিজের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে শাহ মোয়াজ্জেম বলেন, আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা, আমি একজন ভাষাসৈনিক, যারা এ দেশকে তৈরি করেছে, তাদের মাঝে আমি একজন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নির্বাহী সদস্য তাবিথ আউয়াল, যুবদল নেতা এইচএম সাইফ আলী খানসহ অন্যরা।

নির্বাচনে সমতল ক্রীড়াভূমি নেই অভিযোগ করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম বলেন, নির্বাচনে কোথাও লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই। তথাকথিত লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডের নামে সরকারের মিথ্যাচার সীমা ছাড়িয়ে গেছে। তারই অংশ হিসেবে গতকাল আমরা নির্বাচনী এলাকায় আমার প্রতিপক্ষ প্রার্থী তার নিজ বাড়িতে হামলা এবং দলীয় অফিসে অগ্নিসংযোগের নাটক সাজিয়ে আমাদের কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা দিয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×