বগুড়ায় মান্নার হোটেলে পুলিশ: অবরুদ্ধ করে রাখার গুজব

  বগুড়া ব্যুরো ২৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৪:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় মান্নার হোটেলে পুলিশ: অবরুদ্ধ করে রাখার গুজব

বগুড়া শহরতলির ছিলিমপুরে চার তারকা হোটেল নাজ গার্ডেনে পরিবার নিয়ে অবস্থানকান করছেন বগুড়া-২ (শিবগঞ্জ) আসনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী মাহমুদুর রহমান মান্না।

তার খোঁজ-খবর নিতে হোটেলটিতে পুলিশ যাওয়ায় তাকে অবরুদ্ধ করে রাখার গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে ২-১ জন পুলিশ হোটেলে গেলে তার সমর্থকরা আতংকিত হন।

বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তী জানান, এটা নিছক একটা গুজব। ওই হোটেলে পুলিশ সবসময় যায়। এক কর্মকর্তা সেখানে গিয়ে মান্নার খোঁজ নেন। এতে প্রচার করা হয়, পুলিশ তাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

এ প্রসঙ্গে মাহমুদুর রহমান মান্না সাংবাদিকদের জানান, তিনিও বুঝতে পারছেন না ডিবি পুলিশ দ্বারা তিনি অবরুদ্ধ কিনা বা তাকে গ্রেফতার করা হবে কিনা? মান্না বলেন, সন্ধ্যায় চা পানের জন্য রুম থেকে হলে হোটেলের লবিতে ডিবির জ্যাকেট পরা কয়েকজনকে দেখতে পান। হোটেল কর্তৃপক্ষ তাকে বলেছেন, ডিবির লোকজন তার রুম তল্লাশি করতে চেয়েছিলো। কিন্তু তারা অনুমতি দেননি।

তিনি আরও বলেন, ডিবির লোকজনের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন- স্যার আপনার নিরাপত্তার জন্য এসেছি। কিন্তু তাদের আচরণে মনে হচ্ছে, তারা আসলে নিরাপত্তার নামে আমাকে কর্মী, ভোটার ও জনগণের কাছ থেকে বিচ্ছিন্ন করতে চাইছে। মাহমুদুর রহমান মান্না আরও বলেন, তার ৭১ সদস্যের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির অধিকাংশকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হয়তো তারা আমাকেও গ্রেফতার করতে পারে; কিন্তু আমি তাতে ভয় পাইনা।

এদিকে নাগরিক ছাত্র ঐক্যের আহবায়ক নাজমুল হাসানের দাবি, ডিবি পুলিশ মাহমুদুর রহমান মান্নাকে অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

এ প্রসঙ্গে বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তী জানান, অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। এসআই আজিজ মন্ডল এমনিতে ওই হোটেলে গিয়েছিলেন। মান্নাকে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়নি।

ঘটনাপ্রবাহ : বগুড়া-২: জাতীয় সংসদ নির্বাচন

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×